X
রবিবার, ১৪ আগস্ট ২০২২
৩০ শ্রাবণ ১৪২৯

হারারেতে এনামুলের স্বপ্নের প্রত্যাবর্তন

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
০৫ আগস্ট ২০২২, ১৭:৩২আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২২, ১৭:৩৯

২০১৯ সালের ৩১ জুলাই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সবশেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন এনামুল হক। ওই ম্যাচ খেলেই বাদ পড়েছিলেন। এরপর কেটে গেছে ৩ বছর ৫ দিন। অবশেষে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এনামুল পেলেন সুযোগ। কাঙ্ক্ষিত সেই সুযোগ বেশ ভালোভাবেই কাজে লাগালেন তিনি। ক্যারিয়ারের চতুর্থ হাফসেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর ৬২ বলে ৭৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন এই টপ অর্ডার ব্যাটার।

গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ব্যাট হাতে ছন্দময় সময় কাটিয়েছেন এনামুল। তিন সেঞ্চুরি ও ৯ হাফসেঞ্চুরিতে রেকর্ড ১ হাজার ১৩৮ করেন তিনি। সেটারই পুরস্কার হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের দলে সুযোগ পান। কিন্তু যে ফরম্যাটে রানের বন্যা বইয়েছিলেন, সেখানে সুযোগ পাচ্ছিলেন না। ওয়েস্ট ইন্ডিজে টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। কিন্তু সবখানেই ব্যর্থ! অবশেষে ‘প্রিয়’ ফরম্যাট ওয়ানডেতে সুযোগ পেয়ে প্রত্যাবর্তন ম্যাচটি রাঙিয়ে নিলেন এনামুল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে এনামুলকে একাদশে না দেখে বিস্তর আলোচনা-সমালোচনা হয়েছিল। ওই সফরে তাকে রেখে খেলানো হয় নাজমুল হোসেন শান্তকে। এনামুলকে সুযোগ না দেওয়ার ব্যাখ্যায় অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেছিলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, আমরা সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। বিজয়ের (এনামুল) দুর্দান্ত একটা ঘরোয়া মৌসুম গেছে। ও মাত্র টিমে এসেছে। আজকে শান্তর জয়গায় যদি আমি বিজয়কে খেলাতাম, তাহলে শান্ত যে গেলো তিন সিরিজ ধরে আমাদের টিমে আছে, ওই সিলেকশনটা ভুল ছিল? তাহলে ওই সিলেকশনটা ভুল হতো। শান্তকে আমরা কী কারণে তিন সিরিজে টিমের সঙ্গে নিয়ে ঘুরছি তাহলে?’

তবে জিম্বাবুয়ে সিরিজে এনামুলকে আর অপেক্ষায় রাখলেন না তামিম। ঢাকা লিগে যে ফরম্যাটে তার এত রান, সেই ওয়ানডেতে অবশেষে সুযোগ মিললো। লম্বা সময় পর ওয়ানডেতে ফেরায় শুরুতে কিছুটা অস্বস্তি ছিল। স্বভাবসুলভ ভঙ্গিমায় শুরুতে কিছুটা ধীরস্থিরভাবে খেললেও সময় গড়ানোর সঙ্গে আক্রমণ বাড়াতে থাকেন। লংঅনে মিল্টন শুম্বাকে ছক্কা মেরে ৪৭ থেকে পৌঁছে যান ৫০-এর ঘরে। আর তাতেই পেয়ে যান ক্যারিয়ারের চতুর্থ হাফসেঞ্চুরি। ২০১৪ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। সেই হিসাবে ৭ বছর ৮ মাস পর হাফসেঞ্চুরির দেখা পেলেন এই উইকেটকিপার ব্যাটার।

হাফসেঞ্চুরি পৌঁছে আরও আক্রমণ বাড়ান। রিচার্ড এনগারাভার বলে ৭১ রানের সময় একবার ‘জীবন’ পেয়েছিলেন। ডিপ কাভারে ওয়েসলি মাদেভেরে বলটি তালুবন্দি করতে পারেননি। যদিও ‘জীবন’ পেয়ে সেটিকে কাজে লাগাতে পারেননি উইকেটকিপার ব্যাটার। ভিক্টর নিয়াউচির বল লংঅন দিয়ে সীমানা ছাড়া করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তারিসাই মুসাকান্দা বলটি সহজেই তালুবন্দি করে এনামুলকে সাজঘরের পথ দেখান। আউট হওয়ার আগে ৬২ বলে ৬ চার ৩ ছক্কায় ৭৩ রানের ইনিংস খেলেন এই ব্যাটার।

/আরআই/কেআর/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বিএনপি আন্দোলন করুক, কাউকে যেন গ্রেফতার করা না হয়: প্রধানমন্ত্রী
বিএনপি আন্দোলন করুক, কাউকে যেন গ্রেফতার করা না হয়: প্রধানমন্ত্রী
করমজল প্লাবিত, ঝুঁকিতে বন্যপ্রাণী
করমজল প্লাবিত, ঝুঁকিতে বন্যপ্রাণী
৪২তম বিসিএসের নন-ক্যাডারে নিয়োগের ফল প্রকাশ
৪২তম বিসিএসের নন-ক্যাডারে নিয়োগের ফল প্রকাশ
সৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ পুনর্পাঠ
জন্মশতবর্ষেসৈয়দ ওয়ালীউল্লাহ পুনর্পাঠ
এ বিভাগের সর্বশেষ
ধারাভাষ্যকে বিদায় বললেন চ্যাপেল
ধারাভাষ্যকে বিদায় বললেন চ্যাপেল
শেখ কামালের মৃত্যুবার্ষিকীতে দিনব্যাপী আবাহনীর কর্মসূচি
শেখ কামালের মৃত্যুবার্ষিকীতে দিনব্যাপী আবাহনীর কর্মসূচি
ধৈর্য ধরতে বললেন বার্সা কোচ
ধৈর্য ধরতে বললেন বার্সা কোচ
সাইফের ৪৯৪ মিনিট লড়াইয়ের ম্যাচ ‘ড্র’
সাইফের ৪৯৪ মিনিট লড়াইয়ের ম্যাচ ‘ড্র’
টিভিতে আজ
টিভিতে আজ