পারিশ্রমিক নিয়ে ক্ষুব্ধ ফুটবলাররা, যাবেন বাফুফে সভাপতির কাছে

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩২, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৫৮, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০

পারিশ্রমিক নিয়ে ক্ষুব্ধ ফুটবলাররাআগামী ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ফেডারেশন কাপ দিয়ে ফুটবল মৌসুম শুরু হওয়ার কথা। তার আগে হবে দলবদল। এরইমধ্যে গত ও আগামী মৌসুমের পারিশ্রমিক কীভাবে বা কতটা পাবে খেলোয়াড়েরা তারও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে কয়েকদিন আগে বাফুফের পেশাদার লিগ কমিটির দেওয়া এমন নির্দেশনা মানতে নারাজ ফুটবলাররা। বরং এমন নির্দেশনা পেয়ে তারা ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন। খেলোয়াড়েরা এবারের বাফুফের শীর্ষনেতার কাছে যাচ্ছেন। আসন্ন বাফুফের নির্বাচনের পরই তারা সভাপতির সঙ্গে দেখা করে তাদের আবেদন জানাবেন নতুন করে।

ক্লাব, খেলোয়াড় ও লিগ কমিটির মধ্যে টানা সভা হওয়ার পর সিদ্ধান্ত হয়েছিল গত মৌসুমের পুরো পারিশ্রমিকের সঙ্গে নতুন মৌসুমের ২৫ ভাগ পারিশ্রমিক দেওয়া হবে। নতুন মৌসুমের আগে চুক্তির সময় ৪৫ ভাগ অর্থ পাবেন খেলোয়াড়েরা। এছাড়া আগামী মৌসুম শেষ হওয়ার আগে পারিশ্রমিকের বাকি অংশ দিয়ে দেবে ক্লাবগুলো।

এমন সিদ্ধান্ত এখনও মেনে নিতে পারছেন না খেলোয়াড়েরা। জাতীয় দল ও শেখ রাসেলের গোলকিপার আশরাফুল ইসলাম রানা ক্ষোভের সঙ্গেই বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন,‘আমাদের কোনও প্রস্তাবই তো রাখা হয়নি। সবই ক্লাবের পক্ষে গেছে। নতুন চুক্তিতে গত মৌসুমের ২৫ অর্থ দিয়ে আমরা কীভাবে চলবো? আমরা অন্তত ৫০ ভাগ চেয়েছিলাম। এরইমধ্যে অনেক সময় চলে গেছে। একজন ফুটবলারের পরিবার কীভাবে চলবে কেউ তা চিন্তা করছে না।’

খেলোয়াড়দের প্রস্তাব ছিল অন্তত নতুন খেলোয়াড় যাদের পারিশ্রমিক কম তাদেরটা যেন সেভাবে কাটা না্ হয়। যদিও বাফুফের পেশাদার লিগ কমিটি তাদের দিকে সদয় দৃষ্টি দেওয়ার কথা বলেছে। এছাড়া আগামী মৌসুমে বিদেশি খেলোয়াড়বিহীন একটি প্রতিযোগিতা আয়োজনের কথা বলা হয়েছিল। সেই বিষয়ে কোনও নির্দেশনা আসেনি।

রানা বলেছেন, ‘যারা বড় অঙ্কের পারিশ্রমিক পায় তারা না হয় চলতে পারবে। কিন্তু উঠতি খেলোয়াড় যারা কম পারিশ্রমিকে খেলছে তারা কীভাবে চলবে। তাদের পারিশ্রমিকের বিষয়ে পরিষ্কার নির্দেশনা থাকলে ভালো হতো। আমরা বিদেশিবিহীন একটি প্রতিযোগিতা খেলতে চেয়েছি। এতে স্থানীয় খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্স দেখানোর ‍সুযোগ হতো। কিন্তু তা হচ্ছে কই? এখন সব বিষয় নিয়ে আমরা নির্বাচনের পর ক্ষমতায় যারাই আসুন না কেন্ নতুন কমিটির সঙ্গে দেখা করবো। বিশেষ করে সভাপতির সঙ্গে। আশা করছি এতে কিছু একটা হবে।’

 

 

/টিএ/পিকে/

লাইভ

টপ