X
শুক্রবার, ২৬ জুলাই ২০২৪
১০ শ্রাবণ ১৪৩১

লোকসভা থেকে বরখাস্ত তৃণমূল এমপি মহুয়া মৈত্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:১৮আপডেট : ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:৫৬

ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে ভারতীয় পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ লোকসভা থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের এমপি মহুয়া মৈত্রকে বরখাস্ত করা হয়েছে। অভিযোগ তদন্তের পর শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) এথিক্স কমিটির সুপারিশ লোকসভায় পেশ করলে ভোটাভুটি শেষে তাকে বরখাস্তের ঘোষণা দেন স্পিকার ওম বিড়লা। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকা এ খবর জানিয়েছে।

বরখাস্তের প্রতিক্রিয়ায় লোকসভা থেকে বেরিয়ে মহুয়া বলেন, লোকসভার এথিক্স কমিটিতে ‘এথিক্স’ বলে কিছু অবশিষ্ট নেই। তারা সব নিয়ম ভেঙে ফেলেছে। এমন এক কারণে আমাকে বহিষ্কার করা হলো, যা লোকসভার সব সদস্যের মধ্যে প্রচলিত একটি অভ্যাস। আমি কারও কাছ থেকে অর্থ নিয়েছি বা কোনও উপহার নিয়েছি, তার কোনও প্রমাণ নেই।

তিনি আরও বলেন, মোদি সরকার যদি ভেবে থাকে, আমাকে এভাবে চুপ করিয়ে আদানি ইস্যু থেকে তারা মুক্তি পাবে, তবে ভুল ভাবছে।

মহুয়ার বিরুদ্ধে ঘুষের বিনিময়ে প্রশ্ন তোলার যে অভিযোগ ছিল তা তদন্ত  করে অনেক আগেই এথিক্স কমিটি তাদের সুপারিশ জানিয়ে দিয়েছিল। সেই সুপারিশে মহুয়ার সংসদ সদস্য পদ খারিজের কথা বলা হয়েছিল। শুক্রবার এথিক্স কমিটির ৪৯৫ পৃষ্ঠার সেই সুপারিশ লোকসভায় পেশ করা হয়। ওই রিপোর্ট পড়ে দেখার জন্য সময় চেয়েছিল তৃণমূল। কংগ্রেস এবং অন্যান্য বিরোধী দলের তরফেও স্পিকারের কাছে সময়ের অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু স্পিকার সময় দেননি। সুপারিশের ওপর অল্প সময় বিতর্ক হয়। এরপর সংসদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশীর আনা প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি শেষে লোকসভা থেকে মহুয়াকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত জানান স্পিকার।

লোকসভায় তৃণমূল, কংগ্রেস এবং অন্যান্য বিরোধী দলের পক্ষ থেকে মহুয়াকে নিজের বক্তব্য জানানো এবং আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছিল। সেই অনুরোধও রাখেননি স্পিকার। অতীতের উদাহরণ তুলে ধরে স্পিকার জানান, আগেও এই ধরনের ঘটনায় অভিযুক্ত সদস্য কিছু বলার সুযোগ পাননি। বিজেপির যুক্তি ছিল, মহুয়া আগে নিজের কথা বলার সুযোগ পেয়েছিলেন। কিন্তু ওই সময় তিনি সভাকক্ষ থেকে ওয়াক আউট করে বেরিয়ে যান।

মহুয়ার পাশে দাঁড়িয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, মহুয়াকে আত্মপক্ষ সমর্থন করার সুযোগ দেওয়া হয়নি। একজন নারীকে বিজেপি রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য যেভাবে হেনস্থা করলো, তাতে গণতন্ত্রকে হত্যা করা হলো। দল মহুয়ার পাশে ছিল ও আছে। বিজেপির প্রতিহিংসার রাজনীতি প্রমাণিত হলো।

/এএ/এমওএফ/
সম্পর্কিত
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
ভাগ্যবদল: ঋণগ্রস্ত শ্রমিক পেলেন কোটি টাকা মূল্যের হীরা
প্রবল বৃষ্টিতে মুম্বাইয়ে জলাবদ্ধতা, বিপর্যস্ত জনজীবন
সর্বশেষ খবর
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
অলিম্পিকে ৪০ বছরে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স যেমন ছিল
জুমার নামাজকে ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
জুমার নামাজকে ঘিরে বাড়তি সতর্কতা
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
এক দফা আন্দোলন সফলের আহ্বান ছাত্রদলের
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে জাবি শিক্ষকের পদত্যাগ
সর্বাধিক পঠিত
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
নাটকীয় হারে আর্জেন্টিনার অলিম্পিক যাত্রা শুরু
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
মারা গেলেন ব্যান্ড তারকা শাফিন আহমেদ
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
যা ঘটেছিল নরসিংদী কারাগারে, যেভাবে পালালেন ৮২৬ বন্দি
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
বাংলাদেশে সাম্প্রতিক অস্থিরতা প্রসঙ্গে যা বলছে ভারত
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা
এখনও আঁতকে ওঠেন যাত্রাবাড়ী, কাজলা ও শনির আখড়ার বাসিন্দারা