X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

বাইশেই ফ্রান্সে নতুন জীবনের খোঁজে বাংলাদেশি সাঁতারু

আপডেট : ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৪৮

বয়স মাত্র ২২। এই বয়সেই দেশের মায়া ছেড়ে বিদেশে নতুন জীবনের খোঁজে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা সাঁতারু আরিফুল ইসলাম। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির অধীনে ফ্রান্সে তিন বছর উচ্চতর প্রশিক্ষণে ছিলেন। টোকিও অলিম্পিকের পর সেই মেয়াদ শেষে এখন ব্যক্তিগত উদ্যোগে ইউরোপের দেশটিতে আছেন। সাঁতারু থেকে এখন অন্য পরিচয়ে ক্যারিয়ার গড়তে চাইছেন। এরই মধ্যে ব্রেস্ত শহরের একটি ক্লাবে কোচেস ডিপ্লোমার জন্য আবেদন করেছেন। নবীনদের কোচ হয়েই ফ্রান্সে নতুন করে জীবনের রঙিন আলো খুঁজছেন আরিফুল।

তিন বছর ফ্রান্সে থাকায় সেখানকার জীবন-যাপনের ধরন তাকে বেশ টানছে। এছাড়া জীবিকার তাড়না থেকে নতুন করে সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে। টোকিও অলিম্পিকে সাঁতরে এসে ঢাকায় জাতীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন। এরপর গত অক্টোবরে ফিরে গেছেন ফ্রান্সে। সেখানে ব্রেস্তের একটি ক্লাবে সৌখিন সাঁতারুদের অনুশীলন করাচ্ছেন। পাশাপাশি নিজের সাঁতার চর্চাটাও করে থাকেন। শিগগিরই পুরোদস্তুর কোচ হয়ে সেখানে থিতু হতে চাইছেন আরিফুল।

এরই মধ্যে তিন মাসের কোচেস ডিপ্লোমা কোর্সের জন্য আবেদন করেছেন। ট্রেনিংয়ের পর নিতে পারবেন কোচের চাকরিও। এ প্রসঙ্গে বাংলা ট্রিবিউনকে আরিফুল বলেছেন, ‘ঢাকার খেলোয়াড়ি পরিবেশের সঙ্গে আসলে ঠিকমতো মানিয়ে নিতে পারছিলাম না। এছাড়া যে সংস্থার সঙ্গে আমার চুক্তি ছিল, তা বাতিল করা হয়েছে। ফ্রান্সে তিন বছর ধরে থেকে সেখানে কাজের সুষ্ঠু পরিবেশ দেখতে পেয়েছি। ক্যারিয়ার অন্যভাবে গড়ার সুযোগ আছে এখানে। তাই এখানে ব্যক্তিগতভাবে এসে কোচেস ডিগ্রি নেওয়ার আবেদন করেছি।’

যে ক্লাবে আছেন, সেখানে কোচ পদে চাকরি হলে মাসে দেড় হাজার ইউরো বেতন পাবেন। এছাড়া অন্য সুবিধা তো আছেই। ফরাসি ভাষাও রপ্ত করছেন। সামনের দিকে সুযোগ আছে নাগরিকত্ব প্রাপ্তিরও। জাতীয় দলের হয়ে পুলে ঝড় তোলার পাশাপাশি একজন অলিম্পিয়ান হিসেবে ফ্রান্সে চাকরি প্রাপ্তিতে আরিফুল অনেক এগিয়ে। কাঠমান্ডু এসএ গেমসে রুপাজয়ী সাঁতারু নিজেই বলেছেন, ‘আমার বায়োডাটা দেখিয়ে সেখানে সহজেই কাজ করার সুযোগ আছে। কোচেস ডিগ্রি নিতে পারলে তখন ভালো বেতনে স্থানীয় সাঁতারুদের কোচ হয়ে থাকতে পারবো।’

সাঁতারু থেকে মাত্র ২২ বছর বয়সে কোচ হয়ে জীবনধারণ করাটা আরিফুলের কাছে রঙিন জীবনের হাতছানি। তাতে অবশ্য লাল-সবুজ দলের হয়ে পুলে ফেরাটা হয়তো আর হবে না কিশোরগঞ্জ থেকে উঠে আসা এই সাঁতারুর। আরিফুল নিজেও তা বুঝতে পারছেন, ‘এখানে ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাঁতার চালিয়ে নেওয়াটা কঠিনই। বছরে ৪ হাজার ইউরো লাগে। এটা কতদিন পারবো জানি না। যদি কোচেস ডিপ্লোমা পেয়ে যাই, তাহলে হয়তো নতুন করে ক্যারিয়ার শুরু করতে হবে। তখন সাঁতারু হয়ে পুলে ফেরাটা কঠিনই হবে। আমার স্বপ্ন ছিল এসএ গেমসে দেশকে একটি সোনার পদক দেওয়া। এখন তা তো আর সম্ভব হচ্ছে না।’

মনে নতুন স্বপ্ন বুনে ভিন দেশে শুরু হয়েছে আরিফুলের পথচলা। ২২ বছর বয়সী তরুণের চোখে আশার ঝিলিক।

/কেআর/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
জলবায়ু অভিযোজন অর্থায়ন বাড়ানোর আহ্বান ডিএনসিসির মেয়রের
জলবায়ু অভিযোজন অর্থায়ন বাড়ানোর আহ্বান ডিএনসিসির মেয়রের
‘আদর্শের বদলে সুবিধা নেওয়া এখন রাজনীতির নিয়ম’
মেননের ৭৯তম জন্মদিন উদযাপন‘আদর্শের বদলে সুবিধা নেওয়া এখন রাজনীতির নিয়ম’
ভোরের কাগজের প্রকাশক-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলায় এডিটরস গিল্ডের নিন্দা
ভোরের কাগজের প্রকাশক-সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলায় এডিটরস গিল্ডের নিন্দা
বিশ্বকাপের কাজে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে আগ্রহী কাতার
বিশ্বকাপের কাজে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে আগ্রহী কাতার
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
বাংলাদেশে অভিজ্ঞতার কোনও দাম নেই: মুশফিক
বাংলাদেশে অভিজ্ঞতার কোনও দাম নেই: মুশফিক
অবসর প্রসঙ্গে যা বললেন মুশফিক
অবসর প্রসঙ্গে যা বললেন মুশফিক
চতুর্থ দিনের বিকাল আশা দেখাচ্ছে বাংলাদেশকে
চতুর্থ দিনের বিকাল আশা দেখাচ্ছে বাংলাদেশকে
মুশফিকের সুইপ ও তার হাসি
মুশফিকের সুইপ ও তার হাসি
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মুশফিকের ৫ হাজার রান
প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মুশফিকের ৫ হাজার রান