কানের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের স্বর্ণ পাম জিতলো মিসর

Send
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশিত : ০০:০০, অক্টোবর ৩১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:১২, অক্টোবর ৩১, ২০২০

স্বর্ণ পাম হাতে মিসরের নির্মাতা সামাহ আলাপ্রতিবছরের মতো এবার মে মাসে কান চলচ্চিত্র উৎসবের জৌলুস ছড়াতে দেয়নি করোনাভাইরাস। তবে লকডাউন শিথিলের পর ‘কান টোয়েন্টি টোয়েন্টি স্পেশাল’ শীর্ষক তিন দিনের বিশেষ আয়োজনে সাগরপাড়ে উৎসবের ঘ্রাণ মিললো। এর সমাপনী দিনে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পাম দ’র পেলো মিসরের সামাহ আলা পরিচালিত “আই’ম অ্যাফ্রেইড টু ফরগেট ইউর ফেস”।

ফ্রান্সের কান শহরে পালে দে ফেস্তিভাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) রাতে তরুণ নির্মাতা সামাহ আলার হাতে স্বর্ণ পাম তুলে দেন বিচারকরা। এবারই প্রথম কান উৎসবের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগের সর্বোচ্চ স্বীকৃতি গেলো মিসরে।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ৭৩তম আসর শুধু অফিসিয়াল সিলেকশন ঘোষণার মধ্যেই সীমিত রাখা হয়। এর মধ্যে স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে জায়গা পেয়েছে ১১টি ছবি। সেগুলোর মধ্যে সব বিচারকের রায়ে সেরা হলো ১৫ মিনিট ব্যাপ্তির “আই’ম অ্যাফ্রেইড টু ফরগেট ইউর ফেস”।

দৃশ্য: “আই’ম অ্যাফ্রেইড টু ফরগেট ইউর ফেস”এবার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও সিনেফঁদাসো বিভাগে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন ফরাসি অভিনেতা দেমিয়া বোনার্দ, অভিনেত্রী সেলিন সেলেট ও ক্লেয়ার বার্গার, প্রযোজক শার্ল জিলিবার্ত, আলজেরিয়ান-ফরাসি নির্মাতা রশিদ বুশারেব এবং জর্জিয়ান নির্মাতা দেয়া কুলুমবেগাশভিলি।

‘কান টোয়েন্টি টোয়েন্টি স্পেশাল’ অনুষ্ঠানের সমাপনী আয়োজনের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। কানের কাছের শহর নিসের নটরডেম গির্জায় হামলার ঘটনায় লালগালিচার পরিবর্তে বসানো হয় কালো কার্পেট। ক্ষতিগ্রস্তদের প্রতি সহানুভূতির পাশাপাশি সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ জানান আয়োজকরা।

গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে কানের বিশেষ আয়োজনের সমাপনীতে দর্শকরাস্বর্ণ পাম বিতরণের পর দেখানো হয় অফিসিয়াল সিলেকশনে জায়গা করে নেওয়া ফ্রান্সের ব্রুনো পোদালিদেস পরিচালিত ‘দ্য ফ্রেঞ্চ টেক’। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে লুমিয়ের প্রেক্ষাগৃহে বসা দর্শকরা ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন।
বৃহস্পতিবার বিকালে কানের শিক্ষার্থী নির্মাতাদের বিভাগ সিনেফঁদাসোতে সেরা হয়েছে ভারতীয় তরুণী আশমিতা গুহ নিওগি পরিচালিত ‘ক্যাট ডগ’। তিনি পুনের ফিল্ম অ্যান্ড টেলিভিশন ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়ার ছাত্রী। ফলে তার প্রথম ছবি আগামীতে কান উৎসবে স্থান করে নেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায়। একইসঙ্গে পুরস্কার হিসেবে তিনি পেয়েছেন ১৫ হাজার ইউরো।
সিনেফঁদাসো বিভাগের বিজয়ীদের দুই পাশে বিচারকরাকানের মেয়র ডেভিড লিসনার্ড ও উৎসব কর্তৃপক্ষের আয়োজনে গত ২৭ অক্টোবর শুরু হয় ‘কান টোয়েন্টি টোয়েন্টি স্পেশাল’। উদ্বোধনী দিনে ছিল ফরাসি নির্মাতা ইমানুয়েল কুরকল পরিচালিত ‘দ্য বিগ হিট’।

অফিসিয়াল সিলেকশনে স্থান পাওয়া জাপানের নাওমি কাওয়াসে পরিচালিত ‘ট্রু মাদারস’ এবং জর্জিয়ার দেয়া কুলুমবেগাশভিলির ‘বিগিনিং’ ছবি দুটিও সাধারণ দর্শকরা টিকিট কেটে দেখেছেন।
কান উৎসবের জেনারেল ডেলিগেট থিয়েরি ফ্রেমো জানিয়েছেন, ২০২১ সালের ১১ মে থেকে ২২ মে পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে তাদের ৭৪তম আসর। 
পালে দে ফেস্তিভাল ভবনে ‘কান টোয়েন্টি টোয়েন্টি স্পেশাল’ পোস্টারআরও পড়ুন-
কানের সিনেফঁদাসোতে সেরা ভারতীয় তরুণীর ছবি
কানের সাগরপাড়ে ফিরছে উৎসবের আমেজ

/জেএইচ/এমএম/

লাইভ

টপ