X
সোমবার, ২৪ জানুয়ারি ২০২২, ১০ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

ভালো পেসার আসবে কবে? সুজন বললেন, ‘আল্লাহ যেদিন দেন’

আপডেট : ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:০২

পেসারদের নখদন্তহীন বোলিংয়ের সামনে প্রতিপক্ষের ব্যাটাররা সহজেই থিতু হয়ে যাচ্ছেন। প্রত্যেক টেস্টেই এমন দৃশ্যের দেখা মেলে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে পেস-নির্ভর কন্ডিশন পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি এবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদ। পেসারদের এমন পারফরম্যান্সে ক্ষিপ্ত টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। ভালো পেসার পাওয়ার প্রশ্নে সুজন বলেছেন, ‘আল্লাহ যেদিন দেন।’

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশের পেসাররা সাফল্য পেলেও লংগার ভার্সনে সেটি দূর আকাশের তারার মতো! লংগার ভার্সনে পেসারদের পারফরম্যান্স এতটাই হতাশাজনক যে ঘরোয়া ক্রিকেটেও তাদের ওপর আস্থা রাখেন না অধিনায়ক। ঘরোয়া ক্রিকেটের প্রভাবই যেন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পড়ে। ২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে মোস্তাফিজুর রহমান করেছিলেন মাত্র ৪ ওভার। ঢাকা টেস্টে তো পেসার ছাড়াই মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। অবশ্য পেসারদের খেলিয়ে খুব একটা ফায়দাও নিতে পারছেন না অধিনায়ক। চট্টগ্রাম টেস্ট শাহীন আফ্রিদি-হাসান আলী মিলে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপ গুঁড়িয়ে দিলেও স্বাগতিক দুই পেসার এবাদত ও আবু জায়েদ রাহী সেটি করতে ব্যর্থ হয়েছেন। ঢাকা টেস্টেও একই অবস্থা।

কীভাবে ভালো পেসার পাওয়া সম্ভব, এমন প্রশ্নে ঢাকা টেস্টের চতুর্থ দিনের খেলা শেষে টিম ডিরেক্টর সুজন বলেছেন, ‘এটা আল্লাহ যেদিন দেন। এছাড়া আর কী বলবো। প্রচুর অনুশীলন করে, ৬ ফুট লম্বা, ১৪০ গতিতে বল করে; কিন্তু কোচ তো কাউকে গুলিয়ে খাইয়ে দিতে পারবে না। এটা কমন সেন্সের বিষয়। কোচরা অনুশীলন করায় কিন্তু খেতে তো হবে আপনার। চিবাতে হবে আপনার। আপনি যদি চিবাতে না পারেন...।’

টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের পেসারদের নাজুক অবস্থা দীর্ঘদিনের। ৮ বছর আগে এই ফরম্যাটে পেসার রবিউল ইসলাম সর্বশেষ ৫ উইকেট নিয়েছিলেন। দীর্ঘ সময় চলে গেলেও বাংলাদেশের পেসারদের আহামরি কোনও পারফরম্যান্স করতে দেখা যায়নি। খালেদের অভিষেক ২০১৮ সালের নভেম্বরে। এরপর কেটে গেছে ৩ বছর ২৫ দিন। এতদিন পর অবশেষে মঙ্গলবার প্রথম টেস্ট উইকেটের দেখা পেয়েছেন এই পেসার। এবাদতের অবস্থাও যাচ্ছেতাই। ৯ টেস্টে তার উইকেট সংখ্যা মোটে ১০।

সাবেক পেসার মাশরাফি মুর্তজা-তাপস বৈশ্যর উদহারণ টেনে সুজন বলেছেন, ‘মাশরাফি কীভাবে উইকেট পেয়েছে? তাপস বৈশ্য কীভাবে উইকেট পেতো? তখন তো আমরা আরও পারতাম না, আরও জানতাম না। এখন তো আমাদের বোলিং কোচ আলাদা, এই কোচ, ওই কোচ আলাদা। এটা বোলিং কোচের কাছে প্রশ্ন করলে ভালো হতো। বোলারদের ভুলটা হলো কমন সেন্স। এই উইকেটে কীভাবে বল করতে হবে, উইকেটে বল ধরছিল (মিরপুরের উইকেট), অথচ আমরা পেছনে পেছনে বল করলাম। বোলিং কোচের প্ল্যান যদি প্রয়োগ করতে না পারে তাহলে কোচকে জিজ্ঞেস করবে।’

ক্ষিপ্ত সুজন নিজের সময়ের ম্যাচের উদহারণ টেনে আরও বলেছেন, ‘আমি একটা ম্যাচের কথা বলি- অস্ট্রেলিয়াতে জাস্টিন ল্যাঙ্গার ও ম্যাথু হেইডেন ব্যাট করছিলেন, আমি তখন অধিনায়ক। ডেভ হোয়াটমোর পরিকল্পনা দিয়েছে আমাদের যেন ওদের শক্তির জায়গায় বল না করি, এজন্য আমরা বাইরে বাইরে বল করে গেছি। আমার কথা হলো, আমি জোরে বল করি কিংবা আস্তে বল করি, সেটা তো বড় কথা না। বড় কথা হচ্ছে স্কিল।’

/আরআই/কেআর/
সম্পর্কিত
টেলরকেও ফিক্সিংয়ে জড়াতে চেয়েছিলেন এক ভারতীয় ব্যবসায়ী 
টেলরকেও ফিক্সিংয়ে জড়াতে চেয়েছিলেন এক ভারতীয় ব্যবসায়ী 
গেইলের ব্যর্থ লড়াই, স্বস্তির জয় ঢাকার 
গেইলের ব্যর্থ লড়াই, স্বস্তির জয় ঢাকার 
সাকিব-মালানদের হারিয়ে ওয়ানডের বর্ষসেরা বাবর
সাকিব-মালানদের হারিয়ে ওয়ানডের বর্ষসেরা বাবর
অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের পর ১ রানে হারলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ
অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের পর ১ রানে হারলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
টেলরকেও ফিক্সিংয়ে জড়াতে চেয়েছিলেন এক ভারতীয় ব্যবসায়ী 
টেলরকেও ফিক্সিংয়ে জড়াতে চেয়েছিলেন এক ভারতীয় ব্যবসায়ী 
গেইলের ব্যর্থ লড়াই, স্বস্তির জয় ঢাকার 
গেইলের ব্যর্থ লড়াই, স্বস্তির জয় ঢাকার 
সাকিব-মালানদের হারিয়ে ওয়ানডের বর্ষসেরা বাবর
সাকিব-মালানদের হারিয়ে ওয়ানডের বর্ষসেরা বাবর
অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের পর ১ রানে হারলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ
অবিশ্বাস্য ব্যাটিংয়ের পর ১ রানে হারলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ
কমনওয়েলথ গেমসে যেতে পারলো না বাংলাদেশ
কমনওয়েলথ গেমসে যেতে পারলো না বাংলাদেশ
© 2022 Bangla Tribune