X
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
২৬ মাঘ ১৪২৯

পল্টনে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষে ঢাবি নীল দলের নিন্দা

ঢাবি প্রতিনিধি
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:৫৬আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯:৫৬

গত বুধবার (৭ ডিসেম্বর) পল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির নেতাকর্মী ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের সংঘর্ষের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল। তারা অভিযোগ করে, একটি রাজনৈতিক গোষ্ঠী বিজয়ের মাসে দেশে রাজনৈতিক অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরির অপতৎপরতা করছে।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) নীল দলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আব্দুছ ছামাদ, যুগ্ম আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আবদুর রহিম ও অধ্যাপক ড. মো. আকরাম হোসেনের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এসব জানানো হয়।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, ‘কিছুদিন ধরে একটি মহল দেশে বিদ্যমান শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিঘ্নিত করে রাজনৈতিক অঙ্গনে নৈরাজ্য সৃষ্টির অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নীল দল এ ধরনের কর্মকাণ্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে। ১৯৭১ সালে ৩০ লাখ শহীদ ও আড়াই লাখের অধিক মা-বোনের সর্বোচ্চ ত্যাগের বিনিময়ে ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশ চূড়ান্ত বিজয় অর্জন করেছিল। পবিত্র এ মাসের মর্যাদাকে অসম্মানিত করার জন্য ’৭১-এর পরাজিত শক্তি ও তাদের দোসর নানা অপতৎপরতায় লিপ্ত রয়েছে।’

আগামী নির্বাচনে জনগণের সামনে কোনও রাজনৈতিক পুঁজি না পেয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা তৈরি করতে চাইছে মন্তব্য করে বিবৃতিতে বলা হয়, ‘২০০৯ সাল থেকে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সরকার টানা তিনবার রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকায় বাংলাদেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। এর সুফল জাতি ভোগ করছে। অপরপক্ষে রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে ২০১৪ সালে ২০০ জনের অধিক মানুষকে হত্যার জন্য দায়ী একটি মহলের নেতিবাচক রাজনীতি, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষকতা, অগ্নিসন্ত্রাস, হরতাল-ধর্মঘট আর জ্বালাও-পোড়াওয়ের মতো বিধ্বংসী ভাবমূর্তির বাইরে আগামী নির্বাচনে উপস্থাপনের মতো পুঁজি তাদের হাতে নেই। তাই দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করে সরকার উৎখাতের জন্য এই মহল অপতৎপরতা শুরু করেছে। প্রকাশ্যে গণতান্ত্রিক সরকার উৎখাতের হুমকিও তারা দিয়েছে, যা রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল।’

গণতান্ত্রিক পন্থায় ক্ষমতা পরিবর্তনের উপায় বর্তমান সরকার অব্যাহত রেখেছে উল্লেখ করে তারা বলেন, বর্তমান সরকার ২০২৪ সালে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের সব প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। বাংলাদেশের সংবিধানের ৩৭ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী ‘জনশৃঙ্খলা ও জনস্বাস্থ্যের স্বার্থে আইনের দ্বারা আরোপিত যুক্তিসংগত বাধানিষেধ সাপেক্ষে শান্তিপূর্ণভাবে জনসভা করতে কোনও বাধা নেই। একটি রাজনৈতিক দল ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় জনসভার কর্মসূচি দিয়েছে। ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর থেকে বুদ্ধিজীবী হত্যার নীলনকশা চূড়ান্তভাবে বাস্তবায়ন শুরু হয়েছিল। এদিন রাজনৈতিক কর্মসূচির নামে যুদ্ধংদেহী পরিস্থিতি তৈরি ’৭১-এর নৃশংসতাকে মনে করিয়ে দেয়।’

তারা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুকে সপরিবার নির্মমভাবে হত্যা করার পর অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে একটি অগণতান্ত্রিক সরকার। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর আত্মসমর্পণের স্থানে শিশুপার্ক নির্মাণের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস মুছে ফেলার অপচেষ্টা হয়েছিল। সেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করার অনুমতি পাওয়া সত্ত্বেও একটি মহলের কারণে ৭ ডিসেম্বর পল্টনে এক নিরীহ পথচারীর প্রাণ গেল, যা কোনোক্রমেই কাম্য নয়।’

সবার শুভবুদ্ধির উদয় হবে এবং বিধ্বংসী রাজনীতির পথ পরিহার করে সুষ্ঠুধারার রাজনীতিতে ফিরে আসবে আশা করে বলা হয়, জনস্বার্থের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের বিধান অনুযায়ী কর্মসূচি পালনের অধিকার ভোগ করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানাই। অন্যথায় গণতান্ত্রিক ধারা বাধাগ্রস্ত হলে তা কারও জন্যই মঙ্গলজনক হবে না।

‘আমরা গণতান্ত্রিক মূল্যবোধসম্পন্ন নাগরিকদের প্রতি যেকোনও ধরনের নৈরাজ্য ও অপতৎপরতার বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট অবস্থান গ্রহণ করা জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।’

/এনএআর/
সর্বশেষ খবর
বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজায় গাড়িচাপায় যুবক নিহত
বঙ্গবন্ধু সেতুর টোলপ্লাজায় গাড়িচাপায় যুবক নিহত
এক মাসের বেতন দেবেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট
তুরস্কে ভূমিকম্পএক মাসের বেতন দেবেন তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট
মেঘলা আকাশ আর বায়ুদূষণে ঢেকে আছে ঢাকা
মেঘলা আকাশ আর বায়ুদূষণে ঢেকে আছে ঢাকা
বাংলাদেশ ব্যাংকে রিজার্ভ চুরি: দুই দেশের প্রতিবেদনের অপেক্ষায় সিআইডি
বাংলাদেশ ব্যাংকে রিজার্ভ চুরি: দুই দেশের প্রতিবেদনের অপেক্ষায় সিআইডি
সর্বাধিক পঠিত
ইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে হত্যাচেষ্টাইরফান সেলিমের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা
ইউক্রেনের একমাত্র সাবমেরিন কোথায়?
ইউক্রেনের একমাত্র সাবমেরিন কোথায়?
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতের সেই নাজিরকে বদলি করলো কোর্ট প্রশাসন
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতের সেই নাজিরকে বদলি করলো কোর্ট প্রশাসন
জবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে প্রশ্ন সরবরাহের অভিযোগ
জবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে প্রশ্ন সরবরাহের অভিযোগ
শিক্ষার্থীকে অপহরণ করে চাঁদা দাবি, রুয়েট ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৩
শিক্ষার্থীকে অপহরণ করে চাঁদা দাবি, রুয়েট ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেফতার ৩