ভোক্তাদের অভিযোগ শুনতে হটলাইন চালুর নির্দেশ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৬:৫০, জুন ১৬, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:৪০, জুন ১৬, ২০১৯

হাইকোর্ট

ভোক্তাদের অভিযোগ শুনতে দুই মাসের মধ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরকে হটলাইন চালুর নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।
তবে এ সময়ের মধ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ‘০১৭৭৭৫৩৬৬৮’ নম্বরটি ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে জাতীয় হটলাইন ‘৯৯৯’ এবং প্রধানমন্ত্রীর দফতরের হটলাইন ‘৩৩৩’-এ অভিযোগ জানানোর ব্যবস্থা রাখারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হকের উপস্থিতিতে রবিবার (১৬ জুন) বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।
এর আগে মাহফুজুল হককে তলব করেছিলেন আদালত। এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে হাজির হন তিনি।
আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী শিহাব উদ্দিন খান। বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফরিদুল ইসলাম এবং বিএসটিআই-এর পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার এম আর হাসান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেছুর রহমান।
শুনানির সময় আদালতের আদেশ সত্ত্বেও হাজির না হওয়ায় ক্ষমাপ্রার্থনা করেন খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মাহফুজুল হক। আদালত তার প্রার্থনা মঞ্জুর করে তাকে আগামী দুই মাসের মধ্যে ভোক্তা অধিকার সুরক্ষায় একটি হটলাইন চালুর নির্দেশ দেন।
তবে এ সময়ের মধ্যে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের ‘০১৭৭৭৫৩৬৬৮’ নম্বরটি ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখার নির্দেশ দেন আদালত। এ নম্বরটি এতদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকতো। এর পাশাপাশি ভোক্তাদের অভিযোগ শুনতে জাতীয় হটলাইন ‘৯৯৯’ এবং প্রধানমন্ত্রীর দফতরের হটলাইন ‘৩৩৩’-এ অভিযোগ জানানোর ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ৩ মে ও ৪ মে বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়, বিএসটিআই সম্প্রতি ২৭ ধরনের ৪০৬টি খাদ্যপণ্যের নমুনা সংগ্রহের পর পরীক্ষা করে। এর মধ্যে ৩১৩টি পণ্যের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে, যেখানে ৫২টি প্রতিষ্ঠানের পণ্য নিম্নমানের; এগুলোতে ভেজাল রয়েছে।
পরে এক রিটের শুনানি নিয়ে গত ১২ মে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্স অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) পরীক্ষায় প্রমাণিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি ভেজাল ও নিম্নমানের পণ্য বাজার থেকে যত দ্রুত সম্ভব প্রত্যাহারের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরকে এ নির্দেশ পালন করে ১০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে বলেন আদালত। পাশাপাশি যথাযথ আইন অনুসারে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দেওয়া হয়।
এছাড়া ভেজাল পণ্যগুলোর মানোন্নয়ন না হওয়া পর্যন্ত তা উৎপাদন ও বাজারজাত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন আদালত। কিন্তু আদালতের এ আদেশ প্রতিপালন না করায় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে তলব করেন হাইকোর্ট।

/বিআই/এইচআই/এমএমজে/

লাইভ

টপ