X
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২
২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ঝুলে আছে দুই হাজারেরও বেশি মৃত্যুদণ্ডাদেশ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তাগাদা

জামাল উদ্দিন
২২ জুলাই ২০২১, ০৯:০০আপডেট : ২২ জুলাই ২০২১, ১৮:০৯

দেশের কারাগারগুলোতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের বিপরীতে মামলা আছে দুই হাজার ১৩৭টি। মামলাগুলো দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে নির্দেশনা দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। প্রয়োজনে আইন মন্ত্রণালয়ের সহায়তা নিয়ে আলাদা সেল গঠন করে হলেও আদেশগুলোর নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও কারা অধিদফতর সূত্র জানায়, সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী বর্তমানে দেশের বিভিন্ন কারাগারে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দি রয়েছে দুই হাজার ১০ জন। কামিশপুর কারাগারে গত ১৫ জুলাই রাতে এক জেএমবি সদস্যের ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে। গত জুনে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের এক সভায় এ বিষয়ে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে কারা অধিদফতরসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষগুলোকে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, এই নির্দেশনা পাওয়ার পর কারা অধিদফতরের পক্ষ থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের মামলা নিষ্পত্তি করতে সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিবকে জানানো হয়েছে। অ্যাটর্নি জেনারেলের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেছেন কারা অধিদফতরের শীর্ষ কর্মকর্তারা।

উচ্চ আদালতে চলমান ডেথ রেফারেন্স এবং আপিল মামলাগুলো যাতে দ্রুত নিষ্পত্তি করা যায়, সেজন্য আইন ও বিচার বিভাগের সঙ্গে দাফতরিক ও ব্যক্তিগত যোগাযোগও অব্যাহত রাখা হচ্ছে। তবে এখনও আলাদা সেল গঠন করা হয়নি।

স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশের কারাগারগুলোতে এ পর্যন্ত ৪৫৩ জন বন্দির মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। ঢাকা, গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার, হাইসিকিউরিটি কারাগার, রাজশাহী, সিলেট, বরিশাল, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ ও কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারসহ কয়েকটি জেলা কারাগারে সাধারণত মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দিদের মধ্যে অনেক জঙ্গি ও যুদ্ধাপরাধীও রয়েছে।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে মঙ্গলবার (২০ জুলাই) কারা অধিদফতরের আইজি প্রিজন্স ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোমিনুর রহমান মামুন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বন্দিদের মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের বিষয়টি কারা অধিদফতরের বিষয় নয়। আদালত ও সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে দণ্ডাদেশ কার্যকর করা হয়।

তবে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বন্দিদের নিয়ে আদালতের আদেশ কার্যকর ও নিষ্পত্তি সংক্রান্ত কমিটির সদস্য হিসেবে কারা অধিদফতর তার দাফতরিক কাজগুলো করে যাচ্ছেন। সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন বলেও জানান তিনি।

/এফএ/এমওএফ/
বল ওনাদের কোর্টে, কী সমঝোতা বলবেন তারাই: মির্জা ফখরুল
নয়া পল্টনে গণসমাবেশের অনুমতি পাচ্ছে বিএনপি?বল ওনাদের কোর্টে, কী সমঝোতা বলবেন তারাই: মির্জা ফখরুল
ব্রাজিল-কোরিয়া ম্যাচের পর স্যামুয়েল ইতোর কাণ্ড
ব্রাজিল-কোরিয়া ম্যাচের পর স্যামুয়েল ইতোর কাণ্ড
কর বিষয়ে সহায়তা পেলে সুপারমার্কেট ব্যবসা প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে
কর বিষয়ে সহায়তা পেলে সুপারমার্কেট ব্যবসা প্রবৃদ্ধি অর্জন করবে
অপারেশনে মাইশার মৃত্যুতে ৩ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা
অপারেশনে মাইশার মৃত্যুতে ৩ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা
সর্বাধিক পঠিত
‘১৮ বছর হলে মেয়েকে এমন একটা সিঙ্গেল ট্রিপে পাঠাবো’
৫০ পর্বে মামানামা- আউট অব দ্য বক্স‘১৮ বছর হলে মেয়েকে এমন একটা সিঙ্গেল ট্রিপে পাঠাবো’
‘অটোরিকশাকে ট্রেনের টেনে নেওয়া দেখে ভয়ে চিল্লান দিছিলাম’
‘অটোরিকশাকে ট্রেনের টেনে নেওয়া দেখে ভয়ে চিল্লান দিছিলাম’
ছাত্রলীগের সম্মেলন আজ: নেতৃত্ব বাছাইয়ে ‘শর্ট লিস্ট’ ও ‘গোয়েন্দা জরিপ’
ছাত্রলীগের সম্মেলন আজ: নেতৃত্ব বাছাইয়ে ‘শর্ট লিস্ট’ ও ‘গোয়েন্দা জরিপ’
আওয়ামী লীগ নেত্রীর বাসায় ব্রিটিশ হাইকমিশনার
আওয়ামী লীগ নেত্রীর বাসায় ব্রিটিশ হাইকমিশনার
২০৪ কোটি টাকা পাচার, ব্যবসায়ীর বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা
২০৪ কোটি টাকা পাচার, ব্যবসায়ীর বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞা