ভ্রমণবান্ধব পাসপোর্ট র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের উন্নতি

Send
জার্নি রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:২০, জানুয়ারি ০৯, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৩২, জানুয়ারি ০৯, ২০২০

বাংলাদেশের পাসপোর্টদেশের বাইরে ভ্রমণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশি পাসপোর্টের সামান্য উন্নতি হয়েছে। হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সে এক ধাপ উপরে উঠে বাংলাদেশ এখন আছে ৯৮ নম্বরে। বৈশ্বিক র্যাং কিংয়ে এর আগে ৯৯ নম্বরে ছিল লাল-সবুজ পতাকা।

লন্ডনে অবস্থিত বৈশ্বিক নাগরিকত্ব ও আবাসনের পরামর্শক সংস্থা হেনলি অ্যান্ড পার্টনারসের দাবি, বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা বিশ্বের ২০টি দেশে ভিসামুক্ত ও ২০টি দেশে ভিসা-অন-অ্যারাইভাল ও একটি দেশে (শ্রীলঙ্কা) ইলেক্ট্রনিক ট্রাভেল অথরাইজেশন (ইটিএ) সুবিধায় ভ্রমণ করতে পারেন। আর পৃথিবীর ১৮৬টি দেশে যেতে বাংলাদেশিদের পাসপোর্টে ভিসা থাকতে হয়।

আমেরিকার মধ্যে কেবল বলিভিয়ায় ভিসা-অন-অ্যারাইভাল সুবিধা রয়েছে বাংলাদেশিদের। এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশকে এই সুবিধা দেয় মালদ্বীপ, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও পূর্ব-তিমুর। এশিয়ার ভুটান আর ইন্দোনেশিয়ায় কোনও ভিসা ছাড়াই যেতে পারেন বাংলাদেশিরা।

বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা ভিসা-অন-অ্যারাইভাল সুবিধা বেশি পেয়ে থাকেন আফ্রিকায়। এ তালিকায় আছে সিয়েরা লিওন, কেপ ভার্দে আইল্যান্ড, কমোরেস আইল্যান্ড, গিনিয়া-বিসাউ, কেনিয়া, মাদাগাস্কার, মরিটানিয়া, মোজাম্বিক, রুয়ান্ডা, সিশেলেস, সেনেগাল, সোমালিয়া, টোগো ও উগান্ডা। এছাড়া গাম্বিয়া ও লেসোথোতে যেতে বাংলাদেশের নাগরিকদের কোনও ভিসার প্রয়োজন হয় না।

বাংলাদেশের পাসপোর্টের জন্য ভিসা-অন-অ্যারাইভাল সুবিধা যুক্ত করেছে পশ্চিম আফ্রিকার দেশ সেনেগাল। ফলে ভ্রমণবান্ধব পাসপোর্ট সূচকে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশিদের।

হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সে বাংলাদেশের পাসপোর্টক্যারিবীয় দ্বীপগুলোর মধ্যে ১১টি জায়গায় ভিসামুক্ত যাতায়াত করতে পারেন বাংলাদেশিরা। গন্তব্যগুলো হলো বাহামাস, বারবাডোজ, ব্রিটিশ ভার্জিন আইল্যান্ড, ডমিনিকা, গ্রেনাডা, হাইতি, জ্যামাইকা, মন্টসেরাত, সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস, সেন্ট ভিনসেন্ট অ্যান্ড গ্রেনাডাইনস ও ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগো।

প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশের মধ্যে কুক আইল্যান্ডস, ফিজি, মাইক্রোনেশিয়া, নুই ও ভানুয়াতুতে বাংলাদেশের পাসপোর্টধারীরা ভিসা ছাড়া যেতে পারেন। এছাড়া সামোয়া ও টুভালুতে বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা-অন-অ্যারাইভাল সুবিধা রয়েছে।

হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স অনুযায়ী, বিদেশ ভ্রমণে এখন বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্ট জাপানের। দেশটির নাগরিকরা ১৯১টি দেশে ভিসামুক্ত কিংবা ভিসা-অন-অ্যারাইভাল সুবিধা পেয়ে থাকেন।

২০১৯ সালের পাসপোর্ট র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থান পাওয়া জাপান যেতে বাংলাদেশের নাগরিকদের ভিসা নিতে হয়। এবারের সবচেয়ে দুর্বল পাসপোর্ট আফগানিস্তানে ঢুকতেও বাংলাদেশিদের ভিসা লাগে।

হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সে বাংলাদেশের সঙ্গে ৯৮ নম্বরে যৌথভাবে আছে মধ্যপ্রাচ্যের ইরান, পূর্ব আফ্রিকার দেশ ইরিত্রিয়া ও মধ্য আফ্রিকার কঙ্গো।

পৃথিবীর ১৯৯টি পাসপোর্ট ও ২২৭টি ভ্রমণ গন্তব্য নিয়ে ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের (আইএটিএ) বিশেষ তথ্যের ওপর ভিত্তি করে তৈরি হয় হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স। আগে থেকে ভিসা না নিয়ে বিদেশ গমনের সুযোগ পাওয়া পাসপোর্টগুলো নিয়ে সাজানো হয় হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্সের বৈশ্বিক র্যাং কিং।

২০০৬ সালে র‌্যাংকিংয়ে ৬৮ নম্বরে ছিল বাংলাদেশ। এরপর প্রতি বছর র‌্যাংকিংয়ে ধারাবাহিকভাবে পতন হয়েছে বাংলাদেশিদের। তবে ২০১৮ সালের পর থেকে চিত্রটা ইতিবাচকভাবে বদলাচ্ছে।

/জেএইচ/
টপ