X
রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

কলার খোসার গৃহস্থালি ব্যবহার

কলা খাওয়ার পর খোসা ফেলে দিই আমরা। ফেলে না দিয়ে কিন্তু খোসা কাজে লাগানো যায় নানাভাবে। জেনে নিন ঘরোয়া কাজে কলার খোসার কিছু ব্যবহার সম্পর্কে।

আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:৪৫

রূপার গয়না চকচকে করতে
অনেকদিন ধরে রূপার গয়না অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে থাকলে তা ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে ফেলে। কলার খোসা পেস্ট করে খানিকটা পানি মিশিয়ে পাতলা করে নিন। মিশ্রণটি দিয়ে গয়না পরিষ্কার করে নিন। আগের মতো চকচকে হয়ে যাবে।

মাটির উর্বরতা বাড়াতে
খুব ভালো সার হিসেবে কাজ করে কলার খোসা। কলার খোসা ছোট ছোট টুকরো করে কেটে নিন। সেগুলো মাটির নিচে পুঁতে দিন। খোসা থেকে মিথেন গ্যাস তৈরি হয়, যা গাছের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। গাছের আশপাশে কলার খোসা লাগিয়ে রাখুন। খোসা থেকে মাটি তৈরি হবে, যে মাটিতে থাকবে পরিপোষক পদার্থ। এছাড়া কলার খোসা সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে পানিটুকু দিন গাছে। গাছ দ্রুত বাড়বে।

জুতা চকচকে করতে
জুতা পালিশ করতেও দারুণ কাজে আসে কলার খোসা। এক টুকরো কলার খোসা চামড়ার জুতার ওপর ভালো করে ঘষুন। চকচকে হবে জুতা।

মাংস নরম করতে
মাংস রান্নার আগে কলার খোসার কুচি দিয়ে আধা ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন। মাংস নরম হয়ে যাবে দ্রুত।

/এনএ/

সম্পর্কিত

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ২৩:১২

বাইরে যত শক্তই দেখাক, ভেতরটা টসটসে। অনেক আগে শুধু হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জে এ ফলের চাষ হলেও এখন সবখানেই পাওয়া যায় আনারস। জেনে নেওয়া যাক রসালো ফলটির নানা গুণের কথা।  

  • আনারসকে বলা হয় পুষ্টির আধার। এতে আছে প্রচুর ভিটামিন এ, সি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ফসফরাস।
  • ভিটামিন সি থাকার কারণে আনারস ঠান্ডা, সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা করবে। পাশাপাশি ভাইরাসজনিত রোগ থেকেও বাঁচাবে।
  • আনারসে রয়েছে মিনারেল, ফাইবার ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা কোলেস্টেরলের পাশাপাশি ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়।
  • দাঁত ও মাড়ির সমস্যা সমাধানে আনারস ভালো কাজ করে।
  • আনারসে থাকা ক্যালসিয়াম ও ম্যাঙ্গানিজ হাড় বা বাতের ব্যথা প্রতিরোধ করে।
  • আনারসে থাকা বিটা ক্যারোটিন আমাদের চোখের রেটিনা নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা ৩০ শতাংশ কমিয়ে আনে ও ম্যাক্যুলার ডিগ্রেডেশন থেকে রক্ষা করে।
  • জ্বর, জন্ডিস, পেটে ব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্য, ডায়রিয়াসহ নানা সমস্যায় আনারস উপকার করে।
  • চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যাও দূর করে। ত্বক টানটান রাখে আনারস।
  • আনারসে থাকা ব্রোমেলানিন এনজাইম সাইনোসাইটিস, ব্রঙ্কাইটিস ও আলঝেইমার্স-এর ঝুঁকি কমায়।
  • আনারস হজমশক্তি বাড়ায়।
/এফএ/

সম্পর্কিত

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬:০০

ডিমের প্রচলিত তরকারি খেয়ে বিরক্ত? ডিম দিয়েও চাইলে করা যায় একেবারে নতুন কিছু। রান্না করতে পারেন ডিম মাখানি। পরোটা বা বাটার গার্লিক নানের সঙ্গে উপভোগ করতে পারেন খাবারটি।

 

যা যা লাগবে

  • ৪টি সিদ্ধ ডিম
  • ১ চা চামচ মাখন
  • ২ টেবিল চামচ ফ্রেশ ক্রিম
  • ১ চা চামচ মরিচের গুড়াঁ
  • ১ চা চামচ ধনিয়া গুড়াঁ
  • ১/৪ চা চামচ জিরা
  • ১/৪ চা চামচ গরম মশলার গুঁড়া
  • ১ ইঞ্চি আদা কুচি
  • ৩ কোয়া রসুন কুচি
  • ১টি মাঝারি আকৃতির পেঁয়াজ কুচি
  • ২টি কাঁচা মরিচ
  • ২টি টমেটো কুচি
  • প্রয়োজনমতো লবণ
  • এক চিমটি গোল মরিচ
  • ২ টেবিল চামচ ধনিয়া পাতা কুচি
  • ১ টেবিল চামচ ঘি

 

প্রস্তুত প্রণালী

  • ব্লেন্ডারে আদা, জিরা, কাঁচামরিচ, রসুনের পেস্ট তৈরি করুন।
  • প্যানে ঘি গরম করে পেঁয়াজ দিন। বাদামি না হওয়া পর্যন্ত ভাজুন। তারপর প্যানে আদা রসুনের পেস্ট যোগ করুন।
  • মিশ্রণটিতে টমেটো দিয়ে নাড়ুন। আলু মিক্সড করার জন্য প্রয়োজনে ভেজিটেবল ম্যাশার ব্যবহার করুন। সবকিছু ভালোভাবে মিশে গেলে গুঁড়ো মরিচ, গরম মশলা, ধনিয়ে গুঁড়া, লবণ, গোল মরিচ দিন।
  • মাঝারি আঁচে পাঁচ মিনিট রান্না করুন। তেল ভেসে উঠলে তাতে সেদ্ধ ডিম দিন। এরপর আরও পাঁচ মিনিট রাখুন। ধনিয়া পাতা কুচি দিয়ে সাজিয়ে নিন।
  • রান্না হয়ে গেলে সবার উপরে মাখন (তরল করা) এবং ধনিয়ো পাতা দিয়ে ফ্রেশ ক্রিম ঢেলে দিন।
/এফএ/

সম্পর্কিত

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

আপডেট : ৩১ জুলাই ২০২১, ১৩:৫৯

কাজের জন্য দিনের একটা বড় অংশ আমাদের কম্পিউটারের সামনেই কেটে যায়। ফলাফল- ঘাড়, কোমরসহ নানা জায়গায় জুড়ে বসে ব্যথা। চেয়ার ছেড়ে উঠে নড়াচড়া না করতে চাইলে, চেয়ারে বসে কিংবা এর কাছেই সেরে নিতে পারেন ব্যায়াম।

 

কাঁধের ব্যায়াম

হাঁটার সময় আপনার হাত দুটো যেভাবে নড়তে থাকে, সেভাবেই হাতজোড়া জোরে জোরে সামনে-পেছনে আনবেন। টানা ২০ সেকেন্ড এমন করতে থাকবেন।

 

ডেস্ক পুশ আপ

ডেস্ক পুশ আপ

ডেস্কের ওপর ভর দিয়ে পা দুটো পেছনে নিন। আপনার পুরো ভর হাতে ও ডেস্কের ওপর থাকবে। এরপর ২০টা পুশ আপ দিন।

 

স্কোয়াট

স্কোয়াট

চেয়ার পেছনে রেখে বসার মতো করে হাঁটু ভাঁজ করে কোমর ও পিঠ সোজা রেখে দাঁড়ান। দাঁড়ানোর সময় হাত দুটো একেবারে সামনের দিকে টানটান করে ছড়িয়ে দিন। এভাবে ৩০ বার এ কাজ করুন।

 

সিটেড বাইসাইকেল ক্রাঞ্চ

সিটেড বাইসাইকেল ক্রাঞ্চ

হাত দুটো মাথার পেছনে রাখুন। দুই পা সোজা করে একটু ওপরে উঠান। এবার বাম পা সোজা রেখে ডান পা ভেঙে বুকের কাছে নিয়ে আসুন। এসময় আপনার কোমর থেকে উপরিভাগ বাম দিকে একটু কাত করুন। একইভাবে ডান পা সোজা রেখে বাম পা ভেঙে পুনরায় করুন। যেন মনে হয়, আপনি সাইকেল চালাচ্ছেন। এই কাজ ৩০ সেকেন্ড ধরে করুন।

 

স্ট্রেচিং

স্ট্রেচিং

হাত, পা, ঘাড়, কোমর ও কাঁধের স্ট্রেচিং করতে পেশি ৩-৫ সেকেন্ড টান টান করে আবার ছেড়ে দিতে হবে। তারপর বড় করে শ্বাস নিয়ে ধীরে ধীরে শ্বাস ছেড়ে দিতে হবে। তারপর আবার স্ট্রেচিং করতে হবে।/এফএ/

/এফএ/

সম্পর্কিত

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫:৩০

স্বাস্থ্যকর খাবারের মধ্যে খাবারটি অন্যতম। কারণ এটি রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। হৃদরোগ, স্ট্রোক ও আরও কিছু রোগের ঝুঁকিও কমায়। এর বাইরে পানিশূন্যতা রোধ এবং হজমেও উপকার করে। বলছিলাম টক দইয়ের কথা। এটাও জেনে রাখুন, টক দই কিন্তু পেটের চর্বিও ঝরাতে পারে!

টক দই ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ। এটি দেহের বিএমআই ইনডেক্স ঠিক রাখে। তাই সুতরাং, ডায়েটে অতিরিক্ত ক্যালোরি কমাতে সহায়ক এটি।

ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর যা নিয়ম করে খেতেই হয় সেটা হলো প্রোটিন। টক দই কম শর্করা ও উচ্চ প্রোটিনযুক্ত খাবার। এতে শরীরের আমিষের চাহিদা মিটলেও ওজন বাড়বে না।

পেটের অতিরিক্ত মেদ কাটাতেও দই ভলো ভূমিকা রাখে। আমেরিকান ডায়েট অ্যাসোসিয়েশনের গবেষণাও বলছে, নিয়মিত টক দই খেলে পেটের অতিরিক্ত চর্বি ঝরতে থাকে। ক্যালসিয়ামই এ কাজটা করে। ১০০ গ্রাম দইয়ে আছে ৮০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম।

  • সকালের নাস্তায় এককাপ দই আর হালকা ফল খান। এতে সারাদিন খিদেবোধ কম হয়।
  • দুপুর ও রাতের খাবারে এক বাটি টক দই রাখুন।
  • ফল বা সবজির রাইতা তৈরিতে টক দই ব্যবহার করুন।
  • চিনিযুক্ত দই এড়িয়ে চলুন।
  • সরাসরি টক দই খেতে ইচ্ছে না করলে লাচ্ছি বানিয়ে খেতে পারেন। এক্ষেত্রে লবণ যতটা সম্ভব কম দিন।
/এফএ/

সম্পর্কিত

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

১ আগস্ট বন্ধু দিবস

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ০৮:০০

বন্ধু দিবস তো এসেই গেলো। জাতিসংঘ ৩০ জুলাই আন্তর্জাতিক বন্ধু দিবস ঘোষণা করলেও বেশিরভাগ দেশেই আগস্টের প্রথম রবিবার এ দিবস পালন করা হয়। আমরাও এর ব্যতিক্রম নই। এদিকে করোনার কারণে বন্ধুর সঙ্গে সামনাসামনি দেখা নেই অনেকদিন। কিন্তু যুগ তো অনলাইনের। তাই কয়েক ক্লিকেই বন্ধুর দোরগোড়ায় পাঠিয়ে দিতে পারেন ভিন্ন এক উপহার।

 

বই ও ‍বুকমার্ক

গিফট হিসেবে বুকমার্কও এখন চলছে বেশ

বইয়ের চেয়ে ভালো উপহার আর হতেই পারে না। মহামারি ও লকডাউনের সময়টাতে তাই দ্বারস্থ হতে হবে অনলাইন বই বিক্রেতাদের কাছেই। রকমারি, বাংলাবাজার বুকস, অবসর, বুকওয়ার্ম বিডি, আনন্দ বুকস, বুক আউলস-সহ অনেক অনলাইন শপে বই তো অর্ডার করতে পারবেনই, সেই সঙ্গে রয়েছে র‌্যাপিং কাগজে মুড়ে দেওয়ার ব্যবস্থাও।

এ নিয়ে কথা হয় অনলাইন বুকশপ 'Book Owls'-এর সাথে। প্রতিষ্ঠানটি জানালো, তাদের উপহার মোড়ানোও হয় চমৎকারভাবে। প্রতিটি বইয়ের সঙ্গে থাকে একটি বুকমার্ক ও গিফট কার্ড। যেখানে লিখে দিতে পারেন মনের কথা।

 

পোস্টকার্ড, ফ্রেমড আর্ট, টাইপোগ্রাফি

টাইপোগ্রাফিও হতে পারে উপহার

কেমন হয়, যদি আপনার পছন্দের গানের লাইন বন্ধুর ঘরের দেয়ালে চমৎকার নকশায় চলে আসে? ‘বাংলায় লিখি’, ‘থ্রি সিক্সটি বিডি’, ‘দাঁড়কাক’সহ অনেক পেজেই এই সেবা পাবেন। 'বাংলায় লিখি' পেজের সত্ত্বাধিকারী নিশাত বিনতে মনসুরকে জানিয়ে দিলেই তিনি সুন্দর করে আপনার বার্তাটি ফুটিয়ে তুলবেন কার্ডে। সেটা বাঁধাই করে পাঠানোর ব্যবস্থাও আছে ঠিকানামতো।

সম্পূর্ণ নতুন ছবির জন্য চার্জ পড়ে এক হাজার থেকে দেড় হাজার টাকা। আবার চাইলে তার স্টকে থাকা ফ্রেমড আর্ট কিনতে পারেন ৩৮০ টাকার মধ্যেই। ফ্রেম ছাড়া দাম ১৫০ টাকা। নিশাতের জনপ্রিয় ভিন্টেজ পোস্টকার্ড সিরিজ 'জাদুর শহর ঢাকা'র মূল্য ১৮০ টাকা। বাংলায় লিখিকে পাওয়া যাবে ইনস্টাগ্রামে

 

সুগন্ধি মোমবাতি

অনলাইনে নিউটন'স আর্কাইভ, ইলনর বিডি, নাজেলড, ক্যান্ডেলকাপবিডি, ভিনসেন্ট'স স্পিয়ারসহ অনেক পেজ সুগন্ধি মোমবাতি বিক্রি করে। এগুলোর দাম সাইজ ও নির্ভর করে আপনি কেমন করে চান সেটার ওপর। দাম শুরু ৩৫০ টাকা থেকে। বড় আকারের মোমবাতির দাম পড়বে ১২০০ টাকা। ভিনসেন্ট'স স্পিয়ারে পাবেন ৩০ রকমের মোমবাতি। প্রতিটি মোমবাতিই বিভিন্ন সিনেমা, গান বা বইয়ের থিমে বানানো।

 

মাটি ও কাঠের গয়না

চমৎকার মাটির রিং

বন্ধুকে পাঠাতে পারেন মাটির কানের দুল, লকেট বা চাবির রিং। এর মধ্যে আবার থাকতে পারে বন্ধুর প্রিয় বই, কার্টুন বা চরিত্রের অবয়ব। অথবা বন্ধুর নিজের চেহারাটাই। ‘সুমাইতাস ডিপোজিটরি’, ‘ফামি ওয়াবিসাবি’, ‘উডেন ড্রিমস’ পেজগুলোত এমনই চমৎকার কিছু গয়না ও অনুষঙ্গ পাবেন। ফামি ওয়াবিসাবিতে একজনের পোর্ট্রেট দিয়ে চাবির রিং বানাতে খরচ হবে ২৮০ টাকা। দুজনের পোর্ট্রেট দিয়ে রিংয়ের দাম ৪০০ টাকা। নিজের ও নিজের পোষা প্রাণীর পোর্ট্রেট দিয়ে চাবির রিং ৩০০ টাকা।

 

কাস্টমাইজড গান

এ এক ব্যতিক্রমী উপহার বটে। এ হলো এমন এক উপহার যা আর কারও কাছেই থাকবে না। বন্ধুকে নিয়ে একটা গান বানিয়ে চমকে দিলে কেমন হয়? এই ভাবনা থেকেই তৈরি হয়েছে আহমেদ রিফাত কবিরের 'সেরেনেড ইয়োর বিলাভেড'। তিনি একটি নির্দিষ্ট মূল্যের বিনিময়ে আপনার প্রিয় মানুষটাকে নিয়ে একটা গান বানিয়ে দেবেন। সেই গানের লাইনগুলোর প্রথম অক্ষর মেলালে দেখা যাবে প্রিয় মানুষটার নাম বের হয়ে আসবে।  

 

থিমড জার্নাল

থিমেটিক জার্নাল

ধরুন বন্ধুর প্রিয় ফুটবল দল আর্জেন্টিনা বা ব্রাজিল। এখন বন্ধুকে আর্জেন্টিনা কিংবা ব্রাজিলের ফ্লেভার আছে এমন কিছু একটা দিতে চান। এক্ষেত্রে উপহার দিতে পারেন থিমড জার্নাল। ‘আর্ট উইথ ক্রাফটি মাইশা’, ‘ক্রিয়েটিভ লী’-সহ নানান পেইজে এমন ভিন্নধর্মী জার্নাল পাবেন। 'ক্রিয়েটিভ লী' পেইজের শৈলী ইসলাম জানালেন, তিনি গ্রাহকদের আবেগ-অনুভূতিই জার্নালের মলাট ও পাতায় ফুটিয়ে তোলেন। এ ছাড়াও সেখানে পাবেন হ্যান্ডমেইড ডিজাইনার খাম, কার্ড, পোস্টকার্ড ইত্যাদি।

/এফএ/

সম্পর্কিত

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

সর্বশেষ

কেন বারবার একই ভুল

কেন বারবার একই ভুল

তুরস্কে দাবানলের তাণ্ডবে পুড়ে মরছে পশু-পাখি

তুরস্কে দাবানলের তাণ্ডবে পুড়ে মরছে পশু-পাখি

এখনও শেষ হয়নি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার

এখনও শেষ হয়নি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার

মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে মিয়ানমার জান্তা

মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে মিয়ানমার জান্তা

উচ্ছেদ হবেন লাখ লাখ মার্কিনি!

উচ্ছেদ হবেন লাখ লাখ মার্কিনি!

আগস্টের প্রথম প্রহরে শত আলো জ্বললো

আগস্টের প্রথম প্রহরে শত আলো জ্বললো

বিক্ষোভে উত্তাল ফ্রান্স

বিক্ষোভে উত্তাল ফ্রান্স

‘দূরপাল্লার বাসে শ্রমিকরা আসতে চাইলে, সেই বাস পুলিশ ধরবে না’

‘দূরপাল্লার বাসে শ্রমিকরা আসতে চাইলে, সেই বাস পুলিশ ধরবে না’

কর্মস্থলে ফেরা হলো না ২ পোশাকশ্রমিকের

কর্মস্থলে ফেরা হলো না ২ পোশাকশ্রমিকের

ফের বাবা হচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ফের বাবা হচ্ছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের স্কুলে এনে সশরীরে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ

শিক্ষার্থীদের স্কুলে এনে সশরীরে পরীক্ষা নেওয়ার অভিযোগ

কারখানা খুলতে মানতে হবে ১৫ শর্ত

কারখানা খুলতে মানতে হবে ১৫ শর্ত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

এই সময় আনারস কেন খাবেন?

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

রেসিপি : মাখনের স্বাদে ডিম মাখানি

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

ডেস্কে বসেই ব্যায়াম করুন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

পেটের চর্বি কমাতে যা খাবেন

বন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

১ আগস্ট বন্ধু দিবসবন্ধুর জন্য ভিন্ন কিছু

মোবাইল থেকে শিশুকে দূরে রাখবেন কী করে?

মোবাইল থেকে শিশুকে দূরে রাখবেন কী করে?

লকডাউনে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখবেন কী করে?

লকডাউনে ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখবেন কী করে?

বন্ধু দিবসে যথাশিল্পে ফ্রি ডেলিভারি

বন্ধু দিবসে যথাশিল্পে ফ্রি ডেলিভারি

রেসিপি : প্রশান্তির পাঁচ শরবত

রেসিপি : প্রশান্তির পাঁচ শরবত

চুলের জন্য অ্যাপেল সিডার ভিনেগার

চুলের জন্য অ্যাপেল সিডার ভিনেগার

© 2021 Bangla Tribune