X
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
৫ বৈশাখ ১৪৩১

চাঁদাবাজি ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় ঢাবির ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ঢাবি প্রতিনিধি
০৪ মার্চ ২০২৪, ২২:০৫আপডেট : ০৪ মার্চ ২০২৪, ২২:০৫

চাঁদাবাজি ও ছিনতাইসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কাজে জড়িত থাকার দায়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাত শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়াও ক্যাম্পাসে ভাসমান দোকান বসিয়ে চাঁদা নেওয়ায় প্রক্টরিয়াল টিমের এক সদস্যকে স্থায়ী বহিষ্কার ও ছয়জনকে শোকজ করা হয়েছে।

রবিবার (৩ মার্চ) সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা পরিষদের সুপারিশ মেনে এ সব সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। মিটিংয়ে উপস্থিত থাকা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সিন্ডিকেট সদস্য বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এছাড়া আরও তিন শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে প্রশাসন।

সিন্ডিকেট কমিটির সদস্য জানায়, গত জানুয়ারিতে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এক নারী ও তার ভাইকে এলোপাথাড়ি মারধর ও টাকা ছিনতাই করায় ফলিত গণিত বিভাগের ও ফজলুল হক মুসলিম হলের মো. আযহা ইসলাম, সংগীত বিভাগের ও শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের মর্তুজা হাসান খান (ফাহিম), মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হল ও ইতিহাস বিভাগের মো. আজিম মাহমুদ তওসিফ এবং সূর্যসেন হল ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ছাত্র মো. রিয়াদ ওরফে রিসাতকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। তাদেরকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে এ মর্মে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। তাদের নামে শাহবাগ থানায় মামলা হয়েছিল। তারা সবাই ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র।

গত ডিসেম্বরে শহীদ শাহনেওয়াজ ছাত্রাবাসে রাজধানীর এক কলেজের শিক্ষার্থীকে চেয়ারের সাথে হাত পা বেঁধে নির্যাতন করে দশ হাজার টাকা ছিনতাই ও ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবিতে জড়িত থাকায় চারুকলা অনুষদের মৃৎশিল্প বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের জাহিদ শেখ ও মো. শাহরিন ইসলামকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদেরকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না মর্মে ৭ কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়েছে। এর আগে এ ঘটনায় লালবাগ থানায় মামলা হয়েছিল।

বহিষ্কৃতদের বহিষ্কারের বিষয়টি তাদের স্থানীয় অভিভাবক ও পরিবার এবং সংশ্লিষ্ট থানায় জানানো হবে। এ সময়ে তারা হলে অবস্থান করলে হল প্রশাসন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেবে বলে জানান সিন্ডিকেট সদস্য।

সিন্ডিকেট সদস্য জানান, ফেসবুকে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী সংসদ’ নামে একটি গ্রুপে বিশ্ববিদ্যালয়ের মলচত্বরে নির্মাণাধীন শতবার্ষিক মনুমেন্ট নিয়ে এক ভিডিও আপলোড করেন ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র আব্দুল ওহেদ। সেখানে অশ্রাব্যভাষায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশীজন, গণমাধ্যমকর্মীদের গালিগালাজ করায় তাকে এক বছরের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এ সময়ে তাকে টিএসসির ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতরে নিয়মিত কাউন্সেলিং নিতে হবে এবং তার মানসিক মূল্যায়ন বিবেচনায় শাস্তি কমানো হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়।

পাশাপাশি অ্যানোনিমাস পোস্টের বিষয়ে ফেসবুক গ্রুপটির অ্যাডমিন ও মডারেটরদের প্রক্টর অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে জানান ওই সিন্ডিকেট সদস্য।

এ দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, হাজী মুহম্মদ মুহসীন হলে এক ব্যবসায়ীকে বাসা থেকে তুলে এনে হলে আটকে রেখে নির্যাতন করায় হাতিরঝিল থানায় মামলা হয়েছিল। এ ঘটনায় জড়িত তিন শিক্ষার্থী মুহসীন হল শাখা ছাত্রলীগের উপপ্রচার সম্পাদক ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মোনতাছির হোসাইন এবং ত্রাণ ও দুর্যোগবিষয়ক উপসম্পাদক আল শাহরিয়ার মাহমুদ ওরফে তানসেন, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক উপদফতর সম্পাদক ফিন্যান্স বিভাগের মোহাম্মদ আবুল হাসান সাঈদিকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তাদেরকে কেন স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে না- এ মর্মে শোকজ করা হয়েছে। সাত কার্যদিবসের মধ্যে তার জবাব দিতে বলা হয়েছে।

গত বছর সংবাদমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের প্রেক্ষিতে প্রশাসন থেকে গঠিত তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে প্রক্টর অফিসের টোকেনম্যান মো. শামীম হোসেনের বিরুদ্ধে চাঁদা গ্রহণের পর্যাপ্ত তথ্য প্রমাণ পাওয়া যাওয়ায় তাকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়।

এ ছাড়া শামীম হোসেনের সহযোগী কিষান চন্দ্র দাস, অমিত সরকার, শ্রী শুদর্শন হালদার, মো. মাসুম শেখ, মো. রফিক গাজী এবং মো. মিঠু মীরের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির সহযোগিতার প্রমাণিত হওয়ায় তাদেরকে শোকজ করা হবে। বিষয়টি আরও ভালোভাবে খতিয়ে দেখতে আরেকটি তদন্ত কমিটি করে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

/এমএস/
সম্পর্কিত
সাক্ষীতেই আটকে আছে বর্ষবরণে যৌন হয়রানি মামলার বিচার
মঙ্গল শোভাযাত্রা ১৫ মিনিট পেছালো
বর্ষবরণে চারুকলায় শেষ মুহূর্তের ব্যস্ততা
সর্বশেষ খবর
গরু অথবা মাংস আমদানির বিকল্প কী?
গরু অথবা মাংস আমদানির বিকল্প কী?
ক্রিমিয়ায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের দাবি ইউক্রেনের
ক্রিমিয়ায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের দাবি ইউক্রেনের
প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে উদ্যোক্তা হিসেবে দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী
প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে উদ্যোক্তা হিসেবে দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী
গরমে হাসপাতালে বাড়ছে ডায়রিয়া রোগী
গরমে হাসপাতালে বাড়ছে ডায়রিয়া রোগী
সর্বাধিক পঠিত
এএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
রেস্তোরাঁয় ‘মদ না পেয়ে’ হামলার অভিযোগএএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
রাজধানীকে ঝুঁকিমুক্ত করতে নতুন উদ্যোগ রাজউকের
রাজধানীকে ঝুঁকিমুক্ত করতে নতুন উদ্যোগ রাজউকের
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫
ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ নিয়ে জাতিসংঘে ভোট
ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ নিয়ে জাতিসংঘে ভোট