নির্বাচনি ইশতেহারের আলোকে এই বাজেট অসম্পূর্ণ: সিপিডি

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৩৪, জুন ১৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫০, জুন ১৩, ২০১৯




বাজেট প্রতিক্রিয়া জানান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) বিশেষ ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যঅর্থমন্ত্রী নিঃসন্দেহে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট বাস্তবতার নিরিখে করার চেষ্টা করছেন। তবে এতে সামগ্রিকভাবে বাস্তবতা প্রতিফলিত হয়নি। উনি প্রত্যাশা উচ্চাকাঙ্ক্ষার কথা বলেছেন, সেটা পরিপূরণের জন্য যে সুনির্দিষ্ট প্রকল্প-প্রস্তাবনা থাকে, বিশেষ করে নির্বাচনি ইশতেহারের আলোকে, তা অসম্পূর্ণ থেকে গেছে বলে জানিয়েছেন বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) বিশেষ ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) বিকালে সিপিডি কার্যালয়ে বাজেট পরবর্তী তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এসব কথা বলেন।

ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেন, নির্বাচনি ইশতেহারে কতকগুলো সুনির্দিষ্ট প্রতিশ্রুতি ছিল। আমাদের ধারণা ছিল সেই প্রতিশ্রুতিগুলোকে উল্লেখ করে, সেগুলোর জন্য কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হলো, সেরকম একটা ব্যবস্থা আমরা লক্ষ করবো। দুঃখজনকভাবে আমরা এই মুহূর্তে তা পেলাম না। যেসব পদক্ষেপের কথা বলা হয়েছে, যেমন−তিন কোটি নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে ২০৩০ সালের মধ্যে। কিন্তু এটা কোন খাতে, কীভাবে সৃষ্টি হবে এবং এটা ব্যক্তি খাতে হবে, না সরকারি খাতে হবে, এটা কি গ্রামে হবে, নাকি শহরে হবে−এ ধরনের কোনও মূল্যায়নভিত্তিক বা কোনও সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনাভিত্তিক কৌশলপত্র আমরা সেভাবে লক্ষ করিনি।

তিনি আরও বলেন, যেসব প্রতিশ্রুতি আছে, সেগুলো অনেক ক্ষেত্রে কোন সময়ের ভেতরে বাস্তবায়ন হবে, তা বলা নেই। যেমন ব্যাংক খাতে কমিশনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে –‘আলাপ-আলোচনা করে করা হবে’। আমার কাছে এক কথায় মন্ত্রী নিঃসন্দেহে বাস্তবতার নিরিখে বাজেট করার চেষ্টা করেছেন, তবে সামগ্রিকভাবে বাস্তবতা তাতে প্রতিফলিত হয়নি। উনি প্রত্যাশা ও উচ্চাকাঙ্ক্ষার কথা বলেছেন, সেটা পরিপূরণ করার জন্য যে সুনির্দিষ্ট প্রকল্প-প্রস্তাবনা থাকে, বিশেষ করে নির্বাচনি ইশতেহারের আলোকে, সেটা কিন্তু অসম্পূর্ণ থেকে গেছে।

এ সময় তিনি বাজেটের ওপর সম্পূর্ণ প্রতিক্রিয়া শুক্রবার (১৪ জুন) সকালে জানানো হবে বলে জানান। 

আরও পড়ুন...

অর্থ ব্যয় হবে যেভাবে

দিস ইজ নিউ ট্র্যাডিশন: মুহিত

অর্থ আসবে যেসব খাত থেকে

এই বাজেট ঋণনির্ভর: আমীর খসরু

বছরে ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত লেনদেন ভ্যাটমুক্ত

সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ জনপ্রশাসনে, কম শিল্প ও অর্থনৈতিক সার্ভিসে

বাজেটকে স্বাগত জানিয়ে আ.লীগের আনন্দ মিছিল

জিডিপির আকার ২৮ লাখ ৮৫ হাজার ৮৭২ কোটি টাকা

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের জন্য বরাদ্দ ১ হাজার ৩৩৮ কোটি টাকা

ডাক ও টেলিযোগাযোগে বরাদ্দ সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা

মুক্তিযোদ্ধাদের মাসিক ভাতা বাড়বে ২ হাজার টাকা

যেসব পণ্যের দাম বাড়তে পারে, কমতে পারে

সুনীল অর্থনীতিতে জিডিপি বাড়বে ২ শতাংশ

প্রতিরক্ষায় বরাদ্দ ৩২ হাজার ৫২০ কোটি টাকা

দাম বাড়বে স্মার্টফোনের

অর্থমন্ত্রী অসুস্থ, বাজেট পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী

/এসও/টিটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ