X
সোমবার, ২৭ মে ২০২৪
১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ঈদে স্টার সিনেপ্লেক্সের ৭ শাখায় ৮ ছবি

বিনোদন রিপোর্ট
০৯ এপ্রিল ২০২৪, ১৮:৫১আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৬

দেশের বৃহত্তম মাল্টিপ্লেক্স চেইন স্টার সিনেপ্লেক্স। দেশজুড়ে তাদের সাতটি শাখায় ১৯টি স্ক্রিন। এগুলোতে বছরজুড়ে বাংলার পাশাপাশি হলিউড-বলিউডের ছবি চলে। তবে বরাবরই নিজ দেশের ছবিকে প্রাধান্য দেয় প্রতিষ্ঠানটি। সেই ধারা অব্যাহত থাকছে এই ঈদেও।

এবারের ঈদে একসঙ্গে এক ডজনের বেশি ছবি মুক্তি পাচ্ছে। ফলে হল সংকটে পড়ছে কিছু ছবি। এর মধ্যেও আটটি ছবির ভরসা হয়ে উঠলো স্টার সিনেপ্লেক্স। ঈদ উৎসবে তাদের হলগুলোতে ঈদের আটটি ছবি চলবে। বিষয়টি বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির জ্যেষ্ঠ বিপণন কর্মকর্তা মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ।

তিনি জানালেন, এই ঈদে তাদের পর্দায় দেখা হিমেল আশরাফ নির্মিত ‘রাজকুমার’, মিশুক মনির ‘দেয়ালের দেশ’, মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ পরিচালিত ‘ওমর’, গিয়াস উদ্দিন সেলিমের ‘কাজলরেখা’, কামরুজ্জামান রোমান পরিচালিত ‘মোনা: জ্বীন ২’, ফুয়াদ চৌধুরী পরিচালিত ‘মেঘনা কন্যা’, ছটকু আহমেদের ‘আহারে জীবন’ ও কাজী হায়াত পরিচালিত ‘গ্রিন কার্ড’।

দর্শকের আগ্রহের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মেসবাহ বললেন, “দর্শক এবং ইন্ডাস্ট্রির কথা বিবেচনা করে আমরা আটটি ছবি চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তবে এর মধ্যে ‘রাজকুমার’, ‘দেয়ালের দেশ’ ও ‘ওমর’ ছবিগুলো নিয়ে দর্শকের আগ্রহ বেশি টের পাচ্ছি। আমাদের প্রত্যাশা সব ছবিই দর্শক দেখুক।”

এক ঈদে এত ছবি মুক্তি দেওয়ার বিষয়ে মেসবাহ উদ্দিন আহমেদের ভাষ্য, ‘এটা আসলে কাম্য নয়। আমরা চাই সারা বছর সিনেমা আসুক। তাহলে দর্শকের হলে আসার অভ্যাসটা গড়ে উঠবে। কিন্তু ব্যাপারটা ভ্যাকেশন বা উৎসবকেন্দ্রিক হয়ে গেছে। দর্শকের অভ্যাসটা তৈরি হচ্ছে না। কিন্তু কোনও ইন্ডাস্ট্রি তো শুধু ঈদের ব্যবসা দিয়ে টিকতে পারে না। এটা সংশ্লিষ্টদের বিবেচনা করা উচিত।’

মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ আট ছবির মধ্যে সবচেয়ে বেশি শো পেয়েছে ‘দেয়ালের দেশ’; সিনেপ্লেক্সের সব শাখা মিলিয়ে প্রতিদিন এর ১৭টি শো প্রদর্শিত হবে। এরপর ১৩টি করে শো পেয়েছে ‘রাজকুমার’ ও ‘কাজলরেখা’। এছাড়া ‘ওমর’ পেয়েছে ১১টি শো, ‘মোনা: জ্বীন ২’ সাতটি, ‘মেঘনা কন্যা’ দুটি, ‘গ্রিন কার্ড’ দুটি এবং ‘আহারে জীবন’ পেয়েছে তিনটি শো। 

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে রাজধানীর পান্থপথে বসুন্ধরা সিটি শপিং মল শাখা দিয়ে যাত্রা করে স্টার সিনেপ্লেক্স। বর্তমানে এটি ছাড়াও মহাখালীর এসকেএস টাওয়ার, ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভার, বিজয় সরণির সামরিক জাদুঘর, মিরপুরের সনি স্কয়ার, চট্টগ্রামের বালি আর্কিড ও রাজশাহীর হাইটেক পার্ক মিলিয়ে সাতটি শাখায় তাদের ১৯টি স্ক্রিন চালু রয়েছে। চলতি বছরের মধ্যে পর্দার সংখ্যা ৪০-এ নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।  

/কেআই/এমওএফ/
সম্পর্কিত
কান মাতিয়ে বাংলাদেশে আসছে এই ছবি
কান মাতিয়ে বাংলাদেশে আসছে এই ছবি
অভিযোগের জবাব ও স্টার সিনেপ্লেক্সের ভবিষ্যৎ ভাবনা
অভিযোগের জবাব ও স্টার সিনেপ্লেক্সের ভবিষ্যৎ ভাবনা
দেশের পর্দায় ক্রিস্টোফার নোলানের দুই ছবি
দেশের পর্দায় ক্রিস্টোফার নোলানের দুই ছবি
পর্দায় বহাল থাকছে বাদ পড়া ‘ওমর’ ও ‘রাজকুমার’
পর্দায় বহাল থাকছে বাদ পড়া ‘ওমর’ ও ‘রাজকুমার’
বিনোদন বিভাগের সর্বশেষ
মায়ের মৃত্যুর পর ধর্মে আস্থা বেড়ে গেছে: জাহ্নবী
মায়ের মৃত্যুর পর ধর্মে আস্থা বেড়ে গেছে: জাহ্নবী
ওটিটিতে আসছে ‘রাজকুমার’
ওটিটিতে আসছে ‘রাজকুমার’
ফাতিমা: সাধারণ এক নারীর ‘অসাধারণ’ সংগ্রামের ছবি
সিনেমা সমালোচনাফাতিমা: সাধারণ এক নারীর ‘অসাধারণ’ সংগ্রামের ছবি
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
কান নিয়ে হুমার ‘খোঁচা’ ও প্রত্যাশা
ফারিয়াকে চমকে দিলো আফ্রিকান ভক্ত
ফারিয়াকে চমকে দিলো আফ্রিকান ভক্ত