X
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

বাম-আব্বাস ‘অশুভ জোট’ নিয়ে ক্ষুব্ধ সিপিএমের সাবেক নেতারা

আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৯:৪৮

পশ্চিমবঙ্গের বামফ্রন্ট সভাপতি তথা সিপিএম নেতা বিমান বসু সাফ বলেছেন, তারা ফুরফুরা শরিফের পিরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির দলের সঙ্গে জোট বাঁধতে চান। শুধু তাই নয়,  এই জোটের সমঝোতা হিসেবে বামফ্রন্ট তাদের ৩০ টি বিধানসভা আসন ছাড়তেও চলেছে। সিপিএমের এই সিদ্ধান্তকে ‘অশুভ জোট’ আখ্যা দিয়ে বাংলায় মেরুকরণের রাজনীতির অভিযোগ তুললেন দলটির সাবেক নেতারা।

মুসলিম ভোট ব্যাংকের জন্যই এই সিদ্ধান্ত, এমন অভিযোগ করলেন একদা সিপিএমের দক্ষিণ ২৪ পরগণার জেলা সভাপতি বর্তমানে পিডিএস দলের নেতা সমীর পুততু। তিনি বলেন, ‘যাদের নিয়ে বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেস এতদিন তৃণমূলের বিরুদ্ধে যৌথ আন্দোলন করলো, সেই ১৬ বামদলের সঙ্গে আসনরফা হলো না! অথচ, মুসলিম ভোটের জন্য আব্বাসের দলের সিপিএম সঙ্গে আসন রফা চূড়ান্ত করছে। আসলে আমরা তো হিন্দু বা মুসলিম ভোট আনতে পারব না। এটি কোনও রাজনৈতিক সমঝোতা নয়। মুসলিম ভোট পাওয়ার সমঝোতা। এতে সুবিধা বিজেপিরই হবে।’

সমীরবাবু আরও বলেন, ‘১৯৬৭ সালে বাংলায় মুসলিম লিগ ছিল। তারপর আর তারা নেই কেন? তার মানে ধীরে ধীরে রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতির বদল হয়েছে। সাম্প্রদায়িকতা ছেড়ে মানুষ বামেদের দিকে গিয়েছেন। মুসলিম লিগ বাংলার রাজনীতিতে অপ্রাসাঙ্গিক হয়ে গিয়েছে। তা হলে নতুন করে গজিয়ে ওঠা একটা দল তার কি প্রাসঙ্গিকতা আছে? ওদের দাবিগুলোর সঙ্গে বামপন্থী মানসিকতা মিলছে না। আব্বাসরা জানেন তাদের দলের অসাম্প্রদায়িক নাম না হলে বামেদের পাওয়া যাবে না। তাই তারা দলের ওইরকম নাম দিয়েছেন। কিন্তু এটি মনে রাখতে হবে তারা মীমের সঙ্গে বৈঠক করছে। ওয়েয়াসি আব্বাসের বাড়িতে গিয়েছে। এসব নিয়ে কিন্তু আমরা সোচ্চার হয়েছি।’

সিপিএমের কলকাতার সাবেক হেভিওয়েট নেতা বাদশা আলমের মতে, ‘মুসলিম ভোট ব্যাংকের রাজনীতি সিপিএম সবসময় করেছে। এবার সেটা প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে। আব্বাস সিদ্দিকিরা সাম্প্রদায়িক। এরা সবসময় নিজস্ব গণ্ডির মধ্যেই থাকে। সিপিএম জনগণকে কি বোকা ভাবে? মুসলিম ভোট কীভাবে পাওয়া যায় তা নিয়ে সিপিএম সবসময় ফন্দি-ফিকির করে। নানা সাম্প্রদায়িক নিরাপত্তার কথা বলে মুসলমানদের আকৃষ্ট করার চেষ্টা করে। এজন্য গোটা দলটাই আজ বিপন্ন। শুধু বিপন্ন নয়, নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে। এই সমর্থন চাওয়ার মানে হচ্ছে অন্য সম্প্রদায়ের সুনজর থেকে বঞ্চিত হওয়া।’

বাদশা আরও বলেন, ‘ভারতে ৮০ ভাগ মানুষ অমুসলিম। মুসলমানদের সাইকোলজি আমি জন্মের পর থেকে দেখে আসছি। তারা সবসময় সংখ্যাগরিষ্ট সম্প্রদায়ের পক্ষে থাকেন। তাই বাংলায় সিপিএম বা তৃণমূল আমলে তারা শাসকদলের পক্ষে ছিলেন। আর এবার তারা বিজেপির পক্ষে থাকবেন।’

সদ্য সিপিএম ত্যাগী যাদবপুরের ১০২ নম্বর ওর্য়াডের বিদায়ি কাউন্সিলর রিঙ্কু নস্কর বলেন, ‘আসলে এই জোটের নামে সিপিএম সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। এর ফলে এটি পরিষ্কারভাবে বোঝা গেলো যে, বাংলায় ধর্মীয় মেরুকরণে জন্য তারা যে বিজেপির ঘাড়ে দোষ চাপায় সেটি তারাও করছে- ধর্মনিরপেক্ষতার ভাওতা দিয়ে মেরুকরণের রাজনীতি করা। ক্ষমতায় আসার জন্য সিপিএম যেকোনও পথ অবলম্বন করতে পারে। তারা যে একটা বিশেষ ধর্ম সম্প্রদায়কে যে প্রাধান্য দেয় তা আবারও প্রমাণ হলো।’

সিপিএমের সাবেক যুবনেতা বর্তমানে বিজেপির সঙ্গে যুক্ত গোবিন্দ দাস বলেন, ‘সিপিএম কোনও দিনই ধর্মনিরপেক্ষ ছিল না। কেরলে তারা মুসলিম লিগের সঙ্গে জোট করে লড়েছে। এবার বাংলায়ও করছে। আজ যে বাংলায় তোষণের রাজনীতি চলছে তার জন্ম দিয়েছে সিপিএম। মাদ্রসা শিক্ষা চালু রাখা, যা এখন তৃণমূল আমলে এসে ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। এতে বাংলার মুসলিম সমাজেরও ক্ষতি হয়েছে। তাদের প্রকৃত শিক্ষা, চাকরি বা উন্নয়ন কোনোটাই হয়নি। তারা শুধু ভোট ব্যাংক হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছেন। রাষ্ট্রের মঙ্গল চিন্তা থেকে মুসলিমদের দূরে সরিয়ে রাখার কাজটাই করেছে সিপিএম-তৃণমূল।’

 

/এএ/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

সম্পর্ক মেরামতে সৌদি-ইরানি কর্মকর্তাদের বৈঠক

সম্পর্ক মেরামতে সৌদি-ইরানি কর্মকর্তাদের বৈঠক

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

পশ্চিমবঙ্গে সরকার গড়ছে বিজেপি, মুম্বাইয়ের সাট্টা বুকিদের দাবি

পশ্চিমবঙ্গে সরকার গড়ছে বিজেপি, মুম্বাইয়ের সাট্টা বুকিদের দাবি

নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্রে নাশকতাকারীকে শনাক্তের দাবি ইরানের

নাতাঞ্জ পারমাণবিক কেন্দ্রে নাশকতাকারীকে শনাক্তের দাবি ইরানের

সর্বশেষ

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শেখে নাই’

‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শেখে নাই’

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

বাংলাদেশে ‘সিকেডি প্ল্যান্ট’ স্থাপন করবে মিতসুবিশি

বাংলাদেশে ‘সিকেডি প্ল্যান্ট’ স্থাপন করবে মিতসুবিশি

আলেমদের গ্রেফতারে লকডাউন প্রশ্নবিদ্ধ: চরমোনাই পীর

আলেমদের গ্রেফতারে লকডাউন প্রশ্নবিদ্ধ: চরমোনাই পীর

বীর মুক্তিযোদ্ধারা পাবেন ডিজিটাল সনদ ও স্মার্ট পরিচয়পত্র

বীর মুক্তিযোদ্ধারা পাবেন ডিজিটাল সনদ ও স্মার্ট পরিচয়পত্র

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে: কাদের

১ কোটি ২৫ লাখ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে: কাদের

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

সম্পর্ক মেরামতে সৌদি-ইরানি কর্মকর্তাদের বৈঠক

সম্পর্ক মেরামতে সৌদি-ইরানি কর্মকর্তাদের বৈঠক

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

পশ্চিমবঙ্গে সরকার গড়ছে বিজেপি, মুম্বাইয়ের সাট্টা বুকিদের দাবি

পশ্চিমবঙ্গে সরকার গড়ছে বিজেপি, মুম্বাইয়ের সাট্টা বুকিদের দাবি

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune