X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

‘বঙ্গবন্ধুর আন্দোলন মানুষকে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিতে উৎসাহিত করেছিল’

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৮ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৯আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২৪, ০১:৩৯

প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী (বীর বিক্রম) বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর আন্দোলনের গভীরতা ও ব্যাপকতা আপামর মানুষকে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণে উৎসাহিত করেছিল। ২৬ মার্চ স্বাধীনতার ঘোষণা আসার আগে থেকে বাংলার মেহনতি মানুষ প্রস্তুত ছিল। মূলত ৭ মার্চের ভাষণই আমাদের প্রস্তুত করেছে।

বুধবার (২৭ মার্চ) ‘২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০২৪' উপলক্ষে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় আয়োজিত ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক নেতৃত্ব এবং দেশের উন্নয়ন’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

এই উপদেষ্টা বলেন, ’৫২-এর ভাষা আন্দোলন আমাদের আত্মোপলদ্ধির সূচনা করেছে। এই উপলব্ধি পাকিস্তানের শাসন-শোষণ সম্পর্কে সচেতন করেছে, যা পরবর্তিতে ছয় দফার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। আর এই ছয় দফায় নিহিত ছিল স্বাধীনতার মূলমন্ত্র। বঙ্গবন্ধুর বিরল নেতৃত্ব আমাদের ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীন একটি দেশে দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এ দেশে শত্রু আগে ছিল, এখনও আছে, সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ভালোভাবে কাজ করে দেশকে আরও এগিয়ে নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর হাতকে আমরা যত শক্তিশালী করবো, দেশটা তত দ্রুত এগিয়ে যাবে।

ভার্চুয়াল সভায় অন্যদের মাঝে বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি মু. জিয়াউর রহমান এমপি, বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ গবেষণা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান (সিনিয়র সচিব) মো. মোকাব্বির হোসেন, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব মো. নুরুল আলম, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের চেয়ারম্যান এ বি এম আজাদ, এনডিসি, পিডিবির চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুর রহমান এবং পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান জনেন্দ্র নাথ সরকার সংযুক্ত থেকে বক্তব্য দেন।

/এসএনএস/এনএআর/
সম্পর্কিত
‘বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর অবদান অনস্বীকার্য’
আরও আঞ্চলিক কেন্দ্র করবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়
বঙ্গবন্ধু শান্তি পদক দেবে সরকার, অর্থমূল্য এক লাখ ডলার
সর্বশেষ খবর
এমপি আজীমের লাশের খণ্ডাংশের খোঁজে তল্লাশি, চলবে শনিবারও
এমপি আজীমের লাশের খণ্ডাংশের খোঁজে তল্লাশি, চলবে শনিবারও
এমপি আনার হত্যায় অংশ নেওয়া এই ট্রাকচালক কে?
এমপি আনার হত্যায় অংশ নেওয়া এই ট্রাকচালক কে?
রাফাহ নিয়ে আইসিজের নির্দেশকে স্বাগত জানালো হামাস
রাফাহ নিয়ে আইসিজের নির্দেশকে স্বাগত জানালো হামাস
বহিষ্কারেও থামছেন না রংপুরের বিএনপির নেতাকর্মীরা
বহিষ্কারেও থামছেন না রংপুরের বিএনপির নেতাকর্মীরা
সর্বাধিক পঠিত
নেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
এমপি আজীম হত্যাকাণ্ডনেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
আদালতে কেঁদে সিলিস্তার প্রশ্ন, আমি কীভাবে আসামি হলাম?
আদালতে কেঁদে সিলিস্তার প্রশ্ন, আমি কীভাবে আসামি হলাম?
এমপি আজিমের খণ্ডিত মরদেহ উদ্ধারের দাবি কলকাতা পুলিশের
এমপি আজিমের খণ্ডিত মরদেহ উদ্ধারের দাবি কলকাতা পুলিশের
যুদ্ধবিমান উড্ডয়নের নির্দেশ তাইওয়ানের
যুদ্ধবিমান উড্ডয়নের নির্দেশ তাইওয়ানের
পশ্চিম তীরে দূতাবাস খোলার নির্দেশ কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্টের
পশ্চিম তীরে দূতাবাস খোলার নির্দেশ কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্টের