X
শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪
১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

বঙ্গমাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮ দিন ধরে কর্মবিরতি, ক্যাম্পাসে নেই উপাচার্য

জামালপুর প্রতিনিধি
০৮ নভেম্বর ২০২২, ২১:০৮আপডেট : ০৮ নভেম্বর ২০২২, ২১:০৮

জামালপুরের মেলান্দহে বঙ্গমাতা শেখ মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন করছেন শিক্ষকরা। গত আট দিন ধরে তারা এ কর্মসূচি পালন করছেন। অ্যাকাডেমিক-প্রশাসনিক অনিয়ম এবং অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ ও উপাচার্য অপসারণের দাবিতে তারা এ কর্মসূচি পালন করছেন। মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) জামালপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষকরা এসব তথ্য জানান। 

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহাকারী অধ্যাপক ও সহকারী প্রক্টর মাহমুদুল আলম বলেন, গত ২ নভেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক-প্রশাসনিক অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে ও সমাধানের দাবিতে উপাচার্য বরাবর ১০ দফা দাবির স্মারকলিপি দেওয়া হয়। পরে রবিবার এসব বিষয়ে উপাচার্যের সঙ্গে শিক্ষকদের দীর্ঘ চার ঘণ্টা আলোচনা হয়। তবে দাবিগুলো সমাধানের জন্য কর্তৃপক্ষ কোনও স্বল্প ও দীর্ঘমেয়াদি কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেনি। উল্টো উপাচার্য বলছেন শিক্ষকদের কর্মবিরতিতে তার কিছুই যায়-আসে না। এমনকি বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থার মধ্যেও তিনি ক্যাম্পাসে অনুপস্থিত রয়েছেন। 

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণ হলো শিক্ষার্থী আর শিক্ষক। শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের পাঠদান ও গবেষণার কাজেই মগ্ন থাকেন। কিন্তু অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় এই যে, জাতির পিতার সহধর্মিনীর নামে প্রতিষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ে নানা রকম প্রশাসনিক ও আর্থিক অনিয়ম, অব্যবস্থাপনা, দুর্নীতি, স্বজনপ্রীতি, স্বেচ্ছাচারিতাসহ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের দাবিকে নানাভাবে উপেক্ষা করা হচ্ছে। উপাচার্যের নির্দেশে সংঘটিত বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মধ্যে যেমন নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্বজনপ্রীতি, চুক্তিভিত্তিক নিয়োগে ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে। জ্বালানি সাশ্রয়ে সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে, বিধিবহির্ভূতভাবে রাজশাহীতে অবস্থানরত উপাচার্যের পরিবারের সদস্যদের সার্বক্ষণিক ব্যবহারের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের গাড়ি বরাদ্দ করে অর্থ ও জ্বালানির অপচয় করা হচ্ছে। তাছাড়া প্রাধিকাভুক্ত না হলেও অনেক কর্মকর্তা মাসিক লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে ভাড়া করা গাড়ি ব্যবহার করছেন।

লিখিত বক্তব্যে আরও অভিযোগ করা হয়, সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে লক্ষাধিক টাকায় ভাড়া করা গেস্ট হাউসের সুবিধা থেকে শিক্ষকদের বঞ্চিত করে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করছেন উপাচার্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক কোটির অধিক টাকা রাজশাহীস্থ একটি বেসরকারি ব্যাংকে ফিক্সড ডেপোজিট করা হয়েছে। সেই টাকার বাৎসরিক ইন্টারেস্ট কোথায় ব্যয় হচ্ছে, তারও কোনও হিসাবে নেই। উপাচার্যের চার বছর মেয়াদকালে বেশিরভাগ সময়ই তিনি ক্যাম্পাসে অনুপস্থিত ছিলেন। বিভিন্ন জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ দিবসেও তাকে পাওয়া যায় না। 

সংবাদ সম্মেলনে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৪৭জন শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। তারা অবিলম্বে উপাচার্যের
অপসারণের দাবি করেন।

 

 /টিটি/
সম্পর্কিত
সর্বশেষ খবর
টসে জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠালো বরিশাল
টসে জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠালো বরিশাল
স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার বর্ণনা দিলেন আহত স্বামী
স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনার বর্ণনা দিলেন আহত স্বামী
‘ভবন ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছে সরকার’
তদন্তের দাবি রাজনীতিক ও সংগঠকদের‘ভবন ব্যবস্থাপনায় ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছে সরকার’
ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফি ব্যবহার করুন ৫ উপায়ে
ডার্ক সার্কেল দূর করতে কফি ব্যবহার করুন ৫ উপায়ে
সর্বাধিক পঠিত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
বাংলাদেশ থেকে যাওয়া হিন্দুদের নাগরিকত্ব দিতে নতুন পোর্টাল করছে ভারত
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
দুই ছেলের আবদার মেটাতে গিয়ে লাশ হলেন মা’সহ ৩ জনই
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
আগুন কেড়ে নিলো ইতালি প্রবাসী মোবারকের পরিবারের সবাইকে
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু
বেইলি রোডের আগুনে অন্তত ৪৪ জনের মৃত্যু
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি
প্রাণিসম্পদ অধিদফতরে নতুন ডিজি