X
সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

এখনও পিছিয়ে টিকায়

আপডেট : ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১৫:১৬

করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন মোকাবিলায় বিভিন্ন দেশের সঙ্গে ফ্লাইট বন্ধ বা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার চেয়ে স্বাস্থ্যসেবায় সক্ষমতা বাড়ানোর কথা বলেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বলেছে—মানুষকে বেশি করে টিকার আওতায় আনতে।   

সংস্থা আরও বলছে, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞায় ভাইরাসের বিস্তার কিছু সময়ের জন্য দমিয়ে রাখা গেলেও দীর্ঘমেয়াদে তা কাজ করবে না।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের পরিচালক তাকেশি কাসাই বলেছেন, ঝুঁকিতে থাকা মানুষজনকে পূর্ণ ডোজ কোভিড টিকা দেওয়া এবং মাস্ক পরাসহ সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার পদক্ষেপে অটল থাকতে হবে। 

ওমিক্রন ছড়িয়েছে ৪০টি দেশে। শঙ্কার কথা হচ্ছে, ভারতে ইতোমধ্যেই দুজন থেকে শনাক্ত বেড়ে চারজন হয়েছেন। গত চার দিনে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত বেড়েছে চার গুণ।

দেশে গত ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত করোনাভাইরাসের মোট টিকা দেওয়া হয়েছে ১০ কোটি ১৩ লাখ ৩৯ হাজার ৬৭১ ডোজ। এর মধ্যে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে ৬ কোটি ৩৭ লাখ ৭১ হাজার ৭৯৫টি। দ্বিতীয় ডোজ পেয়েছেন ৩ কোটি ৭৫ লাখ ৬৭ হাজার ৮৭৬ জন। মোট জনগোষ্ঠীর মধ্যে টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন ৩৭ দশমিক ৭১ শতাংশ আর পূর্ণাঙ্গ ডোজ পেয়েছেন ২২ দশমিক ২২ শতাংশ।

বাংলাদেশে টিকা দেওয়া এখনও ‘যথেষ্ট’ পর্যায়ে যায়নি বলে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এর উপদেষ্টা ডা. মুশতাক হোসেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা এখনও লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বহুদূরে। এ বছরের শেষ নাগাদ যদি জনগোষ্ঠীর ৪০ শতাংশ টিকা পায় তবে সেটা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার লক্ষ্যমাত্রার সঙ্গে মানানসই হবে। আগামী বছরের মাঝামাঝিতে ৭০-৮০ ভাগ মানুষকে টিকা দিতে হবে। তবে যদি এখনকার গতিতে টিকা কার্যক্রম চলে তবে হয়তো এই বছরের শেষ নাগাদ ৪০ শতাংশ টিকার আওতায় আসবে। সেটাও যথেষ্ট হবে না। কারণ ৬০ ভাগ মানুষ টিকার বাইরেই থাকবে। যাদের মধ্যে বয়স্কসহ ঝুঁকিপূর্ণ মানুষরাও থাকবেন।’

ডা. মুশতাক হোসেন আরও বলেন, ‘ইউরোপে এখনও সংক্রমণ বাড়ছে ও মারা যাচ্ছে। তাদের মধ্যে এমনও দেশ আছে যাদের ৬০-৭০ ভাগ মানুষ টিকার আওতায় আছে। আর বাংলাদেশেতো ইউরোপের যেকোনও দেশের চেয়ে জনসংখ্যা বেশি।’

তিনি আরও বলেন, ‘ওমিক্রমনের জন্য ফ্লাইট বন্ধ করার দরকার নেই। যাত্রী ব্যবস্থাপনা করতে হবে। যেসব দেশে কমিউনিটি ট্রান্সমিশন হয়েছে, সেখান থেকে এলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন করতে হবে। এর বিকল্প নেই।’

‘পাবলিক হেলথ করিডোর’ স্থাপন করতে হবে জানিয়ে ডা. মুশতাক বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং আইসিএও (ইন্টারন্যাশনাল সিভিল অ্যাভিয়েশন অর্গানাইজেশন) বলেছে, পাবলিক হেলথ করিডোর স্থাপন করা যেতে পারে।

এদিকে, টিকার লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের পাবলিক হেলথ অ্যাডভাইজারি কমিটির সদস্য আবু জামিল ফয়সাল।

বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, কেবল বিশ্বের তুলনায় নয়, দক্ষিণ এশিয়াতেই আমরা পিছিয়ে আছি অনেক। ভারত ১০০ কোটি টিকা দেবার মাইলফলক স্পর্শ করেছে অনেক আগে। ভুটান, মালদ্বীপ সবাই জনসংখ্যার তুলনায় অনেক এগিয়েছে টিকাদানে।

টিকায় পিছিয়ে থাকার কারণ হিসেবে তিনি বলেন, সময়মতো টিকা পাইনি। শুরু থেকে যদি পাওয়া যেত তবে এতো কম টিকা দেওয়া হতো না।

টিকাদান কর্মসূচিতে পরিকল্পনার অভাবকে দায়ী করেন তিনি। আবু জামিল ফয়সাল বলেন, ‘আমাদের সক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু পরিকল্পনায় ঘাটতি আছে। বিশেষ করে স্থানীয় পর্যায়ের পরিকল্পনায়। ঢাকায় যখন পরিকল্পনা হয়, তখন ঠিক থাকে। কিন্তু স্থানীয় পর্যায়ের মানুষের সঙ্গে সম্পৃক্ততা ও তাদের অংশগ্রহণ করানোর সঠিক পরিকল্পনা হয় না।’

তিনি বলেন, ‘টিকার ক্ষেত্রে বড় অভাব ছিল কূটনীতির। আমরা এখানেই পিছিয়েই আছি।’

 

 

/এফএ/
সম্পর্কিত
দেশের ১২ জেলায় হাই-টেক পার্ক স্থাপনে ঋণ দিচ্ছে ভারত
দেশের ১২ জেলায় হাই-টেক পার্ক স্থাপনে ঋণ দিচ্ছে ভারত
ইসি নিয়োগ বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত
ইসি নিয়োগ বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত
‘অর্ধেক কর্মকর্তা-কর্মচারী দিয়ে অফিস চালানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে’
‘অর্ধেক কর্মকর্তা-কর্মচারী দিয়ে অফিস চালানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে’
অর্ধেক জনবল নিয়ে দাফতরিক কার্যক্রম শুরু
অর্ধেক জনবল নিয়ে দাফতরিক কার্যক্রম শুরু
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
দেশের ১২ জেলায় হাই-টেক পার্ক স্থাপনে ঋণ দিচ্ছে ভারত
দেশের ১২ জেলায় হাই-টেক পার্ক স্থাপনে ঋণ দিচ্ছে ভারত
ইসি নিয়োগ বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত
ইসি নিয়োগ বিলের রিপোর্ট চূড়ান্ত
‘অর্ধেক কর্মকর্তা-কর্মচারী দিয়ে অফিস চালানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে’
‘অর্ধেক কর্মকর্তা-কর্মচারী দিয়ে অফিস চালানোর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কাজ চলছে’
অর্ধেক জনবল নিয়ে দাফতরিক কার্যক্রম শুরু
অর্ধেক জনবল নিয়ে দাফতরিক কার্যক্রম শুরু
আজ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস
আজ ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থান দিবস
© 2022 Bangla Tribune