X
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

ভারতের চোখে বাংলাদেশ ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ ছিল তিন মাস ধরেই, কিন্তু কেন? 

আপডেট : ৩০ নভেম্বর ২০২১, ২২:৪৩

আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলীয় দেশগুলোতে ‘ওমিক্রন’ ভ্যারিয়েন্টের প্রাদুর্ভাব শনাক্ত হওয়ার পরই বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তাদের বিমানবন্দরগুলোতে বিদেশ থেকে যাত্রীদের আসার ক্ষেত্রে কিছু কিছু বাড়তি বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। ভারতও এর ব্যতিক্রম নয়, এবং মাত্র কয়েক ঘণ্টা আগেও ভারত যে দেশগুলোকে ‘অ্যাট রিস্ক’ বা ঝুঁকিপূর্ণ বলে গণ্য করছিল বাংলাদেশ ছিল তার একটি।

বাংলা ট্রিবিউন জানতে পেরেছে, বাংলাদেশ সরকার কূটনৈতিক স্তরে অনুরোধ জানানোর পর  মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সকালে ভারত এই তালিকা থেকে বাংলাদেশকে সরিয়ে নেয়। এদিন ভারত সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যে ‘আপডেটেড’ তালিকা প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের নাম নেই।  

কিন্তু ঘটনা হল, ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হওয়ার সঙ্গে বাংলাদেশকে এই তালিকায় রাখার কোনও সম্পর্কই নেই। বস্তুত বাংলাদেশ থেকে আগত যাত্রীদের ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করা হচ্ছিল সেই ৩রা সেপ্টেম্বর থেকেই – ফলে এই বিধিনিষেধ গত প্রায় তিন মাস ধরেই বহাল ছিল। 

এই তালিকায় শুধু বাংলাদেশ নয়, যুক্তরাজ্যসহ গোটা ইউরোপ, বা চীনের মতো অনেক দেশই ছিল। বাংলাদেশ এখন আর ভারতের চোখে ঝুঁকিপূর্ণ বলে গণ্য না-হলেও যুক্তরাজ্য বা চীনকে কিন্তু ভারত এখনও ‘অ্যাট রিস্ক’ বলেই মনে করছে। 

ভারতের চোখে বাংলাদেশ ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ ছিল তিন মাস ধরেই, কিন্তু কেন? 

ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় গত ৩১শে আগস্ট জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতেই জানিয়েছিল, ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো ছাড়াও আরও মোট সাতটি দেশকে বাড়তি বিধিনিষেধের আওতায় আনা হচ্ছে। এই দেশগুলো ছিল – দক্ষিণ আফ্রিকা, বাংলাদেশ, বতসোয়ানা, চীন, মরিশাস, নিউজিল্যান্ড ও জিম্বাবোয়ে।  এই নির্দেশ বলবত হয় সেই বিজ্ঞপ্তি জারির তিনদিন পর থেকে।

এরপর গত  ২৬ নভেম্বর মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে যে নতুন নির্দেশিকা জারি করা হয়, তাতে হংকং ও ইসরায়েলকেও সেই তালিকায় যুক্ত করা হয়েছে। স্পষ্টতই, ওই দুটো দেশে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত হওয়ার জেরেই যে ওই সিদ্ধান্ত – তা বুঝতে অসুবিধা হয় না। 

জানানো হয়, এই সব দেশ থেকে যে যাত্রীরা ভারতে আসবেন প্রতিটি রাজ্য সরকারকে বলা হয়েছে তাদের কঠোরভাবে ‘স্ক্রিনিং’ ও ‘টেস্টিং’ করতে হবে।

কিন্তু বাংলাদেশ কেন এই তালিকায় তখনও রয়ে গিয়েছিল সে প্রশ্ন থেকেই যায়। 

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন যুগ্ম সচিব পর্যায়ের কর্মকর্তা এই প্রতিবেদককে জানান, ‘আগস্টর শেষ দিকে যখন আমরা ওই সিদ্ধান্ত নিই, তখনও বাংলাদেশে পজিটিভ কেস কিন্তু বাড়ছিল।তা ছাড়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যেগুলোকে ‘ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন’ বা ‘ভ্যারিয়েন্ট অব ইন্টারেস্ট’ বলে বর্ণনা করছে সেগুলোর অস্তিত্বও পাওয়া যাচ্ছিল। সে কারণেই বাংলাদেশকে তখন ওই তালিকায় রাখা হয়।’

ভারতের চোখে বাংলাদেশ ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ ছিল তিন মাস ধরেই, কিন্তু কেন? 

কিন্তু তিন মাস পর নভেম্বরের শেষে এসে বাংলাদেশের কোভিড পরিস্থিতির অনেকটাই উন্নতি হয়েছে। সে দেশে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের কোনও অস্তিত্বও এখনও পর্যন্ত শনাক্ত হয়নি। তার পরও বাংলাদেশকে কেন ঝুঁকিপূর্ণ তালিকাতেই রেখে দেওয়া হয়েছিল সে প্রশ্নের সদুত্তর অবশ্য  ওই কর্মকর্তা দিতে পারেননি।

বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে অবশ্য ঠিক এই যুক্তি দিয়েই ‘অ্যাট রিস্ক’ তালিকা থেকে তাদের সরানোর অনুরোধ জানানো হয়। দিল্লিও সেই যুক্তি মেনে নিয়ে আজ তাদের অনুরোধে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছে।

কিন্তু ঝুঁকিপূর্ণ তালিকা থেকে বাংলাদেশ সরে যাওয়ায় সে দেশের যাত্রীরা এখন কী সুবিধা পাবেন? 

দিল্লি বিমানবন্দরের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা আজ সন্ধ্যায় বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সবচেয়ে বড় সুবিধা হল ভারতে নামার পর বাংলাদেশের যাত্রীদের কোনও আরটি-পিসিআর টেস্ট করাতে হবে না।’ 

‘কেবলমাত্র থার্মাল স্ক্রিনিং (দেহের তাপমাত্রা পরীক্ষা) করেই তাদের ছেড়ে দেওয়া হবে – যদি কারও কোভিডের উপসর্গ থাকে শুধুমাত্র তাদেরই আইসোলেট করে আলাদা পরীক্ষা করানো হবে’, জানাচ্ছেন তিনি।

/এমআর/
সম্পর্কিত
‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ইইউ’র সঙ্গে বাণিজ্যে কোনো প্রভাব ফেলবে না’
‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ইইউ’র সঙ্গে বাণিজ্যে কোনো প্রভাব ফেলবে না’
দক্ষ জনবল না থাকায় এনআইডিতে কিছু ভুল হচ্ছে: আইনমন্ত্রী
দক্ষ জনবল না থাকায় এনআইডিতে কিছু ভুল হচ্ছে: আইনমন্ত্রী
পাঁচ বছরে বাতিল হয়েছে ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন
পাঁচ বছরে বাতিল হয়েছে ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন
মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে মতিঝিল অংশের ভায়াডাক্ট ইরেকশন সম্পন্ন
মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে মতিঝিল অংশের ভায়াডাক্ট ইরেকশন সম্পন্ন
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ইইউ’র সঙ্গে বাণিজ্যে কোনো প্রভাব ফেলবে না’
‘মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ইইউ’র সঙ্গে বাণিজ্যে কোনো প্রভাব ফেলবে না’
দক্ষ জনবল না থাকায় এনআইডিতে কিছু ভুল হচ্ছে: আইনমন্ত্রী
দক্ষ জনবল না থাকায় এনআইডিতে কিছু ভুল হচ্ছে: আইনমন্ত্রী
পাঁচ বছরে বাতিল হয়েছে ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন
পাঁচ বছরে বাতিল হয়েছে ২২৮টি এনজিও’র নিবন্ধন
মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে মতিঝিল অংশের ভায়াডাক্ট ইরেকশন সম্পন্ন
মেট্রোরেলের উত্তরা থেকে মতিঝিল অংশের ভায়াডাক্ট ইরেকশন সম্পন্ন
সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
নরেন্দ্র মোদিকে শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা বার্তাসমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
© 2022 Bangla Tribune