যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা করতে আমিরাতে সুদানের নেতারা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০৩:০৪, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:২১, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

ক্ষমতাসীন কাউন্সিলের প্রধান জেনারেল আবদেল-ফাত্তাহ আল-বুরহানের নেতৃত্বে সুদানের একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল সংযুক্ত আরব আমিরাতে পৌঁছেছে। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) এই সফরে তারা পৃথকভাবে আমিরাত ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন। দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার দাবি, এই সফরে সুদান সংশ্লিষ্ট সব ধরণের আঞ্চলিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে। তবে বিশ্লেষকরা মনে করছেন ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করা নিয়ে আলোচনা করতেই আমিরাতে পৌঁছেছেন সুদানের নেতারা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।সংযুক্ত আরব আমিরাত পৌঁছেছেন সুদানের নেতারা

সংযুক্ত আরব আমিরাত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি করার পর ওই অঞ্চলের আরও কয়েকটি দেশকে একই ধরণের চুক্তিতে রাজি করানোর উদ্যোগ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। তারই অংশ হিসেবে গত মাসে সুদান সফর করেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও। সেই সময় খার্তুমে সুদানের অন্তর্বর্তী প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লা হামদাকের সঙ্গে বৈঠক করেন পম্পেও। ওই বৈঠকে আবদাল্লাহ হামদাক জানান, ইসরায়েলের সঙ্গে এখনই সম্পর্ক স্বাভাবিক করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার তার সরকারের নেই।

গত বছর ব্যাপক গণবিক্ষোভের জেরে দীর্ঘ দিনের শাসক ওমর আল বশির নেতৃত্বাধীন সরকার উৎখাতের পর সুদানের দায়িত্ব নিয়েছে একটি সার্বভৌম কাউন্সিল। এই কাউন্সিলের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন জেনারেল আবদেল-ফাত্তাহ আল-বুরহান। তার নেতৃত্বে সুদানের প্রতিনিধি দলের আমিরাত সফর নিয়ে রবিবার দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসইউএনএ’র খবরে বলা হয়, সংযুক্ত আরব আমিরাতের কর্মকর্তাদের সঙ্গে তারা সব ধরণের আঞ্চলিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবেন।

এসইউএনএ’র খবরে আরও বলা হয় সুদানের বিচারমন্ত্রী নাসের-এদ্দিন আবদেলবারি আবু ধাবিতে মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন। সেখানে তারা যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসবাদে মদতদাতা দেশের তালিকা থেকে সুদানকে সরিয়ে নেওয়া, অন্তবর্তী সরকারের প্রতি সমর্থন এবং সুদানের মার্কিন ঋণ মওকুফ নিয়ে আলোচনা করবেন।

তবে মার্কিন সংবাদমাধ্যম অ্যাক্সিওস ওয়েবসাইটের খবরে বলা হয়েছে, ইসরায়েলের সঙ্গে সুদানের সম্ভাব্য সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি স্বাক্ষর নিয়ে সোমবার আবু ধাবিতে সিদ্ধান্তমূলক বৈঠকে মিলিত হবেন যুক্তরাষ্ট্র, আমিরাত ও সুদানের নেতারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাতে ওয়েবসাইটটি জানিয়েছে, ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিনিময়ে সুদানের অন্তর্বর্তীকালীন সরকার দেশটিকে সন্ত্রাসবাদে মদতদাতা দেশের তালিকা থেকে অপসারণের পাশাপাশি তিনশ’ কোটি মার্কিন ডলার মানবিক সহায়তা এবং সরাসরি বাজেট সহায়তা চাইবে। এছাড়াও আগামী তিন বছর ধরে অর্থনৈতিক সহায়তা অব্যাহত রাখতে যুক্তরাষ্ট্র ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রতিশ্রুতিও চাইবে সুদান।

এদিকে আল জাজিরা জানিয়েছে, সোমবার আবু ধাবিতে পৌঁছেছেন সুদানের সাবেক গোয়েন্দা পরিচালক সালাহ গোস। সেখানে তার সঙ্গে রয়েছেন মিসরের গোয়েন্দা প্রধান আব্বাস কামেল। 

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ