X
শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২
২২ আশ্বিন ১৪২৯

‘মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি’

মাহফুজ সাদি
১৫ আগস্ট ২০২২, ১১:৩০আপডেট : ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৪:৫২

‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, স্বাধীনতার চেতনায় উজ্জীবিত করেছেন, মুক্তির পথ দেখিয়েছেন। বাঙালির মহান নেতার প্রতি প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি।’

সোমবার (১৫ আগস্ট) ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে দাঁড়িয়ে কথাগুলো বলছিলেন বাংলাদেশ স্কাউটের সদস্য ফাহিম হাসান। সে বিসিএসআইআর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র। তার সঙ্গে রয়েছে বাংলাদেশ স্কাউটের অন্য সদস্যরা।

জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ঐতিহাসিক ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে কুমিল্লার লাঙ্গকোট থেকে এসেছেন ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ শামসুল হক চিশতী। নিজেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিচয় দিয়ে তিনি বলেন, ‘একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। আমরা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশকে স্বাধীন করেছি, এই অর্জন রক্ষা করা সন্তানদের দায়িত্ব।’

কুমিল্লার লাঙ্গলকোট থেকে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ শামসুল হক চিশতী

আক্ষেপ করে তিনি বলেন, ‘দেশ স্বাধীন করলেও আমরা বঙ্গবন্ধুকে বাঁচাতে পারিনি। আমাদের নেতাকে বিশ্বাস ঘাতকরা নির্মমভাবে হত্যা করেছে। এটি আমাকে বেদনা দেয়। তাই প্রতি বছর ১৫ আগস্ট নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আসি।’

শুধু ফাহিম হাসান কিংবা শামসুল হক চিশতী নন, জাতির এই শোকের দিনে স্বাধীনতার মহান স্থপতিকে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। সোমবার (১৫ আগস্ট) ভোর থেকেই আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা এবং সর্বস্তরের মানুষ বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনের রাস্তায় জমায়েত হতে থাকে।

সকাল সাড়ে ৬টায় প্রথমে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা অনার গার্ড প্রদান করেন। বিউগলে বেজে ওঠে করুণ সুর। এর পর প্রধানমন্ত্রী ফাতেহা পাঠ এবং মোনাজাতে অংশ নেন। পরে আওয়ামী লীগের সভাপতি হিসেবে আবারও শেখ হাসিনা মন্ত্রিসভার সদস্য ও দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের আগেই অগণিত মানুষের পদচারণায় মুখরিত হয়ে ওঠে ৩২ নম্বর সড়ক। হাতে কালো ব্যানার ও বুকে কালোব্যাজ পরিধান করে নারী-পুরুষ, স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, শিশু-কিশোরসহ সর্বস্তরের মানুষ। প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সকাল ৭টা থেকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ বঙ্গবন্ধুকে শ্রদ্ধা জানানো শুরু করেন। একে একে সবাই পরম শ্রদ্ধায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে জাতির পিতাকে স্মরণ করেন। 

‘মহান নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি’

দুই সন্তানকে নিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছিলেন ব্যাংকার কাজী মোস্তাফিজুর রহমান। দুই মেয়ে কাজী মুনতাহা ও কাজী আরাবিকের সঙ্গে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বেরিয়ে যাওয়ার পথে কথা হয় এই প্রতিবেদকের সঙ্গে। রাজধানীর মগবাজার থেকে আসা কাজী মোস্তাফিজ জানান, তার এই দুই সন্তান ইস্পাহানি গার্লস স্কুল ও কলেজে পড়াশুনা করে। এর মধ্যে মুনতাহা তৃতীয় শ্রেণি এবং আরাবি দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ে।

এত অল্প বয়সে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধানাতে আসার পেছনে কে উৎসাহিত করেছেন, জানতে চাইলে মুনতাহা ও আরাবির উত্তর, বাবার কাছে বঙ্গবন্ধুর গল্প শুনেছে তারা। তিনি দেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে নেতৃত্ব দেওয়ায় আজ শ্রদ্ধা জানাতে এসেছে। এ ক্ষেত্রে বাবা তাদের পথ দেখিয়েছে।

দুই সন্তানকে নিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে এসেছিলেন ব্যাংকার কাজী মোস্তাফিজুর রহমান

বিষয়টি নিয়ে জানতে চাইলে কাজী মোস্তাফিজুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সন্তানদের উজ্জীবিত করতে সন্তানদের উৎসাহিত করছেন তিনি। তার বাবা বাগেরহাটের মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ছিলেন। তার কারণে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা জন্মায়, যা এখন তৃতীয় প্রজন্ম হিসেবে সন্তানদের মাঝে সঞ্চালিত করছেন তিনি।

পুরান ঢাকার আর্মানিটোলা থেকে আসা ছেলে-মেয়েকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছেন আব্দুল কাদের মিয়া। তিনি বলছিলেন, প্রতি বছর মার্চ, আগস্ট ও ডিসেম্বর মাস এলে সন্তানরা তার কাছে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে জানতে চায়। তাদের প্রকৃত ইতিহাস জানাতে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করি। এ সংক্রান্ত বই-পুস্তকও কিনে দিয়েছি। এবার বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চাইলে সঙ্গে করে নিয়ে এসেছি।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার ১৫ আগস্টে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোতে আসা লোকজনের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে অনেককে শ্রদ্ধা জানাতে দেখা যায়।  

/ইউএস/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
সাগরকন্যায় পর্যটকদের ভিড়, হোটেল-মোটেল খালি নেই
সাগরকন্যায় পর্যটকদের ভিড়, হোটেল-মোটেল খালি নেই
রহিমা অপহরণ মামলায় গ্রেফতার হেলাল শরীফও জামিনে মুক্ত
রহিমা অপহরণ মামলায় গ্রেফতার হেলাল শরীফও জামিনে মুক্ত
হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর প্রতি ভালোবাসার নিদর্শন হিসেবে আমরা কী করতে পারি?
হজরত মুহাম্মদ (সা.)-এর প্রতি ভালোবাসার নিদর্শন হিসেবে আমরা কী করতে পারি?
মিরাজ এনে দিলেন প্রথম উইকেট
মিরাজ এনে দিলেন প্রথম উইকেট
বাংলাট্রিবিউনের সর্বাধিক পঠিত
প্রস্তুত হন, চেরাগ জ্বালিয়ে চলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
প্রস্তুত হন, চেরাগ জ্বালিয়ে চলতে হবে: প্রধানমন্ত্রী
আলিবাবার জ্যাক মা পারলে আমরা পারবো না কেন: শামীমা নাসরিন
আলিবাবার জ্যাক মা পারলে আমরা পারবো না কেন: শামীমা নাসরিন
গোলমাল বাধলে ঘর স্ত্রীর নামে যাবে, স্বামীর নামে না: প্রধানমন্ত্রী
গোলমাল বাধলে ঘর স্ত্রীর নামে যাবে, স্বামীর নামে না: প্রধানমন্ত্রী
প্রভাসের সিনেমাটি নিষিদ্ধের দাবি, সঙ্গে নকলের অভিযোগ!
প্রভাসের সিনেমাটি নিষিদ্ধের দাবি, সঙ্গে নকলের অভিযোগ!
‘জঙ্গিবাদে জড়িয়ে ভুল বুঝতে পেরে চলে আসি’
‘জঙ্গিবাদে জড়িয়ে ভুল বুঝতে পেরে চলে আসি’