X
মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বাঁশখালী কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের হতাহতের ঘটনায় বাপার নিন্দা

আপডেট : ১৮ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৩৪

বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত স্থানীয় শ্রমিকদের চলমান বিক্ষোভে গুলিতে বহুসংখ্যক হতাহতের ঘটনায় নিন্দা এবং প্রতিবাদ করেছে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)। 

আজ শনিবার (১৭ এপ্রিল) বাপার কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে সভাপতি সুলতানা কামাল ও সাধারণ সম্পাদক শরীফ জামিলের পাঠানো এক বিবৃতিতে এই প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, আজ ১৭ এপ্রিল, ২০২১ শনিবার সকাল ১০টার দিকে চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলায় ‘এস আলম’ গ্রুপের কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত স্থানীয় শ্রমিকদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, অতিরিক্ত কাজের পারিশ্রমিক, শুক্রবার অর্ধদিবস কাজ ও ইফতারের জন্য বিরতির যৌক্তিক দাবিতে চলমান বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে ৫ জন নিহত এবং ২৫ জন আহত হবার ঘটনা ঘটে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, স্থানীয় জনগণের দাবিকে উপেক্ষা করে বাঁশখালির এই কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের স্বার্থরক্ষায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর এহেন বেপরোয়া আচরণ নতুন কোন ঘটনা নয়। ২০১৬ সালের ৪ঠা এপ্রিল একই বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভূমি অধিগ্রহণের সময়েও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর গুলিতে ৪ জন নিহত ও বহুসংখ্যক গ্রামবাসী আহত হয়, যার গ্রহণযোগ্য কোন নির্মোহ তদন্ত ও বিচার অদ্যাবধি হয় নাই। সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তা বিধানের ন্যাস্ত দায়িত্ব পালন না করে উল্টা পুলিশ বাহিনী কর্তৃক এমন নির্বিচারে গুলিবর্ষণ ও মানুষ হত্যার তীব্র নিন্দা জানায় বাপা।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) বাঁশখালির আজকের ঘটনায় জড়িত খুনিদের অনতিবিলম্বে গ্রেফতার এবং ২০১৬ সালের হত্যাকাণ্ডসহ উভয় ঘটনার স্বচ্ছ ও সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দায়ীদের যথাযথ শাস্তির দাবি জানায়। পাশাপাশি বাপা শ্রমিকদের ন্যায্য দাবিগুলো মেনে নিয়ে পরিবেশ ও জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্নক ক্ষতিকারক এই প্রকল্পসহ সকল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণকাজ বাতিলের দাবি জানায়। 

 

/এসএনএস/এফএএন/ 

সম্পর্কিত

চা শ্রমিকদের জীবন কাহিনি

চা শ্রমিকদের জীবন কাহিনি

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার ঘটনায় রিমান্ডে হিফজুর

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার ঘটনায় রিমান্ডে হিফজুর

শিক্ষিকার ক্ষত-বিক্ষত দেহের পাশে গৃহপরিচারকের ঝুলন্ত লাশ

শিক্ষিকার ক্ষত-বিক্ষত দেহের পাশে গৃহপরিচারকের ঝুলন্ত লাশ

আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড সংক্রান্ত প্রস্তাবনায় নেতৃত্ব দিলো বাংলাদেশ

আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে কোভিড সংক্রান্ত প্রস্তাবনায় নেতৃত্ব দিলো বাংলাদেশ

`কৃষি, শিল্প ও স্বাস্থ্য খাতে মানবাধিকার লংঘনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে'

`কৃষি, শিল্প ও স্বাস্থ্য খাতে মানবাধিকার লংঘনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে'

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, পুলিশ কর্মকর্তা আটক

স্ত্রী-সন্তানসহ ৩ জনকে গুলি করে হত্যা, পুলিশ কর্মকর্তা আটক

গুলশানে বেড়াতে এসে ফুফুকে হত্যা: তরুণীর স্বীকারোক্তি

গুলশানে বেড়াতে এসে ফুফুকে হত্যা: তরুণীর স্বীকারোক্তি

পাওনা পরিশোধের দাবিতে ওপেক্স গ্রুপের কর্মীদের মানববন্ধন

পাওনা পরিশোধের দাবিতে ওপেক্স গ্রুপের কর্মীদের মানববন্ধন

চাঁদাবাজির মামলায় সাবেক এমপি আউয়াল রিমান্ড শেষে কারাগারে

চাঁদাবাজির মামলায় সাবেক এমপি আউয়াল রিমান্ড শেষে কারাগারে

ছুটে এলো দ্রুতগামী ট্রেন, চীনে প্রাণ গেল ৯ শ্রমিকের

ছুটে এলো দ্রুতগামী ট্রেন, চীনে প্রাণ গেল ৯ শ্রমিকের

ডা. সাবিরা হত্যাকাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদে আটক সবাইকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে

ডা. সাবিরা হত্যাকাণ্ড: জিজ্ঞাসাবাদে আটক সবাইকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে

উচ্ছেদের আগে পুনর্বাসনের দাবি কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট শ্রমিকদের

উচ্ছেদের আগে পুনর্বাসনের দাবি কুমুদিনী ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট শ্রমিকদের

সর্বশেষ

জেফ বেজোসকে মহাকাশে পাঠানোর আবেদনে ৩০ হাজার মানুষের স্বাক্ষর

জেফ বেজোসকে মহাকাশে পাঠানোর আবেদনে ৩০ হাজার মানুষের স্বাক্ষর

ভিক্ষুক জাতির কোনও মর্যাদা নেই: বঙ্গবন্ধু

ভিক্ষুক জাতির কোনও মর্যাদা নেই: বঙ্গবন্ধু

আর্জেন্টিনার টানা দ্বিতীয় জয়

আর্জেন্টিনার টানা দ্বিতীয় জয়

ঘু‌রে দাঁড়ানোর চেষ্টায় ব্রিটে‌নের বাংলা‌দেশিরা

ঘু‌রে দাঁড়ানোর চেষ্টায় ব্রিটে‌নের বাংলা‌দেশিরা

৬ মিনিটের ঝলকে গ্রুপ সেরা বেলজিয়াম

৬ মিনিটের ঝলকে গ্রুপ সেরা বেলজিয়াম

প্রথমবারের মতো আমিরাত সফরে যাচ্ছেন ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রথমবারের মতো আমিরাত সফরে যাচ্ছেন ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আজ থেকে বিচ্ছিন্ন হচ্ছে রাজধানী

আজ থেকে বিচ্ছিন্ন হচ্ছে রাজধানী

বাংলাদেশের ফেসবুক লাইভে যুক্ত হচ্ছেন নোম চমস্কি

বাংলাদেশের ফেসবুক লাইভে যুক্ত হচ্ছেন নোম চমস্কি

দুবাইয়ের সেই রাজকন্যাকে স্পেনে দেখা গেছে

দুবাইয়ের সেই রাজকন্যাকে স্পেনে দেখা গেছে

পিরোজপুরে ১৮ ইউপিতে নৌকা, ১১টিতে স্বতন্ত্র জয়ী

পিরোজপুরে ১৮ ইউপিতে নৌকা, ১১টিতে স্বতন্ত্র জয়ী

জ্যামিতি বক্সে ইয়াবা বহন করতেন বাবা-ছেলে

জ্যামিতি বক্সে ইয়াবা বহন করতেন বাবা-ছেলে

‘আমরা ১০-১১ গোল খেতাম, এখন ৫-৬টা খাই’

‘আমরা ১০-১১ গোল খেতাম, এখন ৫-৬টা খাই’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চা শ্রমিকদের জীবন কাহিনি

চা শ্রমিকদের জীবন কাহিনি

`কৃষি, শিল্প ও স্বাস্থ্য খাতে মানবাধিকার লংঘনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে'

`কৃষি, শিল্প ও স্বাস্থ্য খাতে মানবাধিকার লংঘনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে হবে'

গুলশানে বেড়াতে এসে ফুফুকে হত্যা: তরুণীর স্বীকারোক্তি

গুলশানে বেড়াতে এসে ফুফুকে হত্যা: তরুণীর স্বীকারোক্তি

পাওনা পরিশোধের দাবিতে ওপেক্স গ্রুপের কর্মীদের মানববন্ধন

পাওনা পরিশোধের দাবিতে ওপেক্স গ্রুপের কর্মীদের মানববন্ধন

চাঁদাবাজির মামলায় সাবেক এমপি আউয়াল রিমান্ড শেষে কারাগারে

চাঁদাবাজির মামলায় সাবেক এমপি আউয়াল রিমান্ড শেষে কারাগারে

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

বাঁশখালীতে সংঘর্ষ: নিহতদের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ

বাঁশখালীতে সংঘর্ষ: নিহতদের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ

গণপরিবহন চালুর দাবিতে সড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

গণপরিবহন চালুর দাবিতে সড়কে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

‘দেশের ৯২ শতাংশ শ্রমিকের স্বীকৃতি নেই’

‘দেশের ৯২ শতাংশ শ্রমিকের স্বীকৃতি নেই’

নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি

নির্মাণ শ্রমিকদের সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি

© 2021 Bangla Tribune