বিশ্বের সেরা ১০ রুটি

Send
আহমেদ শরীফ
প্রকাশিত : ১৪:১৫, মে ১২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:১৩, মে ১২, ২০২০

খাবার হিসেবে পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই রুটি খুব সমাদৃত। সেই প্রাচীনকাল থেকে মানুষের খাদ্য তালিকায় রুটির চাহিদা ছিল শীর্ষে। একেক দেশের রুটি তৈরির সংস্কৃতি একেক রকম। সেসব রুটির আকৃতি ও স্বাদও হয় ভিন্ন। আর শুধু আকৃতি বা স্বাদই নয়, নানা দেশের নানা ধরনের রুটি তৈরির কৌশলেও আছে দারুণ ভিন্নতা। জেনে নিন বিশ্বের সেরা কয়েকটি রুটি সম্পর্কে।


ফ্রেঞ্চ বাগেট
ব্রেড বা পাউরুটির জগতে সোনালি রঙয়ের প্যাঁচানো ফ্রেঞ্চ বাগেট খুব সমাদৃত। প্রায় সব খাবারের সাথেই এই আকর্ষণীয় রুটি খেতে ভালো লাগে। বাগেটের উপরের অংশ খসখসে ও ভেতরটা নরম থাকে বলে স্যুপ ও স্টিউয়ের মতো খাবারের সাথে এটি বেশ মুখরোচ। অনেক কুকই স্যান্ডউইচ তৈরিতে ফ্রেঞ্চ বাগেটকে বেছে নেন বলেই জানান।

ফ্রেঞ্চ বাগেট
টরটিলা
মেক্সিকান খাবার ‘টরটিলা’ ভুট্টা অথবা গম দিয়ে তৈরি এক ধরনের রুটি। এই টরটিলা দিয়ে বারিটোজ, এনচিলাডাস, টাকোজ নামের দারুণ কিছু ডিশ তৈরি করা হয় মেক্সিকোতে। টরটিলাসহ এসব খাবার বিশ্বজুড়ে খুব সমাদৃত।

টরটিলা
পিটা
ইতিহাস মতে বিশ্বের অন্যতম প্রাচীন রুটি পিটা। মধ্যপ্রাচ্যের এই রুটি বেশ নরম। আশি দশক থেকে বিশ্বজুড়ে এই রুটির কদর বেড়ে যায়। এই পিটা  দিয়ে পরীক্ষামূলকভাবে চিপস তৈরি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এর সাথে ‘হামাস; নামের একটি ডিশ খেতে বেশ ভালো লাগে।

পিটা
বিস্কুট
‘বিস্কুট’ শব্দের অর্থ ‘ব্রেড টোয়াইস কুকড।’ অর্থাৎ রুটির অন্য এক রূপই বিস্কুট। বিভিন্ন দেশে আগে সেনা সদস্য, পর্যটক ও স্বল্প আয়ের মানুষরা বিস্কুট খেত বেশি। কারণ এটি ছিল সহজলভ্য। এরপর গমের উৎপাদন বেড়ে যাওয়ায় বেকারিতে বাণিজ্যিকভাবে প্রস্তুত হওয়া শুরু হয় বিস্কুট।  
ইনজিরা
ইথিওপিয়ার আলোচিত রুটি ইনজেরা। এটি ‘টেফ’ নামের এক ধরনের শস্যকণা দিয়ে তৈরি করা হয়। টেফ পাউডার পানির সাথে মিশিয়ে অনেকক্ষণ রেখে দেয়া হয়। পরে তা সামান্য শক্ত ও স্পঞ্জি করে তৈরি করা হয়। এই রুটির আকার বাসনের মতো, এমনকি অনেক ক্ষেত্রে  টেবিল ক্লথের মতো হয়।
রাগবোর্ড
ডেনমার্কে রাই দিয়ে বিশেষ এক ধরনের রুটি তৈরি হয়, যার নাম রাগবোর্ড। অনেকটা স্যান্ডউইচের মতো দেখতে এই রুটি বিশ্বের অনেক দেশেই সমাদৃত।
বাও
চীনের এই রুটি দেখতে সুন্দর, তুলতুলে। খানিকটা মিষ্টি স্বাদের। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এশিয়ার রেস্টুরেন্টগুলোতে দেখা যায় এই রুটি।

বাও
নান
আমাদের চেনা নান রুটি বিশ্বের অনেক দেশেই জনপ্রিয়। এই রুটি তৈরি করতে খামিরটা এমন কৌশলে করতে হয়, যাতে রুটির একদিক মচমচে থাকলেও অন্যদিকটা নরম থাকে। 
বেগেল
পশ্চিমা বিশ্বে বেগেল খুব জনপ্রিয় এক রুটি। এর স্বাদ কেমন তা নিশ্চিত করে বেশিরবাগ মানুষ বলতে পারে না। আর এটাই এই রুটির রহস্য। এটি তৈরিতে বিশেষ কৌশল অবলম্বন করতে হয়। খামিরে আঠালো ভাব বেশি থাকতে হয়, অল্প সময় গাজন ও অল্প সময় গরম পানিতে রাখলে আদর্শ বেগেল হয়ে ওঠে। 

বেগেল
সাওয়ারডাউ বোল
মূলত ফ্রান্সের অদ্ভুত এক রুটি এটি। এখন অনেকেই এই রুটি তৈরি নিয়ে গবেষণা শুরু করেছেন। এই রুটিতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে অনেক, সহজে হজমও হয়।

তথ্য: টাইমস অব ইন্ডিয়া

/এনএ/

লাইভ

টপ