শনাক্ত ১২৩ জনের ৬৪ জনই ঢাকার, ছড়িয়েছে ১৫ জেলায়

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৫:০৩, এপ্রিল ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৪৮, এপ্রিল ০৬, ২০২০

কোভিড-১৯ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ডা. আবুল কালাম আজাদ

স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ জানিয়েছেন, সারাদেশে ১২৩ জন ব্যক্তির শরীরে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ৬৪ জনই ঢাকা মহানগরীর। এর পরের অবস্থানে রয়েছে নারায়ণগঞ্জ। সেখানে শনাক্তের সংখ্যা ২৩ জন। আর সারাদেশে ১৫ জেলার করোনা রোগী পাওয়া গেছে।

সোমবার (৬ এপ্রিল) কোভিড-১৯ নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। 

ডা. আবুল কালাম বলেন, এখন পর্যন্ত মোট নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৪ হাজার ১১টি। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৬৮টি নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৫ জন শনাক্ত হয়েছেন।

তিনি বলেন, ১২৩ জনের মধ্যে এই মুহূর্তে আইইডিসিআরের কাছে তথ্য আছে ১২১ জনের। এর মধ্যে ঢাকায় ৬৪, নারায়ণগঞ্জে ২৩, মাদারীপুরে ১১, চট্টগ্রামে দুই, কুমিল্লায় এক, গাইবান্ধায় পাঁচ, চুয়াডাঙ্গায় এক, গাজীপুরে এক, জামালপুরে তিন, শরীয়তপুরে এক, কক্সবাজারে এক, নরসিংদীতে এক, মৌলভীবাজারে এক, সিলেটে এক, রংপুরে এক এবং ঢাকার মহানগরীর বাইরে চার উপজেলায় চার জন করোনায় আক্রান্ত। সবমিলিয়ে এখন বাংলাদেশে ১৫টি জেলায় করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। তবে যে জায়গায় একাধিক রোগী আছে সেটাকে ক্লাস্টার বলা হয়। ঢাকা মহানগরী, গাইবান্ধা, নারায়ণগঞ্জ ও মাদারীপুর এই এলাকাকে ক্লাস্টার বলা হচ্ছে।

/জেএ/এসটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ