ইউরোপের দৃষ্টিনন্দন সড়ককেও হার মানায় দেশের যে এক্সপ্রেসওয়ে (ফটোফিচার)

Send
নাসিরুল ইসলাম
প্রকাশিত : ১৮:১১, অক্টোবর ২০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:২৫, অক্টোবর ২০, ২০২০

প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত বিশ্বমান সমৃদ্ধ মহাসড়কের নাম এক্সপ্রেসওয়ে। দেশের সব মহাসড়কে বিরতিহীনভাবে যাত্রী ও পণ্য পরিবহন করা সম্ভব হয় না। এর প্রধান কারণ, এসব মহাসড়কে আছে প্রতিবন্ধকতা ও একের পর এক মোড়। মহাসড়কের পাশে আছে হাটবাজার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, গড়ে উঠেছে বাড়িঘর। এসব কারণে মহাসড়কে চলাচলকারী যানবাহন নির্দিষ্ট গতিতে চলতে পারে না। ফলে গন্তব্যে পৌঁছানোর বিষয়টি থাকে অনিশ্চিত।
এসব থেকে পরিত্রাণ পেতেই দেশের কয়েকটি মহাসড়কে করা হবে এক্সপ্রেসওয়ে। এর প্রথমটি ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ে। গত ১২ মার্চ ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা রুটে দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়ের নকশাও করা হয়েছে ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার গতিতে গাড়ি চালানোর জন্য। এই এক্সপ্রেসওয়েটি এশীয় মহাসড়কের অংশ। এত গাড়ি প্রবেশ ও বের হওয়ার জন্য রাখা হয়েছে আটটি পথ।
আগামী ২০ বছরের ক্রমবর্ধমান যান চলাচলের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে ১১ হাজার ৯০ কোটি টাকা ব্যয়ে এটি নির্মাণ করা হয়েছে। অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন এক্সপ্রেসওয়েটি ইউরোপের অনেক দৃষ্টিনন্দন সড়ককেও হার মানায় বলে মনে করেন অনেকেই। দেখে নিন এই এক্সপ্রেসওয়ের অসাধারণ কিছু দৃশ্য। ছবি তুলেছেন নাসিরুল ইসলাম।

/এমআর/

লাইভ

টপ