X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

রঙের ছোঁয়ায় নারীর স্বপ্ন

আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:২১

নারী স্বপ্ন দেখে পরাধীনতার শেকল ভেঙে জয়ী হওয়ার। বেগম রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন উপমহাদেশে সেই স্বপ্ন দেখার লড়াইটা শুরু করেছিলেন। তার স্বপ্ন ছিল সমাজে নারী-পুরুষ সমান মর্যাদা আর অধিকার নিয়ে বাঁচবে। সেই স্বপ্নের কথাই তিনি লিখে গেছেন তাঁর গল্প-উপন্যাস-প্রবন্ধগুলোতে। নারীশিক্ষার প্রসারে কাজ করে গেছেন আমৃত্যু। নারী মুক্তি আন্দোলনের অগ্রণী বেগম রোকেয়ার জন্মদিনে তার অনন্য সৃষ্টি ‘সুলতানার স্বপ্ন’ ছোট গল্প থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নারীপক্ষ আয়োজন করেছেন ‘নারীর স্বপ্ন’ শীর্ষক চিত্রকলা প্রদর্শনী। ১৫ বছর থেকে ৭১ বছর বয়সী নারী শিল্পীরা তুলির আঁচড়ে বাংলাদেশি নারীদের একটি নিরাপদ এবং আদর্শ সমাজের স্বপ্নকে ফুটিয়ে তুলেছেন তাদের চিত্রকলায়। বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর পান্থপথে দৃক গ্যালারিতে শুরু হয়েছে এই আয়োজন।

রঙের ছোঁয়ায় নারীর স্বপ্ন

নারীপক্ষ জানায়, এ আয়োজন নারীপক্ষ’র বছরব্যাপী প্রজন্মান্তরে আলাপচারিতার অংশ। এই আয়োজনের মাধ্যমে নারীপক্ষ চেষ্টা করেছে প্রজন্মান্তরে নারীদের সংযোগ গড়ে বাংলাদেশে নারী অধিকার আন্দোলনকে আরও মজবুত করতে। বাংলাদেশ, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা থেকে আমরা অত্যন্ত সৃজনশীল এবং বৈচিত্র্যময় চিত্রকলা পেয়েছি, যেখানে নারীদের চিত্রে ফুটে উঠেছে একটি নিরাপদ এবং আদর্শিক সমাজের স্বপ্ন কিংবা রূপ।

নারী পক্ষের এই আয়োজনের শুরুতে কথা বলেন সংগঠনটির সদস্য ফিরদৌস আজিম। তিনি বলেন, আজকের এই প্রদর্শনীতে ১৫ বছর থেকে ৭১ বছর বয়সী নারীদের স্বপ্নের প্রতিফলন রয়েছে। আমরা সব বয়সে নির্বিশেষে সবাই স্বপ্ন দেখি , স্বপ্ন দেখতে শিখিয়েছেন বেগম রোকেয়া। শুধু স্বপ্ন না , আমরা যদি তার আদর্শকে মাথায় রাখি তাহলে সেই আদর্শকে কেন্দ্র করে আমরা অবশ্যই এগিয়ে যেতে পারবো।

রঙের ছোঁয়ায় নারীর স্বপ্ন

আয়োজকরা জানান, ৩৮ জন নারীর ৫০টি চিত্র প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে। এখানে নির্বাচনে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষক রোকেয়া সুলতানা, মানবাধিকার কর্মী খুশি কবির, কার্টুনিস্ট নাসরিন সুলতানা মিতু এবং চিত্রশিল্পী লিজা হাসান।

বিচারকের প্রতিক্রিয়ায় কার্টুনিস্ট নাসরিন সুলতানা মিতু বলেন, এই কর্মসূচিকে অনেক বেশি প্রাসঙ্গিক মনে হয়েছে আমার কাছে। আমাদের মেয়েরা কি ভাবছে সেটা নিয়ে সবসময় আমাদের শোনার সুযোগ থাকে না। অনেক কিছু মুখে বলার পাশাপাশি লিখেও প্রকাশ করার চেয়ে ছবি একে প্রকাশ করার মধ্যে অনুভূতিগুলো দেখা যায়। বিচারকের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে আমরা প্রথমত মন খারাপ হয়েছে। ছবিগুলো দেখতে গিয়ে মনে হল –আমরা যে স্বপ্নগুলো দেখছি, যেগুলো একে বোঝানোর চেষ্টা করছি তার অনেকগুলো একটা স্বাভাবিক মানুষের জীবনে থাকার কথা। এটা স্বপ্ন হওয়ার কথা না যে তার ওপর নির্যাতন হবে না। একটা স্বাভাবিক মানুষের অধিকার হওয়ার কথা চলার পথ মসৃণ হওয়া। কিন্তু সেখানে আমাদের বলতে হচ্ছে স্বপ্ন। অর্থাৎ এটি আমার নাই। খুব সাধারণ মানুষের যে স্বাভাবিক জীবন থাকার কথা , সুযোগ থাকার কথা তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

রঙের ছোঁয়ায় নারীর স্বপ্ন

বক্তব্যের পর সংগীত পরিবেশন করা হয়। সংগীত পরিবেশন করেন হালিমা পারভিন ও তার দল। সংগীতানুষ্ঠানের পর চিত্রশিল্প প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। আয়োজকরা জানান, ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে এই প্রদর্শনী।

/এসও/এমআর/ 
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
নজরুলজয়ন্তীতে ‘উন্নত মম শির’
নজরুলজয়ন্তীতে ‘উন্নত মম শির’
‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে শস্য সরবরাহে ভয়ঙ্কর ঘাটতি দেখা দেবে’
‘রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে শস্য সরবরাহে ভয়ঙ্কর ঘাটতি দেখা দেবে’
র‌্যাব অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের সাংবাদিক রনি
র‌্যাব অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের সাংবাদিক রনি
আমিরাতে ঈদুল আজহা ৯ জুলাই?
আমিরাতে ঈদুল আজহা ৯ জুলাই?
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
সহকর্মীকে ‘যৌন হয়রানি ’: শিল্পকলার যন্ত্রশিল্পী সাময়িক বরখাস্ত
সহকর্মীকে ‘যৌন হয়রানি ’: শিল্পকলার যন্ত্রশিল্পী সাময়িক বরখাস্ত
‘পছন্দের পোশাক পরা অপরাধ নয়, হেনস্তা করা অপরাধ’
‘পছন্দের পোশাক পরা অপরাধ নয়, হেনস্তা করা অপরাধ’