X
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪
৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বৃষ্টি ও বন্যার কী পূর্বাভাস পাওয়া গেলো?

সঞ্চিতা সীতু
০৬ মে ২০২৪, ২১:০০আপডেট : ০৬ মে ২০২৪, ২১:০০

তাপপ্রবাহ প্রশমিত হয়েছে। থেমে থেমে বৃষ্টি হচ্ছে সারা দেশে। বিভিন্ন এলাকায় বজ্রপাত ও শিলাবৃষ্টি হচ্ছে, কালবৈশাখী ঝড় বয়ে যাচ্ছে। মে মাসজুড়েই এরকমই চলবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। বৃষ্টির ফলে দেশের কিছু অঞ্চলে নদীর পানির উচ্চতা বাড়তে পারে এবং বিপদসীমার কাছাকাছি চলে যেতে পারে। কিন্তু এখনই আকস্মিক বন্যার কোনও শঙ্কা নেই।

বন্যা পূর্বাভাস এবং সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পূর্বাভাসে বলা হয়, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে হাওর অববাহিকায় অবস্থিত সিলেট অঞ্চলে প্রধান নদীগুলোর পানি বাড়ছে। বৃষ্টির প্রবণতা কমলে পানি আবার কমতে পারে।

আবহাওয়া অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ও উজানে আগামী ২৪ ঘণ্টায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। ফলে এ সময়ে সিলেট, সুনামগঞ্জ, মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি সময়বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে। অপরদিকে নেত্রকোনা ও কিশোরগঞ্জ জেলার প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি স্থিতিশীলভাবে বাড়তে পারে। আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টিপাতের প্রবণতা কমে আসায় এই অঞ্চলের নদীগুলোর পানি আবার কমে আসতে পারে।

বৃষ্টির প্রবণতা বাড়বে (ফাইল ছবি)

কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী সরদার উদয় রায়হান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, গত বছরের মতো এবারও তাপমাত্রা বেশি। ১৫ মে পর্যন্ত এই সময়টাকে আমরা প্রাক বর্ষা মৌসুম বলে থাকি। এই সময় কালবৈশাখী ঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টি বাড়তে শুরু করে। এই কারণে নদীর পানিও বাড়তে থাকে। বৃষ্টি কমলে আবার পানি নেমেও যায়।

এখন পানি বেড়ে আগাম বন্যার কোনও শঙ্কা আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই অবস্থায় এখনই বলা কঠিন যে গতবারের মতো আগাম বন্যা বা আকস্মিক বন্যা হবে কিনা। আমরা ১৫ মে পর্যন্ত আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ করে এই বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারবো।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতরের ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, খুলনা, বরিশাল, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে, সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে।

ঢাকায় বৃষ্টি (ফাইল ছবি)

এদিকে মে মাসের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়, এই মাসে দেশে স্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। এ মাসে দেশে তিন থেকে পাঁচ দিন বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ হালকা ধরনের কালবৈশাখী ঝড় এবং দুই থেকে তিন দিন বজ্র ও শিলাবৃষ্টিসহ মাঝারি বা তীব্র কালবৈশাখী ঝড় হতে পারে। মে মাসে দেশের প্রধান নদ-নদীগুলোর স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজ করতে পারে। তবে উজানে ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের নদীগুলোর পানি সময়বিশেষে দ্রুত বাড়তে পারে এবং কিছু স্থানে বিপদসীমার কাছাকাছি প্রবাহিত হতে পারে।

আবহাওয়াবিদ মনোয়ার হোসেন জানান, এই সময়টাকে আমরা বলি প্রাক বর্ষা মৌসুম। এই সময় থেমে থেমে বিভিন্ন এলাকায় ঝড়-বৃষ্টি হতেই থাকবে। তবে এই বৃষ্টিতে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টির কোনও শঙ্কা নেই। কারণ শুধু আমাদের দেশে বৃষ্টি থেকে বন্যা হয় না। উজানের দেশগুলোতে মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে ভারী বৃষ্টি শুরু হলে সে বৃষ্টির পানি আমাদের দেশের ওপর দিয়ে যাওয়ার সময় নদীগুলোর পানির উচ্চতা বেড়ে যায় এবং বিপদসীমার ওপরে উঠে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।

তিনি জানান, গত বছর একই কারণে জুন মাসের দিকে আকস্মিক বন্যার সৃষ্টি হয়েছিল। এবার উজানে বৃষ্টি বেশি হলে বন্যার শঙ্কা থাকবে। তবে মে মাসে এই শঙ্কা নেই বললেই চলে।

/এফএস/এমওএফ/
সম্পর্কিত
রাজধানীতে সকাল থেকে যানজট, চাপ থাকবে রাতেও
অস্বস্তিকর গরমের পর রাজধানীতে বৃষ্টি
সিলেটে মুষলধারে বৃষ্টি, আকাশে বজ্রমেঘ
সর্বশেষ খবর
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
রাতে উত্তরের মহাসড়কে যানবাহনের চাপ আরও বেড়েছে
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
ঈদে চামড়া ব্যবসায়ীদের নজরদারিতে রাখবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী
ফুটপাতে নিম্ন আয়ের মানুষের ঈদের আমেজ
ফুটপাতে নিম্ন আয়ের মানুষের ঈদের আমেজ
‘আনসার আল ইসলামের’ শাহাদাত গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার
‘আনসার আল ইসলামের’ শাহাদাত গ্রুপের দুই সদস্য গ্রেফতার
সর্বাধিক পঠিত
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে মূল্যায়ন হবে যেভাবে
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শ্রমিকদের অবরোধে বন্ধ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
শেবাগের সমালোচনার জবাবে যা বললেন সাকিব
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
১৯ বল ব্যাট করে ওমানকে হারালো ইংল্যান্ড
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ
সেন্টমার্টিনে খাদ্যসংকট, কক্সবাজার থেকে গেলো পণ্যবোঝাই জাহাজ