X
রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২
১৯ আষাঢ় ১৪২৯

শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির মামলায় পশ্চিমবঙ্গের শিল্পমন্ত্রীকে ৩ ঘণ্টা জেরা 

আপডেট : ১৯ মে ২০২২, ০৩:১৭

শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত দুর্নীতি মামলায় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে টানা সাড়ে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। বুধবার (১৮ মে) উচ্চ আদালতের নির্দেশ মেনে বিকাল পৌনে ৬টার দিকে ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই-এর কলকাতা দফতরে হাজিরা দেন পার্থ। টানা সাড়ে তিন ঘণ্টা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন সিবিআই কর্মকর্তারা। সাড়ে ৯টার দিকে সিবিআই দফতর থেকে বের হন তিনি। যদিও জেরা শেষে বেরোনোর পর সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী।

সিবিআই সূত্রের খবর, এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দুই দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এসএসসির সাবেক উপদেষ্টা কমিটির সদস্যদের বয়ানের সঙ্গে তার বয়ান মিলিয়ে দেখা হবে বলেও সূত্রের দাবি।

গ্রুপ ডি মামলায় হাইকোর্টে বুধবার (১৮ মে) সকাল থেকে একাধিক বার ধাক্কা খেতে হয়েছে রাজ্যের সাবেক শিক্ষামন্ত্রীকে। এদিনই এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি মামলা সিঙ্গেল বেঞ্চে ফিরিয়ে দেয় বিচারপতি সুব্রত তালুকদার ও বিচারপতি আনন্দ মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ। তারপরই সাবেক এই শিক্ষামন্ত্রীকে বুধবার সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে সিবিআই দফতরে হাজিরার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। নির্দেশনায় তিনি সাফ জানিয়ে দেন, সহযোগিতা না করলে পার্থকে হেফাজতে নিতে পারবে সিবিআই। এমনকি মুক্ত ও স্বচ্ছ সমাজ গড়ার স্বার্থে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের পদত্যাগ করা উচিত বা তাকে সরিয়ে দেওয়া উচিত বলেও মন্তব্য করে আদালত।

এসএসসির গ্রুপ সি নিয়োগে দুর্নীতি সংক্রান্ত সন্দীপ প্রসাদের করা মামলাতেও পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সিবিআইয়ের মুখোমুখি হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। নতুন করে এফআইআর করার নির্দেশও দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। সিঙ্গল বেঞ্চের সেই রায়ের বিরুদ্ধে ফের ডিভিশন বেঞ্চে মামলা দায়ের করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু ডিভিশন বেঞ্চও তাকে কোনোরকম রক্ষাকবচ দেয়নি। মামলার পদ্ধতিগত ত্রুটির জন্য সেটি খারিজ করে দেয় আদালত। যার অর্থ হাইকোর্টেও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী রক্ষাকবচ পাননি।

একপ্রকার বাধ্য হয়েই এদিন সিবিআই দফতরে হাজিরা দেওয়ার উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন পার্থ। কোনোরকম আইনি রক্ষাকবচ ছাড়াই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার মুখোমুখি হন তিনি। যদিও এরই মধ্যে আবার প্রধান বিচারপতির কাছে ফের রক্ষাকবচ চেয়ে আবেদন করেছেন পার্থ। ইমেইলের মাধ্যমে প্রধান বিচারপতির কাছে নিজের আবেদনের দ্রুত শুনানির আরজিও জানান তিনি। তবে আদালতের দ্বারস্থ হলেও নিম্ন আদালতের নিয়ম মেনে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার মুখোমুখি হলেন তিনি। 

এদিকে, রাজ্যের শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে মঙ্গলবার সিবিআই দফতরে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টের সিঙ্গেল বেঞ্চ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, প্রভাব খাটিয়ে দুর্নীতির আশ্রয় নিয়ে মেয়ে অঙ্কিত অধিকারীর নাম তিনি এসএসসি-র মেধা তালিকার এক নম্বরে ঢুকিয়ে দিয়েছিলেন। সেই নির্দেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হলেন মেখলিগঞ্জের বিধায়ক তথা রাজ্যের শিক্ষা রাষ্ট্রমন্ত্রী। সিবিআই হাজিরার এড়াতে বিচারপতি হরিশ টন্ডনের ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করেছেন তিনি। তবে বিচারপতি হরিশ টন্ডন জানিয়ে দেন তিনি পরেশ অধিকারীর মামলা শুনবেন না। এই মামলা থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন তিনি। 

সেই সঙ্গে কোন বিচারপতির বেঞ্চে এই মামলার শুনানি হবে, তা প্রধান বিচারপতি ঠিক করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

রাজ্যের শিক্ষা দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী পরেশচন্দ্র অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতাকে বেআইনিভাবে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণিতে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। কলকাতা হাইকোর্টে এমনটাই দাবি করেন এক মামলাকারী। মেধাতালিকায় নাম না থাকা সত্ত্বেও কোচবিহারের ইন্দিরা গার্লস হাইস্কুল (উচ্চমাধ্যমিক) স্কুলে চাকরি পাওয়ার অভিযোগ উঠেছে অঙ্কিতার বিরুদ্ধে।

আলোচিত এই ঘটনার সূত্রপাত স্কুল সার্ভিস কমিশনের রাষ্ট্র বিজ্ঞানের নিয়োগ তালিকা প্রকাশকে কেন্দ্র করে। রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পি জি ক্যাটাগরির তফসিলি জাতিভুক্ত যে প্রতীক্ষা তালিকা প্রথমে প্রকাশিত হয়, তাতে প্রথম নামটি ছিল ববিতা বর্মণের। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে ছিলেন যথাক্রমে লোপামুদ্রা মণ্ডল ও ছায়া রায়। কিন্তু ওই তালিকা প্রকাশের পর আরও একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। তাতে দু’নম্বরে চলে আসেন ববিতা বর্মণ। এক নম্বরে নাম দেখা যায় পরেশচন্দ্র অধিকারীর মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীর নাম। যা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে আলোচনার ঝড় ওঠে।

বিরোধী দলগুলো অভিযোগ করে, ফরওয়ার্ড ব্লক ছেড়ে তৃণমূলে যোগদানের পুরস্কার হিসেবে চ্যাংরাবান্ধা উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ দেওয়ার পাশাপাশি পরেশের মেয়েকে চাকরি পাইয়ে দিতেই এই কাজ করা হয়েছে।

নিয়োগে এই দুর্নীতির মামলার হাইকোর্টে শুনানি হয় মঙ্গলবার। বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে। মামলার শুনানির সময় এসএসসি-র চেয়্যারম্যান ভার্চুয়ালি শুনানিতে অংশ নেন। শুনানি শেষে প্রতিমন্ত্রী পরেশকে সিবিআইয়ের কাছে হাজিরার নির্দেশ দেন বিচারপতি। 

/ইউএস/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
পারিবারিক আদালত আইনের খসড়া অনুমোদন
পারিবারিক আদালত আইনের খসড়া অনুমোদন
ঢাকায় আরও চারটি বড় বাজার করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর 
ঢাকায় আরও চারটি বড় বাজার করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর 
এনামুলের ব্যাটে আশার আলো দেখছেন ডমিঙ্গো
এনামুলের ব্যাটে আশার আলো দেখছেন ডমিঙ্গো
কর্মকর্তাদের ভিসা ছাড়াই ব্রাজিল যাওয়ার চুক্তির খসড়া অনুমোদন
কর্মকর্তাদের ভিসা ছাড়াই ব্রাজিল যাওয়ার চুক্তির খসড়া অনুমোদন
এ বিভাগের সর্বশেষ
এবার নুপুর শর্মার বিরুদ্ধে ‘লুক আউট’ নোটিশ জারি
এবার নুপুর শর্মার বিরুদ্ধে ‘লুক আউট’ নোটিশ জারি
রাষ্ট্রপতি হিসেবে বিজেপি প্রার্থী দ্রৌপদী এগিয়ে, বলছেন মমতা
রাষ্ট্রপতি হিসেবে বিজেপি প্রার্থী দ্রৌপদী এগিয়ে, বলছেন মমতা
ভারতীয় রুপির রেকর্ড পতন
ভারতীয় রুপির রেকর্ড পতন
বানর শিকার করতে গিয়ে ভাইরাল চিতাবাঘ
বানর শিকার করতে গিয়ে ভাইরাল চিতাবাঘ
পুতিনকে সংলাপের পথ অনুসরণের আহ্বান মোদির
পুতিনকে সংলাপের পথ অনুসরণের আহ্বান মোদির