সহিংস ভিডিওর বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে ইউটিউব

Send
শরীফ এ চৌধুরী
প্রকাশিত : ২১:১৩, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:৫৫, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

ইউটিউবইউটিউবে সাম্প্রতিক সময়ে নানা ধরনের সহিংসতা, ঘৃণা ছড়ানো বিষয়ক ভিডিও’র সংখ্যা বেড়েছে। একইসঙ্গে শিশুদের জন্য উপযোগী নয় এমন নানা ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে নানা মহলের উদ্বেগের বিষয়ে নিজেদের কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়েছে ইউটিউব। বিশেষ করে যেকোনও ধরনের সহিংসতা ও ঘৃণা ছড়ায় এমন ভিডিও দ্রুত মুছে ফেলার উদ্যোগের কথা জানিয়েছে বিশ্বসেরা সার্চ ইঞ্জিন গুগলের মালিনাকাধীন ইউটিউব।

পাশাপাশি শিশুদের উপযোগী কনটেন্ট তৈরি বা শুধু শিশুদের জন্য তৈরি কনটেন্টগুলোকে আলাদা করতে বিশেষ উদ্যোগও নিয়েছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ। এর ফলে যেকোনও কনটেন্ট আপলোডকারীদের ভিডিও আপলোডের সময়েই উল্লেখ করতে হচ্ছে ভিডিওটি শিশুদের জন্য উপযোগী কিনা। ইউটিউবের এমন উদ্যোগগুলোকে আরও এগিয়ে নিতে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ইউটিউবের প্রধান নির্বাহী সুজান ওজস্কি।

১ ডিসেম্বর সিবিএস নিউজের ৬০ মিনিট শীর্ষক অনুষ্ঠানে ইউটিউবের নানা বিষয়ে কথা বলেন বর্তমান সময়ে যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালির সবচেয়ে প্রভাবশালী নারী সুজান ওজস্কি। তিনি বলেন, ইউটিউব সব পর্যায়ের গ্রাহকদের জন্য। এখানে আমাদের অভিভাবক, ভাইবোন, বন্ধু, প্রতিবেশী, সহকর্মী এবং শিশুরাও ভিডিও দেখেন। তাই এ মাধ্যমটিকে সবার উপযোগী করতে সব ধরনের উদ্যোগ নিয়েই আমরা কাজ করছি।’

বর্তমানে ইউটিউবে প্রতি মিনিটে ৫০০ ঘণ্টা ভিডিও ডাউনলোড হচ্ছে। ইউটিউবের আয় ১১ হাজার ৭০০ কোটি ডলার, যা বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তি দুনিয়ার অন্যতম বড় আয়ের প্রতিষ্ঠান। গুগলের সঙ্গে একেবারে শুরু থেকেই জড়িত সুজান ওজস্কির সঙ্গে গুগলের দুই প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি পেজ এবং সের্গেই ব্রিনের দারুণ সম্পর্ক। সুজানের পরামর্শেই ১৬৫ কোটি ডলারে ইউটিউব অধিগ্রহণ করে গুগল। যাত্রা শুরুর আট বছরের মাথায় ইউটিউবের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব পান সুজান ওজস্কি।

/এইচএএইচ/এমওএফ/

লাইভ

টপ