সেকশনস

উপমহাদেশের স্বার্থে পাকিস্তানের স্বীকৃতি জরুরি

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৮:০০

(বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে বঙ্গবন্ধুর সরকারি কর্মকাণ্ড ও তার শাসনামল নিয়ে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বাংলা ট্রিবিউন। আজ পড়ুন ১৯৭৩ সালের ২৩ জানুয়ারির ঘটনা।)

১৯৭৩ সালের ২৩ জানুয়ারি। তখনও পাকিস্তান বাংলাদেশকে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া নিয়ে নানা টালবাহানা করছে। সেদেশে আটক বাঙালিদের বিচার করার হুমকি থেকে শুরু করে, তাদের ফিরতে না দেওয়া, এমনকি যুদ্ধাপরাধীদের ছেড়ে দিতে নানা কৌশল আটছে। এই পরিস্থিতিতে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সরদার শরণ সিং বলেন, ‘বাংলাদেশকে স্বীকৃতিদানের প্রশ্নে পাকিস্তানের অব্যাহত দোদুল্যচিত্ততা উপমহাদেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।’ বাসসের বিশেষ সংবাদদাতা আতাউস সামাদের সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তিনি একথা বলেন।

সরদার শরণ সিং বলেন, ‘আমাদের নতুন উপলব্ধি হচ্ছে, বাংলাদেশ, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা ছাড়া বিশ্বের এই অঞ্চলের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা যাবে না। পাকিস্তান এ বাস্তবতাকে মেনে না নেওয়ায় দ্রুত স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার পথে অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।’ এই সাক্ষাৎকারে সরদার সিংকে উপমহাদেশের সাধারণ পরিস্থিতি এবং ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্কে প্রদত্ত বিভিন্ন বিবৃতির ওপর মন্তব্য করতে বলা হয়।

সম্প্রতি ভারতে প্রদত্ত এসব বিবৃতির কয়েকটিতে যুদ্ধবন্দি প্রশ্নে ভারত সরকারকে তার নীতি পরিবর্তনের আহ্বান জানানো হয়। স্বতন্ত্র পার্টির নেতা শ্রী পিলু মোদি এ ধরনের একটি বিবৃতি দিয়েছিলেন। এক শ্রেণির সংবাদপত্রেও এই মত প্রকাশ করা হয়। সরদার সিং উপমহাদেশের ঘটনাবলীর কালানুক্রমিক পর্যালোচনা করে এ প্রশ্নের এক দীর্ঘ জবাব দেন।

দৈনিক বাংলা, ২৪ জানুয়ারি ১৯৭৩ বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে কোনও গোপন চুক্তি নেই

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুস্পষ্টভাবে বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কোনও গোপন চুক্তি নেই।’ বাসসের প্রতিনিধির সঙ্গে দেওয়া এই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্ক— দুইটি বন্ধু ভাবাপন্ন প্রতিবেশী দেশের স্বাভাবিক সম্পর্ক। ১৯৭২ সালের মার্চ মাসে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সম্পাদিত শান্তি ও সহযোগিতা চুক্তি একটি প্রকাশ্য দলিল। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে কোনও গোপন ব্যবস্থা নেই। এরকম প্রচারের কোনও ভিত্তি নেই।’

শরণ সিং বলেন, ‘দুই দেশের সরকার আশা প্রকাশ করে যে, বাংলাদেশ-ভারত এই দুই রাষ্ট্রের জনগণ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সাধারণ শত্রুর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। বাংলাদেশকে পাকিস্তানের স্বীকৃতিদানের প্রশ্নটি ক্রমাগত উপমহাদেশের স্বাভাবিক অবস্থা প্রতিষ্ঠার পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে।’

দৈনিক ইত্তেফাক, ২৪ জানুয়ারি ১৯৭৩ মনোনয়নের আবেদনপত্র বাছাই শুরু

এ দিনে অনুষ্ঠিত হয় আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের বৈঠক।  প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের আবেদনপত্র যাচাই করে দেখেন। আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড রাজশাহী বিভাগের সব মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন এদিন। দলীয় প্রধান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সংসদীয় বোর্ডের বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। টানা ৯ ঘণ্টা বৈঠক চলে। এ সময় সব সদস্যই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন। গাইবান্ধার মহিলা কর্মী রওশন আরা বকুল সাধারণ আসনের জন্য এই বোর্ডের সামনে হাজির হয়েছিলেন। খুলনা বিভাগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার গ্রহণের জন্য পরের দিন সকালে প্রধান কার্যালয়ে দলের সংসদীয় বোর্ডের বৈঠক বসবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

ভূমিহীন কৃষক পাবেন খাসজমি

এপ্রিল নাগাদ ভূমিহীন কৃষকদের মাঝে খাসজমি দেওয়ার কাজ শুরু হবে। বাংলাদেশের ঘোষিত ভূমি সংস্কার বাস্তবায়ন ও সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি সম্পর্কে মূল্যায়নের জন্য সরকার একটি জরিপ ও মূল্যায়ন সেল গঠন করে। ভূমি প্রশাসন ও ভূমি সংস্কার মন্ত্রণালয়ের অধীনে এটি গঠন করা হয়। কমিটি কাজ শুরু করেছে বলে জানান ভূমি প্রশাসন ও ভূমি সংস্কারমন্ত্রী আব্দুর রব সেরনিয়াবাত। ১৯৭৩ সালের এই দিনে সাংবাদিকদের সঙ্গে বিশেষ সাক্ষাৎকারে একথা জানানো হয়।

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে

টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে

ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু: আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ এপ্রিল

ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু: আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ এপ্রিল

অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ৩০ হাজার ‘বীর নিবাস’ হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী 

অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ৩০ হাজার ‘বীর নিবাস’ হবে: মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী 

মুশতাকের মৃত্যুতে বিদেশিদের বক্তব্য শিষ্টাচার বহির্ভূত: তথ্যমন্ত্রী

মুশতাকের মৃত্যুতে বিদেশিদের বক্তব্য শিষ্টাচার বহির্ভূত: তথ্যমন্ত্রী

গ্রেফতার শিক্ষার্থীদের মুক্তির দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ

গ্রেফতার শিক্ষার্থীদের মুক্তির দাবিতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ

বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতে আটকে আছে ৫৫০০ পণ্যবাহী ট্রাক

বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতে আটকে আছে ৫৫০০ পণ্যবাহী ট্রাক

ডিএনসিসিতে কিউলেক্স মশা নিধনে আসছে সমন্বিত অভিযান

ডিএনসিসিতে কিউলেক্স মশা নিধনে আসছে সমন্বিত অভিযান

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবিতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের দাবিতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

দুদকের তদন্ত কর্মকর্তার অনৈতিক দাবির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আসামিরা

দুদকের তদন্ত কর্মকর্তার অনৈতিক দাবির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আসামিরা

মেডিক্যালের ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে মানববন্ধন

মেডিক্যালের ভর্তি পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে মানববন্ধন

নিবন্ধন ৪৫ লাখ, টিকা নিয়েছেন সাড়ে ৩৩ লাখ

নিবন্ধন ৪৫ লাখ, টিকা নিয়েছেন সাড়ে ৩৩ লাখ

২৬ মার্চ থেকে ঢাকা-জলপাইগুড়ি চলবে ট্রেন

২৬ মার্চ থেকে ঢাকা-জলপাইগুড়ি চলবে ট্রেন

সর্বশেষ

ভাবির বিরুদ্ধে দেবরকে খুনের অভিযোগ

ভাবির বিরুদ্ধে দেবরকে খুনের অভিযোগ

করোনায় জুমের জয়-জয়কার

করোনায় জুমের জয়-জয়কার

‘‌একটি গন্ধমের লাগিয়া’-খ্যাত শিল্পী জানে আলম আর নেই

‘‌একটি গন্ধমের লাগিয়া’-খ্যাত শিল্পী জানে আলম আর নেই

ঢিলে নিরাপত্তায় ইবিতে বাড়ছে চুরি

ঢিলে নিরাপত্তায় ইবিতে বাড়ছে চুরি

মৌলবাদীদের সঙ্গে জোট নিয়ে কংগ্রেসে বিরোধ

মৌলবাদীদের সঙ্গে জোট নিয়ে কংগ্রেসে বিরোধ

যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে হত্যা: স্বামী কারাগারে

যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে হত্যা: স্বামী কারাগারে

যুক্তরাজ্যের টিকা সংক্রান্ত তথ্য অন্যদেরও কাজে লাগবে: অ্যাস্ট্রাজেনেকা

যুক্তরাজ্যের টিকা সংক্রান্ত তথ্য অন্যদেরও কাজে লাগবে: অ্যাস্ট্রাজেনেকা

কারাবন্দি মুশতাকের মৃত্যু: তদন্ত কমিটির সময় বাড়লো

কারাবন্দি মুশতাকের মৃত্যু: তদন্ত কমিটির সময় বাড়লো

টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে

টেলিটকসহ ৪ অপারেটরই তরঙ্গ নিলামে অংশ নিচ্ছে

রাতটা কাটলো শুধু পুলিশ হেফাজতে

রাতটা কাটলো শুধু পুলিশ হেফাজতে

‘এক মাস আগে মাটি কাটছি, আইজও টেকা দেয় না পিআইসি’

‘এক মাস আগে মাটি কাটছি, আইজও টেকা দেয় না পিআইসি’

ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু: আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ এপ্রিল

ধানমন্ডিতে শিক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু: আসামিদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ১২ এপ্রিল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মুশতাকের মৃত্যুতে বিদেশিদের বক্তব্য শিষ্টাচার বহির্ভূত: তথ্যমন্ত্রী

মুশতাকের মৃত্যুতে বিদেশিদের বক্তব্য শিষ্টাচার বহির্ভূত: তথ্যমন্ত্রী

নিবন্ধন ৪৫ লাখ, টিকা নিয়েছেন সাড়ে ৩৩ লাখ

নিবন্ধন ৪৫ লাখ, টিকা নিয়েছেন সাড়ে ৩৩ লাখ

২৬ মার্চ থেকে ঢাকা-জলপাইগুড়ি চলবে ট্রেন

২৬ মার্চ থেকে ঢাকা-জলপাইগুড়ি চলবে ট্রেন

সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা

সেচ মৌসুমে লোডশেডিংয়ের শঙ্কা

আকার কমিয়ে সংশোধিত এডিপি অনুমোদন

আকার কমিয়ে সংশোধিত এডিপি অনুমোদন

আরও টিকা কেনা হবে, টাকা প্রস্তুত রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

আরও টিকা কেনা হবে, টাকা প্রস্তুত রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৫১৫

২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, শনাক্ত ৫১৫

চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ

চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.