X
মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪
১০ বৈশাখ ১৪৩১

সেই ঢাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে আবারও যৌন হয়রানির অভিযোগ

ঢাবি প্রতিনিধি
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৯:২৭আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২০:৩৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে আবারও যৌন হয়রানি ও মানসিক নিপীড়নের অভিযোগ উঠেছে। রাজধানীর একটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এক নারী শিক্ষার্থী এ অভিযোগ এনেছেন। অধ্যাপক নাদির জুনাইদ ‘অতিথি শিক্ষক’ হিসেবে সেখানে একটি কোর্স পড়িয়েছিলেন।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. মাকসুদুর রহমানের কাছে অভিযোগপত্র দেন ওই শিক্ষার্থী। অধ্যাপক মাকসুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অভিযোগপত্রে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে বিয়ের কথা বলে দিনের পর দিন অশ্লীল কথোপকথন, কথা বলতে না চাইলে শ্রেণিকক্ষে মানসিক নিপীড়ন, ধর্মচর্চা, পোশাক ও গ্রাম থেকে আসা শিক্ষার্থীদের নিয়ে অশালীন মন্তব্য করার অভিযোগ এনেছেন।

অভিযোগপত্রে অধ্যাপক নাদির জুনাইদকে ‘মানসিক বিকারগ্রস্ত’ ও ‘সিরিয়াল হ্যারাসার’ বলেও আখ্যা দেন অভিযোগকারী। ওই শিক্ষার্থী দাবি করেন, তিনি নিজেই অন্তত আরও তিন জন শিক্ষার্থীর কথা জানেন, যাদের অধ্যাপক নাদির জুনাইদ বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন এবং একইভাবে প্রতারণা করেছেন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগপত্রে বলেন, (ঘটনার সময়) আমি ক্লাসের শিক্ষার্থী প্রতিনিধি হওয়ায় অধ্যাপক নাদির জুনাইদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হতো। প্রথমত তিনি নিয়মিত আমাকে ফোন দিতেন। ব্যক্তিগত অনেক তথ্য জিজ্ঞেস করতেন। এমনও জিজ্ঞেস করেছেন, আমার বয়ফ্রেন্ড আছে কিনা। এসব নিয়ে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কথা বলতে চাইতেন।

তিনি বলেন, আমাকে যখন এভাবে ফোন বা ভিডিও কল দিতেন, খুবই বিব্রত হতাম। আমি প্রায়ই তার ফোন না ধরার চেষ্টা করতাম, কিন্তু সেটার নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া পরবর্তী ক্লাসে দেখা যেতো। ফোন না ধরায় আমাকে ক্লাসে নানাভাবে হেনস্তা করতে চাইতেন। ক্লাসে এভাবে হেনস্তার পর আবারও আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতেন।

ওই শিক্ষার্থী আরও অভিযোগ করেন, অনেকটা বাধ্য হয়ে স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করে তার ফোন এবং ভিডিও কল রিসিভ করতাম। তখন ভিডিও কলে বলতেন, একটু তোমার চেহারাটা দেখি, তোমার চুলটা একটু দেখি, তোমার জুম পিক দেখি।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী অভিযোগপত্রে আরও লেখেন, তিনি আমাকে শারীরিক স্পর্শ বা সেরকম কিছু করেননি। কিন্তু বিয়ের কথা বলে আমার সঙ্গে দীর্ঘদিন কথোপকথন চালিয়ে গেছেন। তিনি প্রায় অশ্লীল কথাবার্তা বলতেন। নানা রকম যৌন উত্তেজনামূলক কথা বলতে চাইতেন। সবসময় অন্তরঙ্গ কথা বলার প্রতি বিশেষ আগ্রহ থাকতো। শরীরের স্পর্শকাতর জায়গা নিয়ে প্রশ্ন করতেন। পোশাক নিয়েও অযাচিত মন্তব্য করতেন। বলতেন, আমি কেন ওয়েস্টার্ন ড্রেস পরি না। কেন বাংলাদেশের মেয়েদের পোশাক এত বাজে?

অভিযোগপত্রে তিনি লেখেন, নানারকম অশ্লীল কথাবার্তা তিনি (অধ্যাপক নাদির জুনাইদ) গল্প আকারে বলতেন। যেমন কোন সিনেমায় নায়ক নায়িকা কীভাবে অন্তরঙ্গ হলো, নায়ক নায়িকার সঙ্গে কী কী করলো, এসব খুব আগ্রহ নিয়ে আমাকে শোনাতেন এবং নানাভাবে বোঝাতেন যে তিনি এসব করতে চান। আমাকে বলতেন, ‘ধর না, আমরাও এমন করছি...’। এসব ঘটনায় মানসিক বিপর্যস্ত হয়ে তাকে সাইকোলজিস্টের কাছে যেতে হয়েছিল বলেও উল্লেখ করেন ওই ছাত্রী।

তিনি উল্লেখ করেন, অধ্যাপক নাদির জুনাইদ শুরুতে যারা 'ভালনারেবল' মেয়ে, অর্থাৎ দেখতে সুন্দর, কিন্তু জীবনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অনিরাপত্তায় ভোগে বা দ্বিধান্বিত, তাদের টার্গেট করেন। একপর্যায়ে নানান ছল-ছুতোয় তাদের সঙ্গে ব্যক্তিগত যোগাযোগ গড়ে তোলেন এবং ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন। সুযোগ বুঝে বিয়ের প্রস্তাবও দেন। কিন্তু এটা শুধুই একটা ফাঁদ। কেননা, তিনি একজন অধ্যাপক, আর্থিক নিরাপত্তা অত্যন্ত সুদৃঢ়, দেখতে সুদর্শন; স্বাভাবিকভাবে মেয়েরা তার দিকে আকৃষ্ট হয়। এটাকে ব্যবহার করেই তিনি সবার সঙ্গে এমন সম্পর্ক গড়ে তোলেন।

ভুক্তভোগী লেখেন, ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্কের আড়ালে পুরো ব্যাপারটা তিনি এমনভাবে মঞ্চস্থ করেন, যেন তার বিরুদ্ধে কোনও প্রমাণ না থাকে, তাকে দোষী বানানো না যায়। এটি প্রতিষ্ঠিত করতে শিক্ষার্থীদের তিনি তার বাড়িতেও নিমন্ত্রণ জানান বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেন ওই শিক্ষার্থী।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে অধ্যাপক নাদির জুনাইদের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত, গত ৭ ফেব্রুয়ারি নম্বর কম দেওয়া নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের স্নাতকোত্তরের ১২তম ব্যাচের কিছু শিক্ষার্থীর অভিযোগের পর ১০ ফেব্রুয়ারি অধ্যাপক নাদির জুনাইদের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ এনে প্রক্টরের কাছে লিখিত দেন বিভাগের এক নারী শিক্ষার্থী।

আরও পড়ুন-

ঢাবি অধ্যাপককে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠালো কর্তৃপক্ষ

/আরআইজে/এমওএফ/
সম্পর্কিত
ভ্যাপসা গরমে জীবন চরমে ঢাবির গণরুমের শিক্ষার্থীদের
‘মুজিবনগর সরকারের মাধ্যমেই বিশ্বে বাংলাদেশ পরিচিতি লাভ করে’
প্লাস্টিক দূষণ বন্ধের দাবিতে মুকাভিনয় ও অবস্থান কর্মসূচি
সর্বশেষ খবর
তীব্র গরমের মধ্যে আগুনে পুড়লো চাঁদপুরের ১৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান
তীব্র গরমের মধ্যে আগুনে পুড়লো চাঁদপুরের ১৪টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান
ঘাম কম হবে এই ১০ টিপস মানলে
ঘাম কম হবে এই ১০ টিপস মানলে
সকাল থেকে চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন না ডাক্তাররা, রোগীদের দুর্ভোগ
সকাল থেকে চট্টগ্রামে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন না ডাক্তাররা, রোগীদের দুর্ভোগ
মালয়েশিয়ায় দুটি হেলিকপ্টারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১০ জন নিহত
মালয়েশিয়ায় দুটি হেলিকপ্টারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১০ জন নিহত
সর্বাধিক পঠিত
সিলিং ফ্যান ও এসি কি একসঙ্গে চালানো যাবে?
সিলিং ফ্যান ও এসি কি একসঙ্গে চালানো যাবে?
আজকের আবহাওয়া: ৩ বিভাগে বৃষ্টির আভাস এবং কোথায় কেমন গরম পড়বে
আজকের আবহাওয়া: ৩ বিভাগে বৃষ্টির আভাস এবং কোথায় কেমন গরম পড়বে
টাকা উড়ছে রেস্তোরাঁয়, নজর নেই এনবিআরের
টাকা উড়ছে রেস্তোরাঁয়, নজর নেই এনবিআরের
রাজকুমার: নাম নিয়ে নায়িকার ক্ষোভ!
রাজকুমার: নাম নিয়ে নায়িকার ক্ষোভ!
সাবেক আইজিপি বেনজীরের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান করবে দুদক
সাবেক আইজিপি বেনজীরের অবৈধ সম্পদের অনুসন্ধান করবে দুদক