X
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
১০ বৈশাখ ১৪৩১

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইসরায়েলের ভিন্নমত নিয়ে যা বললেন নেতানিয়াহু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
১২ ডিসেম্বর ২০২৩, ২১:২৮আপডেট : ১২ ডিসেম্বর ২০২৩, ২১:২৮

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, হামাসকে নির্মূল এবং ফিলিস্তিনি যোদ্ধাদের হাতে জিম্মিদের উদ্ধারে যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন ইসরায়েলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু গাজায় যুদ্ধের পরে কী হওয়া উচিত, তা নিয়ে দুই মিত্র দেশের অবস্থানে ভিন্নতা রয়েছে। মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) তিনি এই মন্তব্য করেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ইঙ্গিত করে নেতানিয়াহু বলেছেন, ইসরায়েলকে ওসলো ভুলের পুনরাবৃত্তি করতে দেবেন না তিনি।

১৯৯০ দশকের এই ওসলো চুক্তি ইসরায়েলে একটি ব্যর্থতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

সোমবার রাতে বাইডেন বলেছিলেন, হামাসের বিরুদ্ধে ইসরায়েলকে তিনি সমর্থন করলেও নেতানিয়াহুর সঙ্গে তার ভিন্নমত রয়েছে। এরপর মঙ্গলবার ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীও স্বীকার করলেন যে, যুদ্ধের পরে গাজা পরিচালনা নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে তার ভিন্নমত রয়েছে।

হিব্রু ভাষায় দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় নেতানিয়াহু বলেছেন, প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও তার প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সংলাপের পর স্থল অভিযান পরিচালনা ও যুদ্ধ বন্ধে আন্তর্জাতিক চাপ কমানোর জন্য তাদের সর্বাত্মক সমর্থন আমরা পেয়েছি।

তিনি বলেন, হ্যাঁ, হামাস নির্মূল হওয়ার পর কী হবে, তা নিয়ে ভিন্নমত রয়েছে। আমি আশা করি এক্ষেত্রেও আমরা একটি সমঝোতায় আসতে পারব। আমি আমার অবস্থান স্পষ্ট করতে চাই। ওসলো ভুলের পুনরাবৃত্তি ইসরায়েলকে আমি করতে দেব না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের নাগরিক ও সেনাদের এত বড় আত্মত্যাগের পর তা হতে পারে না। গাজায় সন্ত্রাসবাদকে সমর্থন করবে, সন্ত্রাসবাদকে অর্থায়ন করবে, এমন সুযোগ আমরা দিতে পারি না। গাজা হামাসের হবে না, ফাতাহেরও হবে না।

ওসলো চুক্তিকে ৭ অক্টোবরের হামাসের হামলার সঙ্গে তুলনা করে ইসরায়েলে সমালোচনার মুখে পড়েছেন নেতানিয়াহু।

/এএ/
সম্পর্কিত
ঘুষ মামলায় আদালতের আদেশ লঙ্ঘন, ট্রাম্পের শাস্তি চান প্রসিকিউটররা
ইসরায়েলের আকরে শহরে হামলার দাবি করলো হিজবুল্লাহ
ইউক্রেনকে ৬২ কোটি ডলারের অস্ত্র সহায়তা দেবে যুক্তরাজ্য
সর্বশেষ খবর
ঢাকা ছেড়েছেন কাতারের আমির
ঢাকা ছেড়েছেন কাতারের আমির
জাহাজেই দেশে ফিরবেন এমভি আবদুল্লাহর ২৩ নাবিক
জাহাজেই দেশে ফিরবেন এমভি আবদুল্লাহর ২৩ নাবিক
তাপপ্রবাহের গেটওয়ে যশোর-চুয়াডাঙ্গা, টানা ৪ দিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা
তাপপ্রবাহের গেটওয়ে যশোর-চুয়াডাঙ্গা, টানা ৪ দিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা
আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের গল্প বাংলাদেশের পর্দায়
আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জয়ের গল্প বাংলাদেশের পর্দায়
সর্বাধিক পঠিত
মিশা-ডিপজলদের শপথ শেষে রচিত হলো ‘কলঙ্কিত’ অধ্যায়!
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিমিশা-ডিপজলদের শপথ শেষে রচিত হলো ‘কলঙ্কিত’ অধ্যায়!
আজকের আবহাওয়া: তাপমাত্রা আরও বাড়ার আভাস
আজকের আবহাওয়া: তাপমাত্রা আরও বাড়ার আভাস
ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে যা জানালেন কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান
ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে যা জানালেন কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান
সকাল থেকে চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন না ডাক্তাররা, রোগীদের দুর্ভোগ
সকাল থেকে চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন না ডাক্তাররা, রোগীদের দুর্ভোগ
৭ দফা আবেদন করেও প্রশাসনের সহায়তা পায়নি মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট
৭ দফা আবেদন করেও প্রশাসনের সহায়তা পায়নি মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ট্রাস্ট