যে ৫ কারণে ‘বিগ বস ১৩’র শিরোপা জিতলেন সিদ্ধার্থ শুক্লা

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ২১:১৪, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:১৮, ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

‘বিগ বস ১৩’র শিরোপা হাতে সিদ্ধার্থ শুক্লাভারতের কালারস টিভির রিয়েলিটি শো ‘বিগ বস ১৩’ শুরুর পর থেকেই ছোট পর্দার অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্লাকে ফাইনালিস্ট হিসেবে ভাবা হচ্ছিল। তিনিই শেষ পর্যন্ত শিরোপা জিতলেন। পুরস্কার হিসেবে তার হাতে এসেছে নগদ ৪০ লাখ রুপি। শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে তাকে বিজয়ী ঘোষণা করেন সঞ্চালক সালমান খান। 

কয়েক মাস ধরে ‘বিগ বস’ ঘরে বদ্ধ থাকাটা বৃথা যায়নি সিদ্ধার্থ শুক্লার। ‘বালিকা বধূ’ ও ‘দিল সে দিল তক’ সিরিয়ালের এই অভিনেতা ফাইনালে অসীম রিয়াজকে হটিয়ে চ্যাম্পিয়ন তকমা পেয়েছেন।

এবারের আসরের প্রথম পর্বেই সুদর্শন হিসেবে সবার নজর কাড়েন সিদ্ধার্থ শুক্লা। ‘বিগ বস’ ঘরের বিভিন্ন দায়িত্বে সঙ্গী হিসেবে বেশিরভাগ মেয়ে প্রতিযোগী তাকেই নির্বাচন করেন। যে পাঁচটি কারণে শেষ পর্যন্ত তার নামের পাশে সেরার স্বীকৃতি লেখা হলো চলুন দেখি।

১. শেহনাজের সঙ্গে প্রেম
পাঞ্জাবি অভিনেত্রী শেহনাজ গিলের সঙ্গে সিদ্ধার্থ শুক্লার প্রেম দর্শকদের বেশ আনন্দ দিয়েছে। তাদের নামে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কয়েকটি ক্লাব আছে। ‘সিদনাজ’ হ্যাশট্যাগ ভারতে টুইটারে ট্রেন্ডিং হয়েছে। প্রায় প্রতি রাতে তাদের ঘিরে লাখ লাখ টুইট হতো। এতেই প্রমাণিত হয়, সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের রসায়ন কতটা উপভোগ করেছে দর্শকরা। মতপার্থক্যের পরও তারা ঠিকই সম্পর্ক ধরে রেখেছেন।

২. কাজের প্রতি আগ্রহ
প্রতি বছর কয়েকজন প্রতিযোগী অলসভাবে সময় কাটান ‘বিগ বস’ ঘরে। অন্যদের যেখানে একগাদা কাজ সামলাতে হিমশিম খেতে হয়, অলস তারকারা তখন নিজের মতো পড়ে থাকেন। কিন্তু সিদ্ধার্থ তাদের মতো নন, তিনি বরাবরই বিপুল উদ্দীপনায় সব কাজে অংশগ্রহণ করেছেন। কারণ শিরোপা জেতাই ছিল তার লক্ষ্য।

সালমান খানের সঙ্গে ‘বিগ বস ১৩’র শিরোপা হাতে সিদ্ধার্থ শুক্লা১৩. সালমান খানের সুদৃষ্টি
এবারের আসরে অনেকবার সঞ্চালক সালমান খানের বিরুদ্ধে সিদ্ধার্থ শুক্লার প্রতি পক্ষপাতিত্ব করার অভিযোগ ওঠে। রেশামি দেসাইয়ের সঙ্গে ঝগড়া থেকে শুরু করে হোক তা সাধারণ কাজ, সবক্ষেত্রেই সিদ্ধার্থের পক্ষ নিয়েছেন সল্লু। তার ভুলগুলো বারবার এড়িয়ে গেছেন ৫৩ বছর বয়সী এই অভিনেতা। ফলে আর কিছু না হোক, সালমানের ভক্তরা সিদ্ধার্থের পক্ষে ছিলেন।

৪. সবসময় খবরের শিরোনামে
এমন কোনও সপ্তাহ যায়নি যখন নিজেকে খবরের শিরোনামে আনতে পারেননি সিদ্ধার্থ। রেশামি, অসীম রিয়াজ ও পরশ ছাবরার সঙ্গে ঝগড়াসহ বিভিন্ন কারণে সবচেয়ে আলোচিত প্রতিযোগীদের অন্যতম ছিলেন তিনিই। এর সুবাদে ফাইনাল পর্যন্ত এসে বিজয় মুকুটও বাগিয়ে নিয়েছেন।

সিদ্ধার্থ শুক্লাকে বিজয়ী ঘোষণার মুহূর্তে সালমান খান, (বাঁয়ে) অসীম রিয়াজ৫. প্রয়োজনের সময় বন্ধু হয়ে ওঠা
যখনই পরশ ছাবরা, অসীম রিয়াজ কিংবা আরতি সিংয়ের প্রয়োজন হয়েছে, বন্ধুর মতো পাশে দাঁড়িয়েছেন সিদ্ধার্থ। বেশ কয়েকজন প্রতিযোগীকে বাদ পড়া থেকে বাঁচিয়েছেন তিনি। শেহনাজের জন্য ধারাবাহিক সমর্থনের অফুরান উৎস ছিলেন ‘বিগ বস ১৩’ বিজয়ী।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

/জেএইচ/এমএম/

লাইভ

টপ