X
মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪
২১ ফাল্গুন ১৪৩০

শ্রমিকদের গ্রেফতার-হয়রানি বন্ধসহ ৮ দাবি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
১৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৮:৩১আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০২৩, ১৮:৩১

গণহারে শ্রমিক ও শ্রমিক নেতাদের গ্রেফতার-হয়রানি বন্ধসহ আট দফা দাবি জানিয়েছে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এবং একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন।

রবিবার (১৯ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এবং একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন আয়োজিত ‘গার্মেন্টস শ্রমিক প্রতিবাদী’ মানববন্ধনে এসব দাবি জানান শ্রমিক নেতারা।

মানববন্ধনে জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশন এবং ইন্ড্রাস্ট্রিঅল বাংলাদেশ  কাউন্সিলের সভাপতি ও আমিরুল হক আমিন বলেন, ‘চলমান মজুরি আন্দোলনে আমাদের ওপর সব ধরনের হামলা করা হয়েছে। হামলা-মামলা, গ্রেফতার হয়রানি থেকে শুরু করে শ্রমিকদের হত্যা করা হয়েছে। আমাদের শ্রমিকদের ছাঁটাই করা হচ্ছে। কিন্ত আমাদের মজুরি বাড়েনি। বাংলাদেশের শ্রম আইনে লেখা আছে, যে সংগঠনে সবচেয়ে বেশি শ্রমিক থাকবে তারা মজুরি নির্ধারণের বোর্ডে থাকবে। অথচ গত মাসে মজুরি নির্ধারণী বোর্ডের সভায় শ্রমিক পক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে আমাদের রাখা হয়নি। সরকার এমন একজনকে প্রতিনিধি হিসেবে নিয়েছেন, যিনি কোনও শ্রমিককে প্রতিনিধিত্ব করেন না। যিনি শ্রমিকদের কষ্ট বোঝেন না। আমাদের শ্রমিক হত্যার সঠিক বিচার করতে হবে। গ্রেফতারদের মুক্তি দিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘সাত দিনের মধ্যে গার্মেন্টস শিল্পে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে না আনলে তার দায়-দায়িত্ব গার্মেন্টস মালিকদের এবং সরকারকে বহন করতে হবে। একইসঙ্গে গার্মেন্টস শিল্প আন্তর্জাতিকভাবে তার সুনাম হারাবে। যার মাশুল দিতে হবে পুরো বাংলাদেশকে।’

এ সময় চলমান মজুরি আন্দোলনে শ্রমিকদের ওপর হয়রানির চিত্র তুলে ধরে একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক কামরুক হাসান বলেন, ‘এ পর্যন্ত আমাদের চার জন শ্রমিককে হত্যা করা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ১১৫ জনকে।’

মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে আট দফা দাবি তুলে ধরা হয়। তাদের দাবিগুলো হলো–

গণহারে শ্রমিক ও শ্রমিক নেতাদের গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে; সব মামলা প্রত্যাহার করতে হবে এবং গ্রেফতার নেতা ও শ্রমিকদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে; ১৩ (১) ধারায় বন্ধ রাখা কারখানার শ্রমিকদের পূর্ণ মজুরি দিতে হবে, এ জন্য কোনও শ্রমিকের মজুরি কম দেওয়া যাবে না; বন্ধ কারখানা অবিলম্বে খুলে দিতে হবে; কোনও শ্রমিককে কালো তালিকাভুক্ত করা যাবে না; যেসব শ্রমিক আহত হয়েছেন তাদের চিকিৎসা সেবা দিতে হবে এবং যেসব শ্রমিক নিহত হয়েছেন তাদের পরিবারকে লস অব ইয়ার আর্নিং হিসেবে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে; চার জন শ্রমিক হত্যার ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত, দায়ীদের গ্রেফতার-বিচার ও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে আই এল ও কনভেনশন ১২১ অনুসারে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে এবং ঘোষিত মজুরি পুনর্বিবেচনা করতে হবে।

মানববন্ধনে আরও ছিলেন– একতা গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সহ-সভাপতি সীমা আক্তার, দফতর সম্পাদক লোকমান আলী, জাতীয় গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

/এএজে/আরকে/
সম্পর্কিত
৭ তারিখের মধ্যে বেতনের দাবিতে সড়কে পোশাক শ্রমিকরা
‘এমন অযাচিত দুর্ঘটনায় আর কোনও প্রাণ যেন না হারায়’
‘স্মার্ট পোস্টাল সার্ভিস পয়েন্টে’ দক্ষ উদ্যোক্তাদের বহাল রাখার দাবি
সর্বশেষ খবর
দুই ভাগে রাজাকারের তালিকা হচ্ছে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী
দুই ভাগে রাজাকারের তালিকা হচ্ছে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী
চুরির ৭ মাস পর সেই নবজাতক উদ্ধার, ভাড়াটিয়াসহ গ্রেফতার ২
চুরির ৭ মাস পর সেই নবজাতক উদ্ধার, ভাড়াটিয়াসহ গ্রেফতার ২
শাহবাজকে অভিনন্দন জানালেন মোদিসহ বিশ্ব নেতারা
শাহবাজকে অভিনন্দন জানালেন মোদিসহ বিশ্ব নেতারা
পণ্য মজুত করলে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী
পণ্য মজুত করলে বিশেষ ক্ষমতা আইনে ব্যবস্থা: আইনমন্ত্রী
সর্বাধিক পঠিত
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
শিক্ষামন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি খেলাফত মজলিসের
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
বাংলাদেশ ভ্রমণ শেষে ভারতে গিয়েই সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ব্রাজিলিয়ান তরুণী
সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ
সাত মসজিদ রোডের সব বুফে রেস্তোরাঁ বন্ধ
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
ইউক্রেন অবশ্যই রাশিয়ার অংশ: পুতিন মিত্র
রাশিয়ায় হামলার পরিকল্পনা করছে জার্মানির সেনারা?
রাশিয়ায় হামলার পরিকল্পনা করছে জার্মানির সেনারা?