সফলতার সাত ছুঁয়েছে ‘গানবাংলা’

Send
বিনোদন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০০:০৫, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০৫, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯

দেশে এখন অনেক টিভি চ্যানেল। সঠিক সংখ্যা বলাটাও মুশকিল! অন্যদিকে, টিভি দর্শকরাও ক্রমশ ফিরে গেছেন ইউটিউব, অ্যাপ কিংবা বিদেশি চ্যানেলের দিকে। কারণ, অনুষ্ঠানের বৈচিত্র্যহীনতা এবং লাগামহীন বিজ্ঞাপন তরঙ্গ।



সেই পরিস্থিতিতে বিশেষায়িত হিসেবে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় চ্যানেল গানবাংলা মাথা উঁচু করে আছে দর্শক মনে, গেল ৬ বছর ধরে। মূল কারণ, চ্যানেলটির সম্প্রচার নীতি, অনুষ্ঠান মান এবং পরিমিত বিজ্ঞাপন প্রচার। বিশ্লেষকদের মতে, এখনও এমন নজির দেশের আর একটি টিভি চ্যানেলেও পরিলক্ষিত নয়।
প্রশংসিত সেই গানবাংলা টেলিভিশন প্রতিষ্ঠার ৬ বছর পূর্ণ করে ৭ বছরে পা রাখলো আজ (১৬ ডিসেম্বর) মহান বিজয়ের দিনে। ২০১৩ সালের এই দিনে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করে চ্যানেলটি।
বিগত ছয় বছর ধরে বাংলা গানের আন্তর্জাতিক বিকাশের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি কাজ করছে নিরলস। লোকসংগীতসহ সকল ধারার সংগীতকে আধুনিক যন্ত্রানুষঙ্গ সহযোগে নতুন প্রজন্মের শ্রবণ উপযোগী করে তোলা এবং বাংলার সমৃদ্ধ সংগীত ঐতিহ্যকে নবরূপে পুনরুদ্ধার ও চিরস্থায়ীকরণের লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে গানবাংলা।
যারই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালে ‘মিউজিক ফর পিস’ স্লোগানকে সামনে রেখে প্রতিষ্ঠানটি দেশি-বিদেশি শিল্পীদের অংশগ্রহণে শুরু করে আন্তর্জাতিক সংগীত প্রকল্প ‘উইন্ড অব চেঞ্জ’।
৩৫টি দেশের ৬৪ জন খ্যাতনামা শিল্পীর অংশগ্রহণে দেশীয় গানের আন্তর্জাতিক মানের উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে দেশে ও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করে প্রতিষ্ঠানটি।
সফলতার ছয় বছর পূর্ণ করার প্রতিক্রিয়ায় চ্যানেলটির চেয়ারম্যান ফারজানা মুন্নি বলেন, ‘‘আমাদের শুরুটা খুব ছোট্ট পরিসরে হয়েছিল। কিন্তু স্বপ্নটা ছিল আকাশ ছোঁয়ার। গত ছয় বছরে আমরা অদম্য চেষ্টা করে চলেছি বাংলা গানের সঠিক বিকাশ ও আন্তর্জাতিক বিস্তারের জন্য। সেই চেষ্টার অন্যতম অধ্যায় ‘উইন্ড অব চেঞ্জ’। ভাবতে ভালো লাগে, দেশে-বিদেশে যেখানেই যাই বাংলা গানের প্রসঙ্গ উঠলে রেফারেন্স হিসেবে এই অনুষ্ঠানটির নাম কানে আসে। তবে এখানেই আমরা থামতে রাজি নই। ৬ বছর অতিক্রম করার আগেই আমরা বেশকিছু বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছি গানবাংলার প্ল্যাটফর্মে বসে। যেগুলোর বাস্তবায়ন শুরু করবো ৭ বছরে পা রেখেই। এর জন্য সবার ভালোবাসা ও সহযোগিতা প্রত্যাশা করছি। সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, যারা গেল ৬ বছর আমাদের সঙ্গে ছিলেন।’’

গানবাংলা’র দুই প্রাণ কৌশিক হোসেন তাপস ও ফারজানা মুন্নি দম্পতিএদিকে বাংলা গানকে বিশ্বদরবারে পৌঁছে দেওয়ার স্বীকৃতিস্বরূপ গানবাংলা টেলিভিশনের চেয়ারপারসন ফারজানা মুন্নি ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপস অর্জন করেন ‘মাদার তেরেসা আন্তর্জাতিক পুরস্কার-২০১৮’। এছাড়াও প্রকল্পটির জন্য সেরা সংগীত পরিচালক হিসেবে ভারতের ‘দাদাসাহেব ফালকে এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৮’ ও ‘আজ তাক অ্যাচিভার অ্যাওয়ার্ডস’ অর্জন করেন কৌশিক হোসেন তাপস।  
দেশীয় সংস্কৃতির অগ্রযাত্রা আরও বেগবান করতে সহযোগী প্রতিষ্ঠান টিএম ফিল্মসের মাধ্যমে চলচ্চিত্র প্রযোজনার ঘোষণা দিয়েছেন তাপস-মুন্নি। পাশাপাশি গান প্রকাশের জন্য গড়েছেন টিএম রেকর্ডস।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১৫ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে চ্যানেলটি। প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণে রাত ১২টা ১ মিনিটে কেক কেটে মহান বিজয় দিবস ও গানবাংলার জন্মদিন উদযাপন করা হবে। রাতভর কনসার্টে নিজেদের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপনের পাশাপাশি মহান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদ ও ২ লাখ বীরাঙ্গনার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হবে।

‘উইন্ড অব চেঞ্জ’-এ জেমসের একটি পরিবেশনা:

/এমএম/এমওএফ/

লাইভ

টপ