X
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

বিদ্যুৎকেন্দ্র ও ইপিজেডের বিরুদ্ধে নদী দখলের অভিযোগ

আপডেট : ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০৯:০০

নদীর জমি দখল করেই গড়ে উঠছে বিদ্যুৎকেন্দ্র, রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল (ইপিজেড), পুলিশ স্টেশন এবং ভূমি অফিস। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন নারায়ণগঞ্জ, মুন্সীগঞ্জ, বরগুনা, ময়মনসিংহ ও জামালপুর জেলা সরেজমিন পরিদর্শন করে এমন অভিযোগ তুলেছে। সম্প্রতি কমিশন পাঁচ জেলা পরিদর্শনের যে আনুষ্ঠানিক রিপোর্ট দিয়েছে তাতে নদী দখলের এই চিত্র উঠে এসেছে।

বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের আগে যখন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ক্রয় চুক্তি করে তখন উদ্যোক্তার জমি রয়েছে কিনা তা সরেজমিন পরিদর্শন করা হয়। এরপরই কেন্দ্র নির্মাণের ছাড়পত্র দেওয়া হয়। এসব ক্ষেত্রে কমিশন দেখেছে, উদ্যোক্তরা কিছু জমি কিনেছে, বাকিটা নদীর জমি দখল করেছে।

নদী কমিশন বলছে, সরকারি সম্পত্তি দখল ফৌজদারি অপরাধ। তবে তাদের কথায় কেউ কর্ণপাত করছে না। কিছু ক্ষেত্রে নদীর জমি এমনভাবে ভরাট করে দখল করা হয়েছে এতে নদীর পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হয়েছে। এতে ওই নদী যেমন মরে যেতে পারে, তেমনি প্রাণ এবং প্রতিবেশের ওপর পড়বে বিরূপ প্রভাব। কোনও কোনও বিদ্যুৎকেন্দ্র এমনভাবে নদী দখল করেছে, এতে ইলিশের অভয়ারণ্য বিপন্ন হতে পারে বলে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

নদী রক্ষা কমিশনের নারায়ণগঞ্জের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জেলায় সামিট গ্রুপ এবং রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল নির্মাণের জন্য বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা) জমি দখল করেছে। নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসন এবং স্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে বছরের শুরুর দিকে নদী কমিশন এসব অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করে।

এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বেজা নদীর উজানের জমি ভরাট করে দখল করেছে। একই সঙ্গে এখানে স্থাপনাও নির্মাণ করা হয়েছে। মুন্সীগঞ্জেও বেজার বিরুদ্ধে একই অভিযোগ এনেছে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন। সেখানেও নদী দখল করে রফতানি প্রক্রিয়াকরণ অঞ্চল নির্মাণ করছে বেজা।

এদিক বরগুনাতে আইসোটেক নামের একটি কোম্পানি তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করছে। এই তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের ফলে স্থানীয় সাধারণ ভূমিহীনদের উচ্ছেদ করেছে উদ্যোক্তা কোম্পানিটি। তবে সব থেকে উদ্বেগেরে বিষয় হচ্ছে, নদী কমিশন তাদের প্রতিবেদনে ইলিশের প্রজনন বাধাগ্রস্ত হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেছে।

কমিশন তাদের প্রতিবেদনে বলছে, কয়েকশ’ মানুষকে অন্যায়ভাবে উচ্ছেদ করে তাদের বিরুদ্ধে নানাভাবে হয়রানিমূলক মামলা দেওয়া হয়েছে। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি তিনটি নদীর মোহনায় নির্মাণ করা হচ্ছে। এই জায়গাটি ইলিশের প্রজনন স্থল হিসেবে পরিচিত। এখানে কেন্দ্রটি নির্মাণ করা হলে হাজার হাজার টন ইলিশের প্রজনন বাধাগ্রস্ত হবে।

ময়মনসিংহ জেলা পরিদর্শন শেষে নদী কমিশন জানায়, জেলায় একটি ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হয়েছে নদীর জমি দখল করে। নদীর জমি ভরাট করায় ব্রহ্মপুত্রের দক্ষিণের শাখা সংকীর্ণ হয়েছে। এছাড়া জেলার ত্রিশালে ভূমি অফিস এবং পুলিশ স্টেশন নদীর জমি দখল করে নির্মাণ করা হয়েছে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

জামালপুরে নদী কমিশনের পরিদর্শনে ইউনাইটেড গ্রুপের একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র নদীর জমিতে নির্মাণের অভিযোগ করেছে কমিশন। বলা হচ্ছে, দেশের প্রতিষ্ঠিত এই শিল্প গ্রুপটি জামালপুরে নদী দখল করেছে।

কমিশনের চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান হাওলাদার বলেন, ‘যেসব এলাকা পরিদর্শন করে এই ধরনের প্রকল্প পেয়েছি, সেখানকার জেলা প্রশাসককে আমরা নির্দেশ দিয়েছিলাম যাতে তারা এই প্রকল্প আর বাস্তবায়ন না করতে চিঠি দেয়। এরমধ্যে যেসব প্রকল্প সরকারের, তাদের সংশ্লিষ্ট দফতর বা মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসকদের মধ্যে কয়েকজন জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় তাদের জানিয়েছে। তারা প্রতিনিধি পাঠিয়ে এলাকা পরিদর্শন করে তদন্ত করবেন। তবে করোনার কারণে অনেকেই জানিয়েছে তারা এখনও এলাকা পরিদর্শন করতে পারেনি।’

/এনএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২২:২০

'জঙ্গিবাদ দমনে আমরা সফল হয়েছি। বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিংয়ের মতো সমস্যাগুলোও সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে বন্ধ করতে সক্ষম হয়েছি। সাধারণ মানুষকে সম্পৃক্ত করার ফলেই এটা সম্ভব হয়েছে। একইভাবে কোভিড-১৯ মোকাবিলায়ও জনসম্পৃক্ততা বৃদ্ধির জন্য সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।'

রবিবার (২৫ জুলাই) মেহেরপুর জেলা প্রশাসন আয়োজিত কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে চলমান বিধিনিষেধ বাস্তবায়ন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে  জনপ্রশাসন মন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এসব কথা বলেন তিনি।

মেহেরপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান, মেহেরপুরের পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জন, বিভিন্ন উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধিসহ সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতারা আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে ফরহাদ হোসেন বলেন, ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলায় জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব অনেক বেশি। জনগণকে সচেতন করতে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় উদ্বুদ্ধ করতে জনপ্রতিনিধিদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় প্রতিটি পাড়ায় করোনা প্রতিরোধ কমিটি গঠন করতে হবে বলেও জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে নিয়ে প্রতিটি পাড়ায় করোনা প্রতিরোধ কমিটি গঠন করতে হবে। যেহেতু করোনা সংকটটি দীর্ঘদিন ধরে চলার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই এই কমিটিকেও দীর্ঘ সময় ধরে কাজ করার প্রস্তুতি রাখতে হবে।

‘এই কমিটির মূল কাজ হবে- মাস্ক বিতরণ ও পরিধানে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করা। কারও করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া ও টেস্টের ব্যবস্থা করা এবং সকলকে ভ্যাকসিন গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করা। পাশাপাশি এই কমিটি জনসমাগম হয় এরূপ স্থানে তদারকি জোরদার করবে, যাতে সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে। সবার আন্তরিক সহযোগিতার ফলেই দ্রুত করোনা সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব বলেও জানান তিনি।

 

/এসআই/এফএএন/

সম্পর্কিত

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২২:২২

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে ‘আম কূটনীতি’র পরে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতেও আম উপহার পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইতোমধ্যে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রপতি জোকো উইদোদো ও ব্রুনাইর সুলতান হাসসান আল-বলকিয়াহকে ১ হাজার কেজি করে আম পাঠানো হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করে ১ হাজার কেজি আম রাষ্ট্রপতির মারদেকা প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেসে গত সপ্তাহে হস্তান্তর করা হয়।

রাষ্ট্রপতি সচিবালয়ের প্রেসিডেন্সিয়াল প্যালেস প্রোটোকল অফিসার, রাষ্ট্রপতির ব্যক্তিগত কর্মকর্তা, ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রটোকল অফিসার এই উপহার গ্রহণ এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এদিকে ব্রুনাইর সুলতানের জন্য শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে এক হাজার কেজি বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ ‘হাঁড়িভাঙা’ আম পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা।

উপহারের এই আমগুলো শনিবার ব্রুনাইয়ের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের রাষ্ট্রাচার কর্মকর্তার কাছে হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ হাইকমিশন। আমগুলো সরাসরি ব্রুনাইয়ের সুলতানের প্রাসাদ ইস্তানা নুরুল ইমানে নিয়ে যাওয়া হয়।

/এসএসজেড/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

গণসংগীতের জন্য ফকির আলমগীর স্মরণীয় হয়ে থাকবেন: প্রধানমন্ত্রী

গণসংগীতের জন্য ফকির আলমগীর স্মরণীয় হয়ে থাকবেন: প্রধানমন্ত্রী

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা

‘ঈদে মায়ের কাছে আমরা কোনও আবদার করিনি’

‘ঈদে মায়ের কাছে আমরা কোনও আবদার করিনি’

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২২:৩২

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ জয়ী বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এক বার্তায় রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সব খেলোয়াড় ও ম্যানেজমেন্ট সংশ্লিষ্টদের অভিনন্দন জানান।

রবিবার (২৫ জুলাই) জিম্বাবুয়ের হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে শেষ টি-২০ ম্যাচে ১৯৪ রান তাড়া করে জেতে বাংলাদেশ। দ্বিপাক্ষিক টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের চতুর্থ সিরিজ জয় এটি। তিনটি জয়ই এলো দেশের বাইরে।

এবারের জিম্বাবুয়ে সফরে একমাত্র টেস্ট, তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সবক’টি জয়ের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতলো বাংলাদেশ।

আরও পড়ুন: স্বস্তির জয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

/ইএইচএস/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:০২

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ, ভারপ্রাপ্ত নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ আবু আশরাফ এবং বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার মার্শাল শেখ আব্দুল হান্নান।

রবিবার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে পৃথকভাবে তিন বাহিনীর প্রধান সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়ক আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন।

তিনি বলেন, ‘তিন বাহিনীর প্রধান রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ সময় রাষ্ট্রপতি সশস্ত্র বাহিনীর সদস্য ও তাদের পরিবারের সদস্যদের ঈদের শুভেচ্ছা জানান। তারা করোনাভাইরাস মোকাবিলা ও নিজ নিজ বাহিনীর উন্নয়নে গৃহীত পদক্ষেপগুলো সম্পর্কে রাষ্ট্রপতিকে অবহিত করেন।’

প্রেস সচিব জানান, সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে গোটা বিশ্ব আজ বিপর্যস্ত। বাংলাদেশেও করোনাভাইরাসের প্রভাব দিন দিন প্রকট হচ্ছে।’

রাষ্ট্রপতি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিটি সদস্যসহ সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কাজ করার আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতির কার্যালয়ের সচিব সম্পদ বড়ুয়া, সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম, প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন এবং সচিব (সংযুক্ত) ওয়াহিদুল ইসলাম খান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

 

/ইএইচএস/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদের হিসাব চেয়েছে সরকার

সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদের হিসাব চেয়েছে সরকার

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

ডেঙ্গু চিকিৎসায় আলাদা হাসপাতাল

ডেঙ্গু চিকিৎসায় আলাদা হাসপাতাল

মৃত্যু ও সংক্রমণে এগিয়ে ঢাকা: স্বাস্থ্য অধিদফতর

মৃত্যু ও সংক্রমণে এগিয়ে ঢাকা: স্বাস্থ্য অধিদফতর

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২০:১৪

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, করোনার সংক্রমণ কমাতে না পারলে শুধু হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা ক্রমাগত বাড়িয়ে লাভ হবে না। করোনার বিস্তার রোধে সরকারপ্রদত্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

রবিবার (২৫ জুলাই) প্রগতিশীল ন্যাপের ৬৪তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে দলের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক ও মওলানা ভাসানীর দৌহিত্র পরশ ভাসানীর সভাপতিত্বে অনলাইন আলোচনা সভায় মন্ত্রী ঢাকায় তার বাসভবন থেকে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

তিনি বলেন, মাওলানা ভাসানী প্রতিষ্ঠিত ন্যাপ সবসময়ই অপরাজনীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার। মওলানা ভাসানীর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে ড. হাছান বলেন, তিনি ক্ষমতার জন্য নয়, রাজনীতি করেছেন মানুষের কল্যাণে। এই নির্মোহ জননেতার কাছ থেকে আমাদের রাজনীতিবিদদের অনেক শেখার আছে। 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু, সকল মুক্তিযোদ্ধা, মওলানা ভাসানী এবং জাতীয় চার নেতার স্বপ্নের ঠিকানায় বাংলাদেশকে পৌঁছে দেওয়া। এজন্য অন্য দলগুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে।

প্রগতিশীল ন্যাপের সদস্য সচিব মোহাম্মদ আলী কিসমতের সঞ্চালনায় দলের সহ-আহ্বায়ক মোহা. ইলিয়াস, যুগ্ম আহ্বায়ক বাবুল আহমেদ, মোহাম্মদ মনিরুল হাসান মনির, মৌসুমী দেওয়ান মিনু এবং জেলা প্রতিনিধিরা সভায় অংশ নেন।

/এমএইচবি/এমআর/

সম্পর্কিত

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

সর্বশেষ

অক্সিজেন কারখানায় অভিযানে শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ

অক্সিজেন কারখানায় অভিযানে শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ

মেয়র আইভীর মায়ের মৃত্যু

মেয়র আইভীর মায়ের মৃত্যু

ভালো খেলতে পারাকেই বড় করে দেখছেন সৌম্য 

ভালো খেলতে পারাকেই বড় করে দেখছেন সৌম্য 

স্কুলশিক্ষার্থীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

স্কুলশিক্ষার্থীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

১ কোটি ১৮ লাখের বেশি ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ

১ কোটি ১৮ লাখের বেশি ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত

কুমিল্লায় একদিনে রেকর্ড ৭০১ শনাক্ত, মৃত্যু ১৫

কুমিল্লায় একদিনে রেকর্ড ৭০১ শনাক্ত, মৃত্যু ১৫

নৌ পুলিশের ওপর হামলা: প্রধান আসামি গ্রেফতার

নৌ পুলিশের ওপর হামলা: প্রধান আসামি গ্রেফতার

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাহস করে মারতে হয়: শামীম

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাহস করে মারতে হয়: শামীম

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

দুর্বল দেশগুলোকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া আবশ্যক

কপ-২৬ মন্ত্রিপর্যায়ের বৈঠকে পরিবেশমন্ত্রীদুর্বল দেশগুলোকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া আবশ্যক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

কোভিড মোকাবিলায় সামাজিক আন্দোলন গড়তে হবে: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট ও  ব্রুনাইয়ের সুলতানের জন্য আম পাঠালেন প্রধানমন্ত্রী

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

টি-২০ সিরিজ জেতায় রাষ্ট্রপতির অভিনন্দন

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে তিন বাহিনী প্রধানের সাক্ষাৎ

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

‘সংক্রমণ না কমিয়ে হাসপাতালের শয্যা বাড়িয়ে লাভ হবে না’ 

সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদের হিসাব চেয়েছে সরকার

সরকারি চাকরিজীবীদের সম্পদের হিসাব চেয়েছে সরকার

সচিবালয়ে সুনসান নীরবতা

সচিবালয়ে সুনসান নীরবতা

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

সরকারি ৭ হাসপাতালে আইসিইউ ফাঁকা নেই

মৃত্যু বেড়ে ২২৮, শনাক্ত ১১ হাজার ২৯১

মৃত্যু বেড়ে ২২৮, শনাক্ত ১১ হাজার ২৯১

ডেঙ্গু চিকিৎসায় আলাদা হাসপাতাল

ডেঙ্গু চিকিৎসায় আলাদা হাসপাতাল

© 2021 Bangla Tribune