রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের বাড়ি কিনে নিচ্ছে পাকিস্তান সরকার

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:০৯, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:০৯, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

রোজ কাপুর ও দিলীপ কুমারকিংবদন্তি ভারতীয় অভিনেতা রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের পৈতৃক ভিটা কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রশাসন।
পেশোয়ারে দুই তারকার দুটি বাড়িই বর্তমানে ভগ্নপ্রায় অবস্থায় আছে। এগুলো দেখভালেরও কোনও উত্তরসূরি নেই সেখানে। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাড়ি দুটি কিনে সেটা রাষ্ট্রীয় সংরক্ষণে নেবে বলে জানা গেছে।
ইতোমধ্যেই ঐতিহাসিক বাড়ি দুটিকে রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি বলে ঘোষণাও করেছে পাকিস্তান সরকার।
এদিকে দেশটির এমন সিদ্ধান্তে পাকিস্তান সরকারের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন দিলীপ কুমার পত্নি সায়রা বানু। সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সংবাদমাধ্যমের সুবাদে বিষয়টি নজরে আসে তার। এই সংবেদনশীল পদক্ষেপের সমর্থন জানান তিনি। সায়রা বানু ইকনমিক টাইমসকে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমি প্রাদেশিক সরকারের এমন উদ্যোগকে শুভেচ্ছা জানাই। অত্যন্ত আনন্দিত যে, আমার স্বপ্ন এতদিনে সত্যি হতে চলেছে। মাশাল্লাহ।’
খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের অন্তর্গত কিসা খওয়ানি বাজার এলাকায় অবস্থিত রাজ কাপুর ও দিলীপ কুমারের পৈতৃক ভিটা। দীর্ঘদিন অযত্নে থাকায় এগুলোর অবস্থা এখন ভালো নয়।
সেখানকার প্রাদেশিক সরকার তা ভেঙে না দিয়ে সম্প্রতি এখানকার ঐতিহাসিক ও গুরুত্বপূর্ণ ভবনগুলো কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তারই আওতায় উপমহাদেশের খ্যাতিমান এই দুই অভিনেতার বাড়ি কিনে নিচ্ছে পাকিস্তান সরকার।
সায়রা জানান, কয়েক বছর আগে তিনি ও দিলীপ কুমার সেই বাড়িতে গিয়েছিলেন এবং শৈশবের স্মৃতি স্মরণ করে নস্টালজিয়ায় ভেসে অত্যন্ত আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন।
কাপুর হাভেলিঅন্যদিকে অবিভক্ত ভারতে ১৯১৮ থেকে ১৯২২ সালের মধ্যে খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে দেওয়ান বাসেস্বরনাথ কাপুর ‘কাপুর হাভেলি’ নামের বাড়ি তৈরি করেন। সম্পর্কে তিনি ছিলেন রাজ কাপুরের দাদা। রাজ ও তার কাকা ত্রিলোক কাপুর এই বাড়িতেই জন্মগ্রহণ করেছিলেন। পরবর্তীকালে এই বাড়িকেই ন্যাশনাল হেরিটেজ ঘোষণা করে দেয় সেখানকার প্রাদেশিক সরকার।
সূত্র: এনডিটিভি

/এম/এমএম/

লাইভ

টপ
X