X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

ঢাকা অ্যাটাক: যে ছবির অপেক্ষায় থাকে দর্শক

আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০১৭, ১৬:০৭

‘ঢাকা অ্যাটাক’ কেমন হবে? এই জল্পনা ছিল মুক্তির তারিখ ঘোষণার পর থেকেই। যেখানে ঢাকাই সিনেমার বেহাল দশা, সেখানে বছরে দুই-চারটি ছবি নিয়ে দর্শক মনে আগ্রহও তৈরি হয়। অন্যদিকে সিনেমা হলগুলো এক এক করে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে– এমনই সব কঠিন বাস্তবতার মাঝে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ যেসব কারণে নতুনভাবে প্রাণ দেবে বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পে, সেইসব নিয়েই আলোচনা করেছেন লেখক।

(বাঁ থেকে) শতাব্দী ওয়াদুদ, এবিএম সুমন, আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি বাংলা সিনেমায় পুলিশের ভূমিকা কী? এমন প্রশ্নের উত্তরে অনেকে নিশ্চয়ই বলবেন, নায়ক-ভিলেনের মারামারি শেষে বাঁশি বাজাতে বাজাতে হাজির হয় পুলিশ। আবার নায়ক যদিওবা পুলিশ হয়, তবুও পুলিশের আসল কাজ ভাটা পড়ে নায়কের প্রেমের গল্পে। পুলিশের সাহস, ঘটনা তদন্তে দক্ষতা, আসামি ধরতে গিয়ে তাদের ত্যাগের কথা তেমন একটা উঠে আসে না ঢাকার ছবিতে। এ বছর সম্পূর্ণ ভিন্ন আঙ্গিকে, ভিন্ন প্লটে প্রথমবারের মতো ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের এডিসি সানী সানোয়ারের লেখা গল্পে দীপংকর দীপনের পরিচালনায় ‘ঢাকা অ্যাটাক’ তুলে ধরলো বাংলাদেশের পুলিশ বাহিনীর সাহসী সব অভিযানের চিত্র।

‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর গল্পটি কেমন হলো?
এই ছবির গল্প বলে ‘স্পয়লার’ করার প্রয়োজনবোধ হচ্ছে না। তবে এটুকু বলা যেতে পারে— শহরে হঠাৎ করে খুন, বোমা বিস্ফোরণ ও বোমা আতঙ্কের সূত্র খোঁজা শুরু করে পুলিশ। এর মধ্য দিয়েই তাদের অভিযানের প্রয়োজন পড়ে। পুলিশের সব হ্যান্ড এখানে যুক্ত হয়– ডিবি, সোয়াট টিম, বোম ডিসপোজাল ইউনিট। তারা কিভাবে একটি ঘটনার তদন্ত করে, কিভাবে মিশনে যায়, কিভাবে ফলোআপ করে– এসব তো দর্শক দেখতে পাবেই; এর সঙ্গে থাকছে হাজার অপরাধ নির্মূলের চেষ্টার ভিড়ে তাদেরও নিজেদের একটি জীবন আছে। দায়িত্ববোধ সম্মুখ সমরে রাখে ঠিকই কিন্তু পরিবারের জন্যও তাদের মন কাঁদে, তাদের প্রেম থাকে, তারাও রোমান্টিক হতে জানে। এই থ্রিল, অ্যাকশন, আবেগ নিয়েই সাজানো ‘ঢাকা অ্যাটাক’।

ছবির নায়কেরা
এই ছবির মূল নায়ক বাংলাদেশ পুলিশ। কোনও নির্দিষ্ট চরিত্রে আটকে থাকেনি ‘ঢাকা অ্যাটাক’। এটাই ছবিটির সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য। প্রত্যেকের আলাদা-আলাদা গুরুত্ব রয়েছে। সে কথাই বলতে চেয়েছেন গল্পকার সানী সানোয়ার ও পরিচালক দীপংকর দীপন। তবুও যেহেতু এটা সিনেমা তাই কিছু চরিত্রকে তো বিশেষ গুরুত্ব দিতেই হয়। তেমন কয়েকটি চরিত্র গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি সাজেদুল (শতাব্দী ওয়াদুদ), বোম ডিসপোজাল ইউনিটের ইনচার্জ আবিদ রহমান (আরিফিন শুভ) ও সোয়াট টিমের ইনচার্জ আশফাক আহমেদ (এবিএম সুমন)। তারা নিজ নিজ চরিত্রে কিভাবে নিজেকে তুলে ধরলেন সে বিষয়েও কিছুটা আলোচনার দাবি তো রাখেই।

ক. শতাব্দী ওয়াদুদ
তিনি মঞ্চ থেকে ওঠে আসা অভিনেতা। তার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে বাড়তি কথা বলার কোনও প্রয়োজন নেই। তার অভিনীত ছবি ‘গেরিলা’ (২০১১), ‘জীবনঢুলী’ (২০১৪), ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ (২০১৫) সেই দক্ষতার স্বাক্ষর বহন করে। এবার ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতেও অনন্য ছিলেন তিনি। দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়েছেন গোয়েন্দা বিভাগের এডিসি সাজেদুল চরিত্রেও। তার ডায়লগ, অপারেশন নিয়ে অন্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক কিংবা আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ; সবকিছুই যেন পর্দায় মনে হচ্ছিল জীবন্ত।
এডিসি সাজেদুল হচ্ছে কৌশলগত সিদ্ধান্ত নেওয়ার চরিত্র। পুলিশের ভেতর সবাই সম্মুখে যায় না। কিন্তু পেছনে যেসব মেধা কাজ করে, যাদের কৌশলে এগোয় পুলিশ, সেই সব অফিসারদেরই প্রতিনিধিত্ব করেছে সাজেদুল চরিত্রটি।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে আরিফিন শুভ খ. আরিফিন শুভ
প্রশ্ন আসতে পারে এখন পর্যন্ত আরিফিন শুভ কয়টি বাংলা ছবিতে কাজ করেছেন, তার মধ্যে আলোচিত কয়টি? কিছুটা বলা যাক, যেমন তিনি ‘অগ্নি’তে অভিনয় করে কিছুটা আলোচনায় ছিলেন, কিন্তু ছবিটি ছিল মাহিকেন্দ্রিক। তাছাড়া ২০১০ সালে খিজির হায়াত খান পরিচালিত ‘জাগো’ থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত শুভকে শুধু খুঁজে পাওয়া যাবে শিহাব শাহীন পরিচালিত ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ছুয়ে দিলে মন’-এ। এছাড়া অন্যান্য ছবিতে তেমন আলোচনার জন্ম দিতে ব্যর্থ এই মেধাবী ও পরিশ্রমী অভিনেতা। অথচ শুভ’র ভেতর আছে বাংলা সিনেমায় প্রতিষ্ঠিত হওয়ার মতো সব গুণ। বাংলা ট্রিবিউনের অফিসে বসেই ব্যক্তিগত এক আলাপে ২০১৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘অস্তিত্ব’ সম্পর্কে শুভ বলেছিলেন, এই ছবিটি হতে পারে তার ক্যারিয়ারের টার্নিং ছবি। অথচ পরবর্তীতে এটিও ‘নকল’ ছবির তকমার কারণে ব্যর্থ হয়।

তবে এবার ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সত্যিকার অর্থেই শুভর ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বড় টার্নিং পয়েন্ট হতে পারে বলে ধরে নেওয়া যায়। এ ছবিতে বোম ডিসপোজাল দলের ইনচার্জ আবিদ রহমান চরিত্র অনন্য ছিলেন তিনি। একজন পুলিশের দক্ষতা, সম্মুখে গিয়ে অ্যাকশন ভূমিকা সবই সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন শুভ। এমনকি রোমান্টিক দৃশ্যে মাহির সঙ্গে তার রসায়নের তুলনা হয় না। একথা সবাই মানে ও জানে। তাই এটা নিশ্চিত— ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ অ্যাকশন, আবেগ ও থ্রিলের ভেতর শুভই থাকবেন মূল আলোচনায়।

গ. এবিএম সুমন
‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর সবচেয়ে বড় আবিষ্কার দুটি। একটি হলো এবিএম সুমনকে নতুনভাবে দর্শকের সামনে তুলে ধরা। ২০১৫ সালে ‘অচেনা হৃদয়’ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় নাম লেখান তিনি। তার আগে করেছেন মডেলিং। অভিনয়ে খুব একটা সাফল্য পাননি সুঠাম দেহের অধিকারী এই নায়ক। অথচ ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ সোয়াট দলের ইনচার্জ চরিত্রে মনে হবে সুমনের কোনও বিকল্প নেই। তার চালচলন, কথা বলার ধরন, সম্মুখে গিয়ে অ্যাকশন; এসব কিছু দেখার পর বহু দর্শকের মুখে শুনেছি— এই ছেলে কে?

আশফাকের স্ত্রী চরিত্রে অভিনয় করেছেন কাজী নওশাবা আহমেদ। স্বামী-স্ত্রীর সময় কাটানোর বিষয়গুলো ছিল খুবই মিষ্টি। এগুলোতে সুমন-নওশাবার অভিনয়ই প্রমাণ করে, পরিবারের সব দায়িত্ব রেখে কিভাবে পুলিশ সদস্যরা দেশের দায়িত্বে নিজেকে উৎসর্গ করে দেন।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিতে আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি



ঢাকা অ্যাটাক

রেটিং: ৯/১০
পরিচালক: দীপংকর দীপন
প্রযোজনা: স্প্ল্যাশ মিডিয়া, ঢাকা পুলিশ পরিবার কল্যাণ সমিতি লি. ও থ্রি হুইলারস লি.
গল্পকার: সানী সারোয়ার
সংলাপ রচয়িতা: হাসনাত বিন মতিন, আসাদ জামান, শাহজাহান সৌরভ
চিত্রনাট্যকার: সানী সানোয়ার, অভিমন্যু মুখোপাধ্যায় (কলকাতা), দীপংকর দীপন
অভিনয়ে: আরিফিন শুভ, মাহিয়া মাহি, এবিএম সুমন, কাজী নওশাবা আহমেদ, শতাব্দী ওয়াদুদ, তাসকিন রহমান, আফজাল হোসেন, আলমগীর, হাসান ইমাম, শিপন মিত্র, ফারহিন আহমেদ, সেলিনা সাইবি
আবহ সংগীত: বব এস এম
চিত্রগ্রাহক: গোপি ভগত, অর্চিত প্যাটেল, সৌভিক বসু (কলকাতা), খায়ের খন্দকার, নাঈম ফুয়াদ
সম্পাদক: মোহাম্মদ কালাম (কলকাতা)
মুক্তি: ৬ অক্টোবর, ২০১৭
পরিবেশনা: দি অভি কথাচিত্র
দৈর্ঘ্য: ১৪৭ মিনিট

গ্ল্যামার গার্ল মাহি ও মন্দ মাহি
দেশীয় চলচ্চিত্রে বর্তমানে মাহিয়া মাহিকে সবচাইতে গ্ল্যামারাস নায়িকা হিসেবে ধরা হয়। ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এ ক্রাইম জার্নালিস্ট চৈতি চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। পুলিশ সদস্যরা যেভাবে ঘটনাকে খুঁজে দেখছেন, তাদের পাশাপাশি মাহিও নিজের মতো করে ঘটনার সূত্র খোঁজার চেষ্টায় ছিলেন। চৈতি সাজগোজ করে পরিপাটি হয়ে ক্যামেরা নিয়ে পিছু পিছু ছুটেছে পুলিশের অপারেশনের ব্রেকিং দিতে। সাংবাদিকরা যে কত অদ্ভুত প্রশ্ন করেন, ঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশদের ঘিরে ধরে জিজ্ঞেস করতে থাকেন, কে বা কারা জড়িত, কেন করেছে ইত্যাদি। এই বিষয়টি সুক্ষ্মতার সঙ্গে পর্দায় তুলে আনা হয়েছে। মাহির অভিনয় ভালো নাও লাগতে পারে এই ছবিতে। আদতে ‘গ্ল্যামারাস মাহি’কে ফুটিয়ে তোলার জন্য ‘ক্রাইম রিপোর্টার মাহি’কে পুরো ছবি জুড়ে পরিপাটি ও মেকআপের মধ্যে রাখা হয়েছে।

নতুন ভিলেন ও সারপ্রাইজ
চলচ্চিত্র পাড়ায় যেমন নায়ক-নায়িকার সংকট রয়েছে, তেমনি আছে ভিলেনের অভাব। ডিপজল ও মিশা সওদাগর ছাড়া দুর্দান্ত ভিলেন আসলে কেউই হতে পারেননি। ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর প্রথম আবিষ্কারের কথা আগেই বলা হয়েছে। এর দ্বিতীয় আবিষ্কার হলো জিসান নামের চরিত্রটি। এই নতুন ভিলেন তাই এই আলোচনায় উহ্য থাক। দর্শক হলে গিয়ে দেখুক কে সেই ‘অ্যাটাক’ করা ভিলেন! যিনি বাংলা ছবিতে ভিলেনের আসন জয় করার ক্ষমতা রাখেন।

কয়েকটি খটকা
এই ছবিকে ‘অ্যাকশন থ্রিলার’ বলা হচ্ছে। সত্যিই তাই। গত বছর ‘আয়নাবাজি’ মুক্তির পর প্রায় এক বছর পেরিয়ে এমন একটি দুর্দান্ত ছবির জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে দর্শককে। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ নিয়ে সমালোচনার জায়গা খুব কম। তবুও কয়েকটি বিষয়ে খটকা লাগার কথা উল্লেখ করতে হয়—

১. মাহি সাংবাদিক। কিন্তু ক্রাইম সিনের ফিতা ভেদ করে তিনি চলে আসেন শুভ’র কাছে। আবার যখন শুভ বোম ডিসপোজ করতে যান তখন হুট করেই নিরাপত্তা বেষ্টনি ভেদ করে মাহি দৌড়ে যান সেখানে। যদিও অনেক দর্শক বলছেন, নায়িকা তো! নায়কের কাছে একটু দৌড়ে যেতে দিতেই হয়। নাহলে সিনেমা হবে কিভাবে!

২. মিডিয়া অফিসের প্রধানের সঙ্গে কথার শুরু ভাইয়া দিয়ে। পরবর্তীতে ‘স্যার, স্যার’ সম্বোধন কিছুটা দৃষ্টিকটু লেগেছে।

৩. অপারেশনে থাকার সময় আশফাকের মোবাইলে বারবার ফোন আসছিল। খুব ধীরগতিতে অপরাধী ধরার জন্য সাবধানে সামনে এগোচ্ছেন যখন, সেই সময় ফোনের আওয়াজেই তো অপরাধী টের পেয়ে যাবে। গুরুত্বপূর্ণ অফিসারের কাছে মোবাইল ফোন থাকতে পারে, কিন্তু সেটা ভাইব্রেট করে রাখলেও হতো!

৪. তিনজন সিনিয়র অভিনেতা আছেন এই ছবিতে। হাসান ইমাম, আলমগীর, আফজাল হোসেন। তাদের মধ্যে আফজালকে পাওয়া যায়নি স্বকণ্ঠে।

৫. নারী পুলিশের চরিত্র ছিল একটি, কিন্তু তাও বলার মতো নয়। গল্পে নারী পুলিশের সংখ্যা বাড়ানো যেতে পারতো।

দারুণ মেকিং
মন্দ লাগার মতো ব্যাপার খুব বেশি নেই এই ছবিতে। মেকিংয়ের প্রশংসা না করে পারা যায় না। গল্প এগিয়েছে নিখুঁতভাবে। এমনকি একটা থেকে আরেকটা দৃশ্যে প্রবেশের ধারাবাহিকতাও নিখুঁত। প্রত্যেকেই যে পরিশ্রম দিয়ে কাজ করেছেন সেটার ছাপ ‘ঢাকা অ্যাটাক-এর পরতে পরতে ছিল। লোকেশন, চিত্রগ্রহণও চমৎকার। সঙ্গে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক সারাক্ষণ দর্শককে আটকে রেখেছিল প্রতিটি দৃশ্যের ভেতর।

‘ঢাকা অ্যাটাক’ অ্যাকশনধর্মী থ্রিল পুলিশি মুভি। এর ভেতরে ব্যবসায়িক প্রতিটি উপাদানকে ইনপুট দিয়েছেন নির্মাতা। এমনকি একটি আইটেম গানও আছে। ওই গান চলার সময় দর্শকের করতালি এবং চেয়ার থেকে দাঁড়িয়ে তাদের নাচই প্রমাণ করে সার্থকতা। রোমান্টিক গান ‘টুপ টাপ’ও মুগ্ধ করেছে দর্শকদের।

সত্যিকার অর্থে এমন ছবি দেখার জন্যই দর্শক অপেক্ষা করে দীর্ঘ সময়। এ ধরনের ছবি যদি বছরে অন্তত পাঁচটাও হতো, তাহলে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র পুরনো চেহারা ফিরে পেত পূর্ণ গতিতে।

লেখক: চলচ্চিত্র সমালোচক

*** প্রকাশিত মতামত লেখকের একান্তই নিজস্ব। বাংলা ট্রিবিউন-এর সম্পাদকীয় নীতি/মতের সঙ্গে লেখকের মতামতের অমিল থাকতে পারে। তাই এখানে প্রকাশিত লেখার জন্য বাংলা ট্রিবিউন কর্তৃপক্ষ লেখকের কলামের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে আইনগত বা অন্য কোনও ধরনের দায় নেবে না।







/জেএইচ/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫২

টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপ সিরিজে থাকা বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমকে উৎসাহ দিয়ে তৈরি হলো বিশেষ গান। ‘চার ছক্কা মারো’ নামের বিশেষ এই গানটি উন্মুক্ত হলো নাগরিক টিভির ইউটিউব চ্যানেলে।

দেখার মতো মারো/ নিজের খাতায় যোগ করে নাও/ দু’চারটে রান আরও/ হাত খুলে মারো/ চার ছক্কা মারো/ মন খুলে মারো/ বাড়বে রান আরও/ যেন বাংলাদেশ জেতে আরও!—এমন অনবদ্য কথাগুলো লিখেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত গীতিকবি জুলফিকার রাসেল। আর কথাগুলো কণ্ঠে তুলেছেন দুই প্রজন্মের চার তারকা শিল্পী—বাপ্পা মজুমদার, শওকত আলী ইমন, দিলশাদ নাহার কণা ও টিনা রাসেল।

গানটির সুর-সংগীত করেছেন শওকত আলী ইমন। গানটি প্রসঙ্গে এই সংগীত পরিচালক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জুলফিকার রাসেল আমার অনেক পছন্দের একজন গীতিকবি। যদিও আমাদের কাজের সংখ্যা খুবই কম। তবে এই গানটিসহ যে ক’টি কাজ করেছি তার প্রত্যেকটি স্পেশাল। এই গানটি লিরিক প্রধান। আর আমি ছাড়া যে তিন জন গেয়েছেন, তারাও অসাধারণ শিল্পী। কাজটা দারুণ হয়েছে। আমার বিশ্বাস, এই গানটির রেশ ধরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা এবং ক্রিকেটপ্রেমীরা আরও উজ্জীবিত হবেন।’

নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান প্রধান কামরুজ্জামান বাবু জানান, বিশেষ এই গানটি এবারের বিশ্বকাপজুড়ে প্রচার হবে তাদের চ্যানেলে। পাশাপাশি উন্মুক্ত রাখা হলো প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব চ্যানেলেও।

এদিকে গানটির অন্যতম শিল্পী টিনা রাসেল বলেন, ‘বিশ্বকাপ ক্রিকেট আসর নিয়ে এটি আমার প্রথম গান। সঙ্গে গুণী শিল্পীদের পেয়েছি। এটা আমার জন্য অসাধারণ একটি অভিজ্ঞতা। আমাদের বিশ্বাস গানটি সবার ভালো লাগবে।’

/এমএম/

সম্পর্কিত

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

টাইগারদের নিয়ে নতুন গান ‘লড়বে এবার বাংলাদেশ’

টাইগারদের নিয়ে নতুন গান ‘লড়বে এবার বাংলাদেশ’

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:২৫

আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে যেতে হচ্ছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’-খ্যাত অভিনেতা তাসকিন রহমানকে। আগামীকাল (২৭ অক্টোবর) অস্ট্রেলিয়ায় ছোট একটা সার্জারি হবে। প্রবাসী তাসকিন সে দেশেই বসবাস করেন। অস্ত্রোপচারের বিষয়টি বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন তাসকিন অভিনীত চলচ্চিত্র ‘গিরগিটি’র পরিচালক সৌরভ কুণ্ডু। সিনেমাটির প্রধান অভিনেতা তাসকিন রহমান।
 
সৌরভ কুণ্ডু বলেন, ‘গত বছরের শেষভাগ থেকেই তাসকিন চোখের সমস্যায় অস্ট্রেলিয়া আছেন। সেখানে এর আগে দুবার অপারেশনও হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এটা বলা যায়, ছোট ও শেষবারের মতো অপারেশন হবে। তাসকিন আমাকে সেরকমটাই জানিয়েছেন।’

এই পরিচালক জানান, অপারেশনের জন্যই ‘গিরগিটি’ চলচ্চিত্রের কাজ বন্ধ রেখে অপেক্ষা করছেন তারা। আগামীকাল তাসকিনের আপডেটটা জানবেন, এরপর ছবির শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেবেন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য গত বছরের ২২ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যান প্রবাসী এই অভিনেতা। ২২ ডিসেম্বর সেখানে তার চোখে লেজার সার্জারি সম্পন্ন হয়। এরপর আরও একবার অস্ত্রোপচার হয়েছে। 

নীল নয়নের অভিনেতা তাসকিন সেসময় জানিয়েছিলেন, অপটিক্যাল নার্ভাস সিস্টেমে জটিলতার কারণে চোখে লেজার সার্জারি করতে হয়েছে। এটা মাইনর একটি অপারেশন। 

২০১৭ সালে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমার মধ্য দিয়ে তাসকিন রহমানের বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে। প্রথম সিনেমাতেই দুর্দান্ত অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি। এরপর তার অভিনীত ‘বয়ফ্রেন্ড’ ও ‘যদি একদিন’ সিনেমা মুক্তি পায় প্রেক্ষাগৃহে।  

এছাড়া তাসকিনের মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমার মধ্যে রয়েছে ‘মিশন এক্সট্রিম’, ‘শান’, ‘ক্যাসিনো’, ‘অপারেশন সুন্দরবন’, ‘ঢাকা ২০৪০’, ‘ওস্তাদ’ ও ‘গিরগিটি’।

/এম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৫:১৫

জামিন শুনানির আর ক্ষণকাল বাকি। তার আগেই নতুন বিপাকে পড়লেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান খান।

এতদিন ঘটনাটাকে নানাভাবে সাজানো বলার একটা চেষ্টা দেখা গেলেও নতুন করে সামনে এলো একটি হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের। চ্যাটের অপর প্রান্তে ছিলেন আরেক তারকা অনন্যা পান্ডে। আরিয়ান যাকে লিখেছিলেন, ‘তুমি উইড (গাঁজা) এনেছো?’ জবাবে অনন্যা লিখেছেন, ‘আমি নিয়ে আসবো।’

গত ২০ অক্টোবর মাদক মামলায় গ্রেফতার আরিয়ানের জামিন বাতিল করে ভারতের বিশেষ আদালত। আটকের পর থেকে কারাগারেই দিন কাটছে আরিয়ানের।

এদিকে এক দেহরক্ষীর বিস্ফোরক মন্তব্যের পর থেকেই চাপে ছিলেন ভারতের এনসিবির জোনাল পরিচালক সামির ওয়াংখেড়ে। তড়িঘড়ি দিল্লি ছুটে আসায় অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছিল, তবে কি আরিয়ান কাণ্ডে উল্টো বিপদেই পড়লেন পুলিশ কর্তা? প্রশ্নের জবাবে ওয়াংখেড়ে অবশ্য বলেছেন, তিনি অফিসিয়াল কাজেই দিল্লি এসেছেন। তাকে কেউ তলব করেনি।

অনন্যা পান্ডের সঙ্গে ‘উইড’ (গাঁজা) সংক্রান্ত হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ চালাচালির পর এখন আরিয়ানের কেস কোনদিকে গড়ায় সেটাই দেখার বিষয়।

সূত্র: ডিএনএ ইন্ডিয়া

/এফএ/এম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৫৩

এত জনপ্রিয় হওয়ার পরও কেন রাজনীতিতে আসছেন না, এমন প্রশ্নে প্রায়ই জেরবার হতে হয় ডোয়াইন জনসনকে।

আর্নল্ড শোয়ার্জনেগারের মতো রক সাহেবও কেন রাজনীতির জুতোয় পা গলাচ্ছেন না, সম্প্রতি এমন প্রশ্ন ছুড়েছিল ভ্যানিটি ফেয়ার ম্যাগাজিন। উত্তরে ডোয়েইন বললেন, তিনি পলিটিক্সের এক বর্ণও বোঝেন না।

নিজের জনপ্রিয়তা নিয়ে সাম্প্রতিক এক জরিপে ডোয়াইন জেনেছেন রাজনীতিতে তার উপস্থিতি চায় ৪৬ শতাংশ ভক্ত। ‘৪৬ শতাংশ যে আমার জন্য হ্যাঁ বলেছে, তাতেই আমি বর্তে গেছি। তবে দেশ নিয়ে গভীরভাবে চিন্তা করি। শরীরে লাল রক্ত বয়ে চলা আমেরিকানদের নিয়েও আমি ভাবি। এ নিয়ে কোনও দ্বিধা নেই।’

‘জাঙ্গল ক্রুজ’ খ্যাত এ অভিনেতা বললেন, তিনি মনে করেন তার ভেতর নেতৃত্বের গুণ আছে। তবে তিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে যোগ্য প্রার্থী নন।

সামনে এ তারকাকে দেখা যাবে ‘রেড নোটিস’, ‘ডিসি লিগ অব সুপার পেটস’ ও ‘ব্ল্যাক অ্যাডাম’ ছবিতে।

 

সূত্র: পিংকভিলা

/এফএ/এম/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৫৩

২ অক্টোবর বলিউড সুপারস্টার শাহরুখ খান পুত্র আরিয়ান খানকে আটক করেন ভারতের মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার (এনসিবি) অন্যতম তদন্তকারী অফিসার সামির ওয়াংখেড়ে।

এরপর থেকেই নানাভাবে সমালোচিত হচ্ছেন এই কর্তা। সম্প্রতি আরিয়ানের মাদককাণ্ডে ঘুষ নেওয়া ও দেওয়ার অভিযোগ ওঠার পর এখন তিনি নিজেই ভুগছেন গ্রেফতার আতঙ্কে। 

অভিযোগ উঠেছে, অর্থের বিনিময়ে শাহরুখপুত্রের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য জোগাড়ের চেষ্টা করেছেন তিনি। যদিও সেই দাবি উড়িয়ে দিয়েছে এনসিবি। সামিরের বিরুদ্ধে অনেকেই আইনি পদক্ষেপ করার কথাও বলেছেন। এমন পরিস্থিতিতে আশঙ্কায় ভুগছেন এনসিবির এই জোনাল হেড। এ কারণেই সুরক্ষা চাইতে গতকাল (২৪ আগস্ট) মুম্বাই পুলিশ কমিশনারের কাছে গিয়েছিলেন তিনি। এরপর আজ আদালতের দ্বারস্থ হলেন সামির।

এদিন এই কর্মকর্তা বলেন, ‘আমার পরিবার, বোন, এমনকি মৃত মাকেও নিশানা করা হচ্ছে। যেকোনও ধরনের তল্লাশির জন্য আমি রাজি। ১৫ বছর ধরে কাজ করছি। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত জীবন আর কাজ নিয়ে এমন অভিযোগ এর আগে কখনও ওঠেনি।’

এই মামলার অন্যতম সাক্ষী প্রভাকর শৈল গতকাল দাবি করেছেন, প্রমোদতরিতে তল্লাশি চালানোর দিন এনসিবি তার মালিক কিরণ গোসাভিকে দিয়ে ১০ পাতার একটি ফাঁকা দলিলে সই করিয়ে নেয়। তার বক্তব্য, ‘আরিয়ানের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যের বিনিময়ে বিপুল পরিমাণ টাকার প্রস্তাব এসেছিল সামির কাছ থেকে।’
এই অভিযোগটি তিনি জানিয়েছেন মুম্বাইয়ের পুলিশ কমিশনারের দফতরে। প্রভাকর এই মামলার অন্যতম সাক্ষী কিরণ গোসাভির দেহরক্ষীও। যাকে এনসিবির হেফাজতে আরিয়ানের সঙ্গে সেলফি তুলতে দেখা গিয়েছিল। এরপর থেকেই কিরণ লাপাত্তা।

কিরণে সেলফিতে আরিয়ান

এরপর ঘুষ দেওয়ার অভিযোগ তোলেন তার দেহরক্ষী প্রভাকর। তিনি তার দেওয়া হলফনামায় বলেন, ‌‘কিরণ আরিয়ানের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলে তাকে ১৮ কোটি টাকা দেওয়া হবে, তদন্তকারী অফিসার সামির ওয়াংখেড়ের তরফে এমন প্রস্তাব এসেছিল।’ 

সামির ওয়াংখেড়েকে বলা হয় মাদক নিয়ন্ত্রণের ‘নায়ক’। তবে তার কাজে বহুবার হয়েছে সমালোচনা। বিশেষ করে বলিউডের প্রতি তার ব্যক্তিগত আক্রোশ রয়েছে বলে মনে করেন অনেকে। এমনকি তার অভিনেত্রী স্ত্রী বলিউডে স্থান পাননি বলেই সামির এ বিষয়ে একরোখা বলে গুজবও আছে।

মাদক অভিযান ছাড়াও এর আগে নানা কারণে আলোচিত-সমালোচিত সামির। ২০১১ সালে আমদানি শুল্ক না দেওয়ায় মুম্বাই বিমানবন্দরে আটকে দেন বিশ্বকাপ ক্রিকেটের ট্রফি। শেষ পর্যন্ত শুল্ক মিটিয়ে ট্রফি ছাড়াতে হয়।

একই বছর অতিরিক্ত শপিং করে দেশে ফেরায় শাহরুখ খান ও তার স্ত্রী গৌরি খানকে দিনভর জেরা করেছিলেন সামির। এরপর জরিমানা দিয়ে বিমানবন্দর থেকে ছাড়া পান তারা। 

২০১৩ সালে মুম্বাই বিমানবন্দরে ওয়াংখেড়ের হাতে বিদেশি মুদ্রাসহ ধরা পড়েন গায়ক মিকা সিং। এছাড়া অনুরাগ কাশ্যপ, বিবেক ওবেরয়, রামগোপাল ভার্মাদের বিরুদ্ধে হিসাববহির্ভূত সম্পত্তির মামলাতেও তল্লাশি চালিয়েছেন সামির। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের অস্বাভাবিক মৃত্যুতে মাদক নিয়ে তদন্ত করেন তিনি। রীতিমতো ঝড় তুলে দেন এই ইস্যুতে পুরো ভারতে। তার দফতরে আসতে হয়েছে দীপিকা পাড়ুকোন, কঙ্গনা রনৌতসহ অনেককে।

সূত্র: এনডিটিভি

/এম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

ফের হোয়াটসঅ্যাপ বার্তা ফাঁস, বিপাকে আরিয়ান

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

‘পলিটিক্সের প-টাও জানি না’

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

আরিয়ানকে আটক করা সেই পুলিশ কর্তাই এখন গ্রেফতার আতঙ্কে

মোশাররফ করিমের সঙ্গী হচ্ছেন জিৎ?

মোশাররফ করিমের সঙ্গী হচ্ছেন জিৎ?

‘মিশন এক্সট্রিম’র ট্রেলারেও বাহবা পেলেন শুভ (ভিডিও)

‘মিশন এক্সট্রিম’র ট্রেলারেও বাহবা পেলেন শুভ (ভিডিও)

জন্মদিনের রাতে বিমান থেকে নামলেন পরী, নাচলেন লুঙ্গি ড্যান্স

জন্মদিনের রাতে বিমান থেকে নামলেন পরী, নাচলেন লুঙ্গি ড্যান্স

রিসোর্টে ২০ তরুণ নির্মাতা, বেড়াতে নয় শিখতে

রিসোর্টে ২০ তরুণ নির্মাতা, বেড়াতে নয় শিখতে

মারা গেছেন অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ

মারা গেছেন অভিনেতা মাহমুদ সাজ্জাদ

সর্বশেষ

সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা সরকারের পরিকল্পিত, অভিযোগ বিএনপির

সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা সরকারের পরিকল্পিত, অভিযোগ বিএনপির

খালেদা জিয়া আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন: ইকবাল হাসান মাহমুদ

খালেদা জিয়া আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন: ইকবাল হাসান মাহমুদ

‘নগদ-ডিআরইউ’ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিকসহ ২২ জন

‘নগদ-ডিআরইউ’ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিকসহ ২২ জন

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

চাকরি দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র

চাকরি দিচ্ছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র

© 2021 Bangla Tribune