X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

পালাননি, করোনা মোকাবিলার ফ্রন্ট লাইনে লড়াই করছেন ব্রিটিশ নারীরা

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২১, ২১:৫৫

ব্রিটেনের জাতীয় স্বাস্থ্য সেবাকে আমূল নাড়িয়ে দেওয়া একটি বছর পার হওয়ার পর ইংল্যান্ডের ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ারের হাসপাতালের নারীরা করোনাভাইরাস সংকট তাদের কাছে কেমন ছিল তা নিয়ে কথা বলেছেন। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংকটময় এমন মুহূর্তে তারা পালাননি, বরং দেশটির করোনা মোকাবিলায় ফ্রন্ট লাইনে থেকে লড়াই করেছেন তারা।

মহামারির শুরু থেকে কনসালটেন্ট নার্স শীবা ফিলিপ জানতেন প্রতিদিন শিফট শেষে বাড়িতে ভাইরাস নিয়ে যেতে পারেন। যেখানে তিনি নিজের মায়ের দেখাশোনা করেন। কিন্তু এরপরও কোভিড-১৯ মোকাবিলায় ফ্রন্ট লাইনে থাকা অনেক নারীর মতোই কর্তব্য নিষ্ঠার কথা মাথায় রেখে প্রতিদিন সুরক্ষা সরঞ্জাম পরে দায়িত্ব পালন করেছেন।

শীবা ফিলিপ বলেন, আমি জানতাম প্রতিদিন নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পারব না। প্রতিদিন মনে হতো বাড়িতে ভাইরাস নিয়ে যাচ্ছি। খুব কঠিন ছিল। প্রতিদিন বাড়ি যাওয়ার পথে গাড়িতে প্রার্থনা করতাম, ঈশ্বর আমাদের শরীরের সব জীবাণূ ধ্বংস করে দিন। এরপর ঘরে পা রাখতাম।

করোনা প্রথম ঢেউ চলে যায়। কিন্তু ডায়ালাইসিসে থাকা ফিলিপের মা ও পুরো পরিবার নভেম্বরে করোনায় আক্রান্ত হন।  

তিনি বলেন, একজন নার্স হিসেবে কী করা দরকার তা জানা ছিল। মনে হচ্ছিল মায়ের সময় ফুরিয়ে আসছে, এবার আর সুস্থ হবেন না। কিন্তু একই সময়ে মেয়ে হিসেবে আমি তাকে ছাড়তে চাইছিলাম না। আমি চিৎকার করে বলতে চেয়েছিলাম চলে যেও না।

নর্থ ওয়েস্ট অ্যাম্বুলেন্স সেবার ৩৬ বছরের ম্যাক্সিন শার্পলেস শিফটের পর শিফট করোনা রোগীদের বহন করেছেন। অনেক রোগীকে তিনি বহন করেছেন যারা আর পরিবারের কাছে ফিরে আসেনি। তিনি বলেন, বাড়িতে পৌঁছার পরপরই দরজা বন্ধ করে দিতাম। হয়ে যেতাম মা ও স্ত্রী। আবার কাজে যাওয়ার আগ পর্যন্ত আমাকে এই ভূমিকায় থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমি মনে করি এনএইচএস-র কর্মরত অনেকেরই এমন মন পাল্টে ফেলার সামর্থ রয়েছৈ। আমি মনে করি না এমন সামর্থ্য নিয়ে জন্ম হয়েছে আপনার। এটি শিখে নিতে হয় এবং হয়ত কিছুটা কঠিনও। কিন্তু এটি করতেই হয়।

ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার হসপিটাল ট্রাস্টের এমার্জেন্সি মেডিসিনের কনসালটেন্ট ও ক্লিনিক্যাল ডিরেক্টর ড. জর্জিনা রবার্টসন জানান, বছরটি ছিল তার কর্মজীবনের সবচেয়ে কঠিন সময়। ৪৬ বছরের এই নারীর ভাষায়, রোগীর সংখ্যা ছিল সর্বোচ্চ, তারা ছিল ভয়াবহ অসুস্থ। একই সময়ে আমাদের কর্মী সংকটে পড়তে হয়েছে। এমন স্বল্পতা আগে কখনও আমাদের দেখা দেয়নি।

 রবার্টসন বলেন, তাই খুব কঠিন ছিল। অবশ্যই বাড়িতে বিষয়টি ছিল আরও কঠিন। আমাদের তিনটি সন্তান রয়েছে। তাদের স্কুল দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ এবং নিয়মিত অভ্যস্ত জীবন তারা যাপন করতে পারছিল না।

গত ১২ মাসের কথা তুলে ধরে তিনি জানান, সাধারণত তিনি নিজেকে আবেগপ্রবণ হতে দেন না। বিশেষ করে তার অধীনে যেসব কর্মীরা রয়েছে তাদের সামনে। বলেন, কিন্তু আমরা সবাই মানুষ এবং সময়টি ছিল ভীষণ কঠিন। তাই মাঝে মাঝে টিমের মানবিক দিক দেখাতে পারা টিমকে সহযোগিতা করে। এতে সবাই বুজতে পারে শুধু তিনিই আক্রান্ত না, সবাই এমন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। তারা অসাধারণ। যা দেওয়া হোক না কেন প্রতিদিন তারা কাজ করে গেছে।

৩০ বছর ধরে নার্সিং পেশায় রয়েছেন ৫৩ বছর বয়সী ক্রিটিক্যাল কেয়ার নার্স জ্যাকুই জোসেলিন। কর্মজীবনের বিশ বছর কেটেছে ইস্ট ল্যাঙ্কাশায়ার হসপিটালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে। মহামারির একটি বছর রোগীর পাশে থাকতে পরিবারের সদস্যদের অনুমতি না থাকলেও শেষ সময়ে তিনি ছিলেন। তার বাবাও ভর্তি হয়েছিলেন একই ওয়ার্ডে।  

তিনি বলেন, তিন সপ্তাহ ছিলেন বাবা। সত্যি বলতে কী তিনি বেঁচে থাকার জন্য লড়াই করেছেন। তিনি ছিলেন খুব ভালো শিক্ষক। সব কর্মীরা তাকে পছন্দ করেছে। আমি মনে করি না, আমার বাবা হওয়ার জন্য এমনটি হয়েছে। তারা নিজেদের মতো তাকে বিশেষ অনুভূতি জন্ম দিয়েছে যাতে করে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তিনি একটি লড়াইয়ে হেরে যান এবং মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

জোসেলিনের ১৯ বছর বয়সী মেয়ে রুবি জোসেলিন মহামারিতে মাকে দেখে নার্সিং অধ্যয়ন শুরু করেন। নানার প্রতি আইসিইউকর্মীদের আচরণ তাকে উদ্বুদ্ধ করেছে মায়ের মতোই ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট বেছে নিতে।

রুবি বলেন, যখন আমি ডিসেম্বরে অধ্যয়ন শুরু করি তখন আমি ছিলাম খুব ব্যস্ত। সেখানে যারা কাজ করছিলেন তারা ছিলেন আমার মা ও বাবার বয়সী। তাদের সন্তানরা আমার বয়সী। আমার এটি বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়েছে। এটিই আমাকে পালানোর বদলে তাদের সহযোগিতা করতে বদ্ধ পরিকর করেছে।

নিজেকে মাকে শক্ত মনের নার্স হিসেবে উল্লেখ করলেও মহামারি সবকিছু কেড়ে নিয়েছে ববেল জানান রুবি। বলেন, আমি মনে করি মহামারি তাকে ভাঙতে পারেনি। কিন্তু এটি তার সাহসিকতার একটি স্তর ভেঙে দিয়েছে।  

রুবি বলেন, প্রত্যক্ষভাবে মহামারি মোকাবিলায় থাকা, একজন রোগীর মেয়ে হওয়া, বাবাকে যেমন দেখতে চেয়েছিলেন তেমনটি দেখতে পারার মধ্য দিয়ে আমার মনে হয় এই কঠিন সময় তাকে কিছুটা সাহসও দিয়েছে।

/এএ/

সম্পর্কিত

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

একই কেন্দ্রে টিকা না নিলে সার্টিফিকেট মিলবে না

একই কেন্দ্রে টিকা না নিলে সার্টিফিকেট মিলবে না

করোনা হাসপাতালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি উধাও!

করোনা হাসপাতালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি উধাও!

১০ দিনের মধ্যে বদলে যাবে শেবামেক হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ড

১০ দিনের মধ্যে বদলে যাবে শেবামেক হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ড

প্রায় ৭১ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

প্রায় ৭১ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

করোনাকালে বিষণ্ণতায় ভুগছে ৪৬ শতাংশ মানুষ: আইইডিসিআর

করোনাকালে বিষণ্ণতায় ভুগছে ৪৬ শতাংশ মানুষ: আইইডিসিআর

প্রণোদনা প্যাকেজের একটা অংশ ‘অনুদান’ হিসেবে চান ব্যবসায়ীরা

প্রণোদনা প্যাকেজের একটা অংশ ‘অনুদান’ হিসেবে চান ব্যবসায়ীরা

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

২৪ ঘণ্টায় ১০২ মৃত্যুর রেকর্ড

সর্বশেষ

লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর

লাইভে ক্ষমা চাইলেন নুর

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

‘আগামী ৪৮ ঘন্টা জ্বর না আসলে খালেদা জিয়া শঙ্কামুক্ত হবেন’

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

টর্নেডো ইনিংসে দিল্লির নায়ক ধাওয়ান

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

সোয়া কোটি মানুষের জন্য মোটে ২৬টি আইসিইউ বেড!

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

ভিপি নুরের বিরুদ্ধে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মামলা

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

লন্ডনে তালা ভেঙে অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালের জামাতার লাশ উদ্ধার

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

ডিবি কার্যালয়ে মামুনুল হক

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ভিক্ষুক নিহত

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে আরও দুই ডজন হেফাজত নেতা

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টার্গেটে আরও দুই ডজন হেফাজত নেতা

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ৯ হাজার আসামি

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ৯ হাজার আসামি

এসএসসিতে দুবার ফেল করেও বিসিএস ক্যাডার তাইমুর

এসএসসিতে দুবার ফেল করেও বিসিএস ক্যাডার তাইমুর

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

করোনায় বিপর্যস্ত ভারত, মোদিকে মনমোহনের ৫ পরামর্শ

চিরতরে সমাহিত প্রিন্স ফিলিপ

চিরতরে সমাহিত প্রিন্স ফিলিপ

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও পরাজিত করবে ভারত: মোদি

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে করোনা ওষুধের ভায়ালে তরল প্যারাসিটামল!

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

ভারতে একদিনে রেকর্ড ২ লাখ ৬১ হাজার করোনা শনাক্ত

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৪ কোটি ১৩ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

মহামারিতে গর্ভধারণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ ব্রাজিলের

মহামারিতে গর্ভধারণ থেকে বিরত থাকার পরামর্শ ব্রাজিলের

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune