২৫ হাজার চলচ্চিত্র শ্রমিকের অ্যাকাউন্টে সালমানের টাকা

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৯:৪৯, মার্চ ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৭, মার্চ ৩০, ২০২০

সালমান খানবলিউডে দৈনিক আয়ের ভিত্তিতে কাজ করা ২৫ হাজার চলচ্চিত্র শ্রমিকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাচ্ছেন সুপারস্টার সালমান খান।
করোনাভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাবে রোজগার করতে পারছেন না তারা। কারণ লকডাউনে এখন সব শুটিং বন্ধ।

সল্লুর দাতব্য প্রতিষ্ঠান বিয়িং হিউম্যান ফাউন্ডেশন সবসময়ই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ায়। এবারও ব্যতিক্রম হয়নি। ফাউন্ডেশনটির মাধ্যমে চলচ্চিত্র-শ্রমিকদের সহায়তা করতে এগিয়ে এসেছেন ৫৪ বছর বয়সী এই তারকা।

ভারতের প্রায় পাঁচ লাখ চলচ্চিত্র শ্রমিকের সংগঠন এফডব্লিউআইসিই। তাদের মধ্যে ২৫ হাজার কর্মী মানবেতর জীবনযাপন করছেন। তাই তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নম্বর চেয়েছেন সালমান। প্রত্যেকের অ্যাকাউন্টে সরাসরি টাকা জমা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। এসব তথ্য জানিয়েছেন সংগঠনটির সভাপতি বি এন তিওয়ারি।

বলিউডের একজন চলচ্চিত্র শ্রমিক মাসে ১৫ হাজার টাকা রোজগার করেন। কিন্তু এখন সেই পথ বন্ধ। তাই এফডব্লিউআইসিই বেশ কয়েকজন অভিনেতা ও নির্মাতাকে চিঠি দিয়ে ও মেসেজ পাঠিয়ে সহযোগিতা চেয়েছে। তাদের মধ্যে সালমানই প্রথম সাড়া দিলেন। সংগঠনটির দাবি, গত দুই বছরে চিকিৎসাসহ যেকোনও প্রয়োজনের সময় সব মিলিয়ে দেড় কোটি রুপি দিয়েছেন তিনি।

এফডব্লিউআইসিই’র বাকি ৪ লাখ ৭৫ হাজার চলচ্চিত্রকর্মীর জন্য রেশন প্যাকেট রয়েছে বলে জানান সংগঠনের সভাপতি। কিন্তু লকডাউনের কারণে কেউেই তা সংগ্রহ করতে পারছেন না।

এদিকে সালমানের গ্যালাক্সি অ্যাপার্টমেন্টের বাসিন্দারা কেউ খাবার সংকটে আছেন কিনা সেই খোঁজখবর নিচ্ছেন তার বাবা সেলিম খান। নিরাপত্তাকর্মীদের খাবার সরবরাহ করছে খান পরিবার। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করতেই সব কর্মচারীকে অগ্রিম বেতন দিয়েছেন তারা।

এদিকে লকডাউন ঘোষণার পরপরই সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে পরিবার নিয়ে মহারাষ্ট্রের রায়গড় জেলার পানভেলে নিজের বাগানবাড়িতে চলে গেছেন সালমান। আজ (৩০ মার্চ) ভাগ্নে আহিলের চতুর্থ জন্মদিন উদযাপন করেন তিনি। আয়ুশ শর্মা ও অর্পিতা খানের এই ছেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ জনপ্রিয়।

তথ্যসূত্র: পিটিআই

/জেএইচ/এম/

লাইভ

টপ