কাশ্মিরে উত্তেজনার মধ্যে মোদির বাসভবনে বসছেন ভারতের মন্ত্রীরা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:৩৬, আগস্ট ০৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:২৩, আগস্ট ০৫, ২০১৯

ভারত শাসিত কাশ্মিরে উত্তেজনা বাড়ার মধ্যে বৈঠকে বসছে দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারি বাসভবনে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে নয়টায় ওই বৈঠক শুরুর কথা রয়েছে। দেশটির সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, একই দিনে নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটিরও বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এই কমিটির সদস্যদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও আছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের মতো গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরা। দেশটির আরেক সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, সাধারণত বুধবার ভারতের মন্ত্রিসভার বৈঠক বসলেও এবারে সোমবারেই কেন তা ডাকা হয়েছে সে বিষয়ে সরকারের তরফ থেকে কিছু জানানো হয়নি। সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, এই বৈঠক থেকে কাশ্মির ইস্যুতে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

ভারত শাসিত কাশ্মিরের বাসিন্দাদের বিশেষ সাংবিধানিক অধিকার বাতিলের আশঙ্কার মধ্যে রাজ্যটির বহু স্থানে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে মোবাইল ইন্টারনেট, নিষিদ্ধ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ। রবিবার রাত থেকে সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি ও ওমর আবদুল্লাহকে গৃহবন্দি করে রেখেছে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও নিজ বাড়িতে নজরদারির মধ্যে রয়েছেন সেখানকার আরেক গুরুত্বপূর্ণ রাজনীতিবিদ ও পিপলস কনফারেন্স পার্টির চেয়ারম্যান সাজাদ লোন। সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কার কথা উল্লেখ করে সেখানকার গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান ও স্পর্শকাতর এলাকায় কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। রবিবার মধ্যরাত থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে শ্রীনগর জেলায়। 

এমন প্রেক্ষাপটে স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে নয়টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন দিল্লির ৭ লোক কল্যাণ মার্গে অনুষ্ঠিত হবে ভারতের মন্ত্রিসভার বৈঠক। এনডিটিভি জানিয়েছে, সোমবারের মন্ত্রিসভার বৈঠকে আলোচ্য সূচিতে রয়েছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারক সংখ্যা বাড়াতে আনা একটি সংশোধনী বিল। পার্লামেন্টে বিল উত্থাপনের আগে সোমবারের মন্ত্রিসভার বৈঠকে ওই বিল নিয়ে আলোচনার কথা রয়েছে। মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটি ও পার্লামেন্ট বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, কাশ্মিরে সৃষ্ট উত্তেজনার মধ্যে সোমবার ডাকা মন্ত্রিসভার বৈঠক থেকে এই ইস্যুতে কয়েকটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, মন্ত্রিসভার বৈঠক শুরুর আগে সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে আইনমন্ত্রী রবি শঙ্করের সঙ্গে বৈঠক করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।  তবে এই বৈঠকের আলোচ্যসূচি নিয়ে কিছুই জানায়নি সংবাদমাধ্যমটি।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার (২ আগস্ট) কেন্দ্রীয় সরকার সন্ত্রাসী হামলার বিষয়ে সতর্ক করার পর কাশ্মির থেকে দ্রুত তীর্থযাত্রী ও পর্যটকদের চলে যাওয়ার নির্দেশনা দেয় রাজ্য প্রশাসন। এরপরই স্থানীয়দের মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়ে। কাশ্মিরের রাজনীতিবিদরা আশঙ্কা করতে থাকেন, সরকার ভারতীয় সংবিধানের ৩৫ (এ) ধারা ও ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল করতে যাচ্ছে। এসব ধারা ও অনুচ্ছেদের মাধ্যমে কাশ্মিরের জনগণকে চাকরি ও ভূমির ওপর বিশেষ অধিকার দেওয়া হয়েছে। রবিবার ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুক আবদুল্লাহর বাসভবনে বৈঠক করেন কাশ্মিরের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা। ওই বৈঠকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে সব রাজনৈতিক দলের একটি প্রতিনিধি দল পাঠানোর প্রস্তাব গৃহীত হয়। ওই প্রতিনিধি দলটি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ ও ৩৫ (এ) ধারা বাতিল করা হলে পরিণতি কী হতে পারে সে সম্পর্কে সতর্ক করা হবে।



/জেজে/

লাইভ

টপ