টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বদলে আইপিএল!

Send
স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত : ১১:০৯, এপ্রিল ০১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১১:৩৬, এপ্রিল ০১, ২০২০

DMIPL11809করোনাভাইরাস মহামারিতে সব ক্রীড়া ইভেন্ট বন্ধ হয়ে আছে। এসবের মাঝে ঝুলে আছে আইপিএলের ভাগ্য। ২৯ মার্চ শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মহামারির কারণে তা স্থগিত রয়েছে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত। এই মুহূর্তে বিসিসিআইয়ের মাথায় আছে বিকল্প সূচি আগামী অক্টোবর-নভেম্বর। অবশ্য তা তখনই সম্ভব, যদি আইসিসি তখন অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত ঘোষণা করে। আর পরিস্থিতি মানুষের নিয়ন্ত্রণে আসে।

এই বছরে অস্ট্রেলিয়ায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার কথা ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। করোনার কারণে সেই সম্ভাবনাও এখন অনিশ্চিত। বিসিসিআইয়ের এক কর্তা দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে সব সীমান্তই লকডাউনে আছে। আবার অস্ট্রেলিয়ার ৬ মাসের লকডাউনে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। অবস্থার উন্নতি হলেই দৃশ্যপট পাল্টাতে পারে। একই ধারা অনুসরণ করতে পারে যুক্তরাজ্যও।’

এই মুহূর্তে লকাডাউনের পরিস্থিতি নিয়েই চিন্তিত বিসিসিআই। তার ওপরই নির্ভর করছে পরিস্থিতি কোন দিকে গড়াবে। কারণ বর্তমানে আন্তর্জাতিক সীমান্ত বন্ধ রয়েছে, ‘আমরা আসলে বুঝতে চাই, সরকার আন্তর্জাতিক সীমান্ত সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কী সিদ্ধান্ত নেয়। এমন দৃশ্যপটে অক্টোবর-নভেম্বরই নিরাপদ একটা সূচি। আবার তা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সঙ্গে সাংঘর্ষিকও হয়ে যাচ্ছে।’

এমন পরিস্থিতিতে আইসিসি যদি টুর্নামেন্ট স্থগিত করে, তাহলেই তারা ওই সময়ে আইপিএল মাঠে গড়ানোর চিন্তা করবে। তবে এক্ষেত্রেও অনেক হিসাব-নিকাশ করতে হবে, ‘আইসিসি যদি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়। তাহলে আমরা অক্টোবর-নভেম্বরের উইন্ডো নিয়ে ভাবতে পারি। তবে তেমনটি করতে চাইলেও তখন করোনার সংক্রমণ বন্ধ হয়েছে কিনা, সেটাও ভাবতে হবে। তখন সব কিছু মানুষের নিয়ন্ত্রণে থাকা লাগবে। সংক্ষেপে তখন অনেক হিসাব করতে হবে।’

আবার সেই কর্তা এও মনে করিয়ে দিয়েছেন, ‘আইসিসির শেষ পদক্ষেপ এটাই হতে পারে, বিশ্বকাপটা ২০২২ সালে নিয়ে যাওয়া। কারণ ২০২১ সালে উইন্ডো ফাঁকা নেই। তবে এই মুহূর্তেই এমন কিছু ভাবাটা ঠিক হবে না।’

/এফআইআর/

লাইভ

টপ