X
মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২
২১ আষাঢ় ১৪২৯

সারের ভর্তুকিতে লাগবে ৩০ হাজার কোটি টাকা

আপডেট : ১২ এপ্রিল ২০২২, ১৭:০০

এ বছর দেশে সারের ভর্তুকিতে ব্যয় হচ্ছে ৩০ হাজার কোটি টাকা এবং ইতোমধ্যে প্রায় ২৭ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। মঙ্গলবার (১২ এপ্রিল) সচিবালয়ে সার বিষয়ক জাতীয় সমন্বয় ও পরামর্শক কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে কৃষিমন্ত্রী এসব তথ্য জানান।

এ সময় শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বেগম মতিয়া চৌধুরী, সংসদ সদস্য জোয়াহেরুল ইসলাম, কৃষি সচিব মো. সায়েদুল ইসলাম, শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব বলাই কৃষ্ণ হাজরা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘কোভিড পরিস্থিতির প্রভাবে বিশ্বব্যাপী সারের মূল্য অস্বাভাবিক বেড়েছে। অন্যদিকে, ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে সারের সরবরাহ বিঘ্নিত হচ্ছে। সব মিলিয়ে সারের ভর্তুকিতে এ বছর ব্যয় হচ্ছে ৩০ হাজার কোটি টাকা, যা গত বছরের তুলনায় চারগুণ বেশি। বিগত ২০২০-২১ অর্থবছরে ভর্তুকিতে লেগেছিল ৭ হাজার ৭১৭ কোটি টাকা।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) বলেছে, বিশ্বব্যাপী খাদ্যের দাম মার্চ মাসে সর্বোচ্চ পরিমাণ (রেকর্ড) বৃদ্ধি পেয়েছে। সারা বিশ্বে খাদ্য সংকটের আশঙ্কা আরও বেড়েছে। কানাডার মতো উন্নত দেশ, যারা খাদ্য রফতানি করে, সেখানে মানুষ লাইন ধরে রুটির প্যাকেট কিনছে। একজনকে ২ প্যাকেটের বেশি রুটি ও ৫ লিটারের বেশি ভোজ্যতেল দেওয়া হচ্ছে না। পরিবারের সবাই ছেলেমেয়ে নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে রুটি-তেল কিনছে। এ অবস্থায়, দেশে কৃষির উৎপাদন ও ফলন অব্যাহত রাখতে হবে। কোনোক্রমেই খাদ্যের জন্য বিদেশের ওপর নির্ভরশীল হওয়া যাবে না। খাদ্য নিরাপত্তা যাতে বিঘ্নিত না হয়, সেই লক্ষ্যে আমরা কাজ করছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘বছরে সারে ৩০ হাজার কোটি টাকা ভর্তুকি দেওয়া সারা বিশ্বে বিরল ঘটনা। পৃথিবীর কোনও দেশে এত ভর্তুকি দেওয়ার উদাহরণ নেই। ভর্তুকি কমাতে বিশ্বব্যাংকসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার চাপও রয়েছে।’

এর আগে সভায় ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য মোট রাসায়নিক সারের চাহিদা নির্ধারণ করা হয় প্রায় ৬৭ লাখ টন। এরমধ্যে ইউরিয়া ২৬ লাখ টন, টিএসপি ৭ লাখ টন, ডিএপি ১৫ লাখ টন, এমওপি সাড়ে ৭ লাখ টন, জিপসাম সাড়ে ৫ লাখ টন, জিংক সালফেট ১ লাখ  ৪১ হাজার টন এবং বাকিগুলো জিপসাম, বোরন প্রভৃতি।

 

/এসআই/আইএ/এমওএফ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
মমতাকে বড়দিদির মতো সম্মান করি:  মিঠুন চক্রবর্তী
মমতাকে বড়দিদির মতো সম্মান করি:  মিঠুন চক্রবর্তী
ইংল্যান্ডের কাছে হেরে আরও দুঃসংবাদ শুনলো ভারত
ইংল্যান্ডের কাছে হেরে আরও দুঃসংবাদ শুনলো ভারত
ব্লগার দীপুর জামিন স্থগিত
ব্লগার দীপুর জামিন স্থগিত
এ বিভাগের সর্বশেষ
ডাচ কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে ড. রাজ্জাকের বৈঠক  
ডাচ কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে ড. রাজ্জাকের বৈঠক  
রফতানি বাড়িয়ে কৃষিকে উন্নত করতে চাই: কৃষিমন্ত্রী
রফতানি বাড়িয়ে কৃষিকে উন্নত করতে চাই: কৃষিমন্ত্রী
পরিবেশের সঙ্গে অভিযোজনের সক্ষমতা অর্জন করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী
পরিবেশের সঙ্গে অভিযোজনের সক্ষমতা অর্জন করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের বিনামূল্যে বীজ-সার-কীটনাশক দেওয়া হবে: কৃষিমন্ত্রী
বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের বিনামূল্যে বীজ-সার-কীটনাশক দেওয়া হবে: কৃষিমন্ত্রী
বন্যায় ফসলের ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি আছে: কৃষিমন্ত্রী
বন্যায় ফসলের ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার প্রস্তুতি আছে: কৃষিমন্ত্রী