X
সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২
২৪ শ্রাবণ ১৪২৯

‘প্রবাসী ফুটবলারদের বাঁকা চোখে দেখা হয়’

তানজীম আহমেদ
০৫ জুলাই ২০২২, ১১:৫৯আপডেট : ০৫ জুলাই ২০২২, ১২:১৯

ঐতিহ্যবাহী মোহামেডানে খেলেই বড় তারকা হয়েছিলেন ডিফেন্ডার আবুল হোসেন। ক্লাবের পাশাপাশি খেলেছেন জাতীয় দলে। লাল-সবুজ জার্সিতে আর্মব্যান্ড পরারও অভিজ্ঞতা আছে। খেলার প্রতি এতই ভালোবাসা ছিল যে, ক্যারিয়ার শেষে যুক্ত হয়ে যান কোচিংয়ে। সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছেন সেখানেও।

বাবার পদাঙ্ক অনুসরণ করে ছেলে আবিদ হোসেন বেশ কিছু দিন ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছেন সাদা-কালো দলে নিয়মিত হতে। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাবা আবুল হোসেন মনে করেন, কঠোর পরিশ্রম করলে একসময় ঠিকই দরজা খুলে যাবে তার।

বাবা ডিফেন্ডার হলেও ছেলে ফরোয়ার্ড পজিশনে খেলছেন। কয়েক বছর ধরে চেষ্টা করে যাচ্ছেন সাদা-কালোদের হয়ে নিজেকে বিলিয়ে দিতে। মাঝে-মধ্যে খেলার সুযোগও পাচ্ছেন। বর্তমানে ছেলের খেলা দেখতে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে ঢাকায় অবস্থান করছেন। প্রিয় ক্লাব মোহামেডানের খেলা দেখতে গেছেন কুমিল্লাতেও।

সেখান থেকে ফিরে বাংলা ট্রিবিউনের কাছে ছেলে সম্পর্কে নিজের স্বপ্নের কথা জানালেন আবুল হোসেন, ‘কুমিল্লাতে ওর খেলা দেখেছি, ভালো লেগেছে। আমি তো চাইবো ছেলে বড় ফুটবলার হোক। মোহামেডানে নিয়মিত খেলুক। এরপর যোগ্যতা দিয়ে জাতীয় দলে সুযোগ পাক। তবে কতদিন লেগে থাকতে পারবে, এনিয়ে সংশয় আছে।’

এমন সংশয় রেখে দেওয়ার কারণ আবার ব্যাখ্যাও করেছেন। অকপটে বললেন, ‘এখানকার পরিবেশ যা মনে হচ্ছে টিকে থাকাটা কঠিন। যে বাইরে থেকে(প্রবাসী ফুটবলার) আসে তাকে বাঁকা চোখে দেখা হয়। আর স্থানীয় খেলোয়াড়দের অন্যভাবে দেখা হয়। বাইরের খেলোয়াড়দের আসলে তো অভিভাবক নেই। এখানে যেন তারা না খেলতে পারে এমন একটা ভাব অনেকের। বাঙালি খেলোয়াড় হলেও। মনে করে বাইরে থেকে যারা আসে, তারা তো ভালো আছে। এখানে খেলার দরকার কী।।

ছেলের ক্যারিয়ারের পাশাপাশি নিজের অতীত নিয়ে অনেক কথা বলেছেন এই সাবেক ফুটবলার। ২০০২ সালে মোহামেডান সবশেষ লিগ শিরোপা পেয়েছিল তার হাত ধরেই। পরের বছর স্থায়ীভাবে যুক্তরাষ্ট্র পাড়ি জমান। সেই সময় দেশের ফুটবলও ছিল অনিয়মিত। কাজী সালাউদ্দিনের যুগে বর্তমানে সেই সমস্যা আর নেই। তবে প্রিয় ক্লাব তার হাত ধরে শিরোপা জেতার পর আর সাফল্যের দেখা পায়নি। যা এখন কষ্ট দেয় ৬৫ বছর বয়সী ফুটবলারকে, ‘মোহামেডানকে আমি সবশেষ ২০০২ সালে লিগ চ্যাম্পিয়ন করে গেছি। এরপর আর দলটি লিগ শিরোপা পায়নি। মোহামেডান-আবাহনী যদি শিরোপা না পায় তখন খারাপ লাগে। এই দুই দল তো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য দল গড়ে। এখন মোহামেডান সাফল্য পাচ্ছে না, খারাপ তো লাগবেই।’

পাশাপাশি দেশের ফুটবলে দর্শক খরা নিয়েও মন কাঁদে তার। বিশেষ করে নিজের ক্লাব মোহামেডানের হতশ্রী অবস্থা নিয়ে যেন একটু বেশিই আক্ষেপ করলেন, ‘দর্শক মাঠে কেন আসবে। আগে বাদল, সালাউদ্দিন ভাই, চুন্নু ভাইয়ের খেলা দেখতে দর্শকরা মাঠে যেতো। সবারই ব্যক্তিগত কারিশমা ছিল। এখন কার খেলা দেখতে যাবে। তারওপর মোহামেডান ক্লাব যেই অবস্থার মধ্যে চলে গেছে, তাতে করে সমর্থক থাকবে কী করে?’

আবুল হোসেন ৮০’র দশকে লম্বা থ্রো-ইনের জন্য বিখ্যাত ছিলেন। তার দেখাদেখি এরপর আলমগীর, বেলাল, মনসুর ও হাল আমলে রায়হান, বিশ্বনাথসহ অনেকেই তা করে থাকেন।

তবে মোহামেডানের এই সাবেক তারকার লম্বা থ্রো-ইনের পেছনে অন্য গল্প আছে। ফুটবল শুরুর আগে বাস্কেটবল খেলতেন। সেই থেকে তার হাতের জোর ছিল একটু অন্যরকম। ফ্লোরিডা প্রবাসী সাবেক ফুটবলার বলেছেন, ‘আগে বাস্কেটবল খেলতাম। ৭৪-৭৫ ভিক্টোরিয়াতে খেলি, এরপর ফুটবলে আসি। ওই বাক্সেটবল থেকেই হাতে অন্যরকম জোর চলে আসে। পরে যা নিয়মিত করে গেছি।’

/এফআইআর/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
পীরগজ্ঞে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ
পীরগজ্ঞে তাণ্ডবের মামলায় ৫১ আসামির আত্মসমর্পণ
হিরো আলমকে আটকের তথ্য ঠিক নয়: পুলিশ
হিরো আলমকে আটকের তথ্য ঠিক নয়: পুলিশ
৫০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে স্টার্টআপ বাংলাদেশ
৫০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে স্টার্টআপ বাংলাদেশ
জার্মান নাগরিক কাউসমান আত্মহত্যা করেছেন, ধারণা পুলিশের
জার্মান নাগরিক কাউসমান আত্মহত্যা করেছেন, ধারণা পুলিশের
এ বিভাগের সর্বশেষ
আফজালুর রহমান সিনহার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ
আফজালুর রহমান সিনহার চতুর্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ
স্পিনারদের অনন্য কীর্তিতে জিতলো ভারত
স্পিনারদের অনন্য কীর্তিতে জিতলো ভারত
ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স কি তাহলে ‘ফ্লুক’?
ওয়ানডেতে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স কি তাহলে ‘ফ্লুক’?
ইরাককে হারালো বাংলাদেশ
ইরাককে হারালো বাংলাদেশ
পাকিস্তানকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ
পাকিস্তানকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশ