রিয়ালে প্রথম মৌসুম বাজে কেটেছে হ্যাজার্ডের

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:০৪, মার্চ ২৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:০৬, মার্চ ২৬, ২০২০

চোটে বেশিরভাগ সময় মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে হ্যাজার্ডকেঅনেক আশা নিয়ে তাকে আনা হয় সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে। প্রত্যাশার পারদ আরও উঁচুতে চড়েছিল ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বদলি হিসেবে তাকে দলে ভিড়ানোয়। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ ক্যারিয়ারের প্রথম মৌসুমে কিছুই করতে পারেননি এডেন হ্যাজার্ড। ইনজুরিতে বেশিরভাগ সময় তাকে থাকতে হয়েছে মাঠের বাইরে। বেলজিয়ান ফরোয়ার্ডের তাই স্বীকার করতে দ্বিধা নেই, রিয়ালের প্রথম মৌসুম খারাপ কেটেছে তার।





গত বছরের গ্রীষ্মে ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে চেলসি থেকে রিয়ালে নাম লেখান হ্যাজার্ড। বার্নাব্যুতে চোট নিয়েই এসেছিলেন, তাই রিয়ালের জার্সিতে অভিষেক হতে বেশ সময় লাগে তার। চোটই তাকে নিজের সেরাটা দিতে দেয়নি। মাদ্রিদের ক্লাবটিতে আসার পর সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে খেলা ১৫ ম্যাচে করেছেন মাত্র এক গোল, আর সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ৫ গোল। যেটা তার নামের পাশে বড্ড বেমানান। হ্যাজার্ড নিজেও বুঝতে পারছেন, তাই স্বীকার করে নিচ্ছেন, ‘রিয়ালে আমার প্রথম মৌসুম বাজে কেটেছে। তবে সবকিছু খারাপ কাটবে, বিষয়টা এমন নয়।’
হতাশা কাটিয়ে সামনের মৌসুমে নজর রাখছেন বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড, ‘এটা (প্রথম মৌসুম) ছিল আমার মানিয়ে নেওয়ার মৌসুম। আমি নতুন মানুষদের সঙ্গে মিশেছি। এটা আমার জন্য দারুণ অভিজ্ঞতার। এখানে আরও চার বছর চুক্তি আছে আমার, আশা করছি ছন্দে থাকব।’

করোনাভাইরাসে ইউরোপের সব লিগ বন্ধ। লা লিগায় খেলা হ্যাজার্ড এখন মাদ্রিদে ‘ঘরবন্দি’। প্রাণঘাতী ভাইরাসে ইতালির পর সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত স্পেন। কোভিড-১৯ রোগে দেশটিতে এখন পর্ন্ত মারা গেছেন ৩ হাজার ৬৪৭ জন, আক্রান্ত প্রায় ৫০ হাজার।

কঠিন পরিস্থিতিতে সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ হ্যাজার্ডের, ‘আমি কখনোই বলতে পারব না, এটা আমাকে ধরবে না। তবে আমি ঘরের মধ্যে আছি, কেউ আসছে না বাড়িতে, আমরাও কাউকে দেখছি না। আর সবার মতো আমিও কিছুটা শঙ্কিত, তবে আমি সতর্ক আছি, (আমি আক্রান্ত হলে যেন) এটা অন্য কারও কাছে না যায়। এটাই সবচেয়ে বড় ব্যাপার।’

/কেআর/

লাইভ

টপ