সেনাবাহিনীর জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করছে এশিয়া প্যাসিফিক

Send
এশিয়া প্যাসিফিক প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৪:৪৪, মার্চ ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৪৬, মার্চ ২৬, ২০২০

বিশ্বব্যাপী মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া নোভেল করোনাভাইরাস মোকাবেলায় ইতিমধ্যে মাঠে নামছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুয়ায়ী বার বার হাত ধোয়া এবং জীবাণুমুক্ত রাখাই এই ভাইরাস প্রতিরোধে অন্যতম সহায়ক ভূমিকা পালন করে।

চাহিদার বিপরীতে দেশ জুড়ে এখন হ্যান্ড স্যানিটাইজার এর  প্রবল সংকট সৃস্টি হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় স্বেচ্ছা কার্যক্রমে এবার যুক্ত হলো ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের ফার্মেসি বিভাগ। বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. স্বর্ণালী ইসলাম খন্দকার, অধ্যাপক ড. মহিউদ্দিন আহমেদ ভূঁইয়া এবং অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শাহরিয়ার এর নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশ কিছু শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউ এইচ ও) এর বিশেষ নির্দেশনা অনুয়ায়ী দিনব্যাপী এই কার্যক্রমে প্রায় দুই হাজার স্যানিটাইজার প্রস্তুত করা হয়।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে মেজর মামুন ইউনিভার্সিটি অব এশিয়া প্যাসিফিকের প্রস্তুতকৃত এই স্যানিটাইজার গ্রহণ করেন।

সেনাবাহিনী ছাড়াও ইউএপির প্রস্তুতকৃত এই স্যানিটাইজারগুলো বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর তেজগাঁও থানা, রাস্তায় কর্তব্যরত ট্রাফিক পুলিশ, গ্রীনরোড ফার্মগেট এলাকার গরীব জনসাধারণ, আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম, ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ, কুমিল্লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, বাংলাদেশ ফার্মেসি কাউন্সিল এবং একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এর সাংবাদিকদেরসহ বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানে বিতরণ করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. স্বর্ণালী ইসলাম খন্দকার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, দেশের এই বিপর্যয়ে আমারা আমাদের সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে এগিয়ে এসেছি। দেশব্যাপী ব্যাপক চাহিদার তুলনায় আমাদের উৎপাদন হয়তো অপ্রতুল, কিন্তু আমরা বিশ্বাস করি এভাবে সবার এগিয়ে আসার মাধ্যমেই আমরা এই প্রতিকুল পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারবো। এসময় তিনি ধৈর্য সহকারে সবাইকে নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করার জন্য বিশেষ আহ্বান জানান।’

/এফএএন/

সম্পর্কিত

লাইভ

টপ