X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

ডিএনসিসি হাসপাতালের রোগীরা ল্যাব টেস্ট করান আরেক হাসপাতালে

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১৭:২৪

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৫২ বছর বয়সী সাত্তার (ছদ্মনাম) ভর্তি হয়েছেন মহাখালীতে নবনির্মিত ডিএনসিসি ডেডিকেটেড কোভিড-১৯ হাসপাতালে। এখানকার চিকিৎসক তাকে কিছু পরীক্ষার পরামর্শ দিয়েছেন। তবে সেসব পরীক্ষার সবগুলোর ব্যবস্থা নেই এই হাসপাতালে। সেই পরীক্ষার জন্য তাকে যেতে হয়েছে আরেক হাসপাতালে। আর সেজন্য গুনতে হয়েছে আবারও অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া। এভাবেই চিকিৎসা নিতে এসে বিভ্রাটে পড়ছেন ডিএনসিসি হাসপাতালের রোগীরা।

সাত্তার জানান, চিকিৎসকরা তাকে সিবিসি, সিআরপি, ইসিজি, আরবিএসসহ আরও কিছু পরীক্ষার জন্য পরামর্শপত্র দিয়েছেন। তার স্ত্রী চিকিৎসকের দেওয়া কাগজটি হাতে নিয়ে বাইরে এসে খোঁজা শুরু করলেন অ্যাম্বুলেন্স। অ্যাম্বুলেন্স চালক তার হাতের কাগজ দেখেই বলে দিলেন—এগুলো করাতে যেতে হবে মাত্র তিন কিলোমিটার দূরে ইউনিভার্সাল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। অ্যাম্বুলেন্সের ভাড়া কত জিজ্ঞাসা করলে চালক জানান, অক্সিজেনসহ তিন হাজার টাকা। কিছুক্ষণ  অসহায়ের মতো তাকিয়ে থাকলেন সাত্তারের স্ত্রী। একবার শুধু জানতে চাইলেন—আরেকটু কমে যাবে কিনা। কিন্তু চালকের সোজা জবাব, না। নিরূপায় হয়েই গাড়ি তৈরি করতে বললেন রোগীর স্ত্রী।

জানতে চাইলে সাত্তারের স্ত্রী বলেন, ‘আমার স্বামীর জন্য কিছু টেস্ট দিছে ডাক্তার। কিন্তু এগুলো নাকি এখানে হয় না। তাই অন্যখানে করাতে হবে। এজন্যই অ্যাম্বুলেন্স খুঁজতেছিলাম।’

এই হাসপাতালেই ভর্তি আরেকজন বয়স্ক রোগীর সিটিস্ক্যান করার প্রয়োজন হয়। তার পরিবারের সদস্যরা তাকে নিয়ে যেতে চান কাছেই তেজগাঁওয়ের ইমপালস হাসপাতালে। এজন্য তাদেরও প্রয়োজন হয় অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করার। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় কিছুটা বিরক্ত ছিল সেই রোগীর পরিবার।

ডিএনসিসির এই হাসপাতালের সেবা নিতে আসা রোগীরা বলছেন, অন্যখানে পরীক্ষা করাতে গেলে যে টাকা লাগবে, সেটা থাকলে তো আমরা প্রাইভেট হাসপাতালেই চিকিৎসা করাতে পারতাম। কম খরচের জন্য সরকারি হাসপাতালে আসা। এখন অন্য হাসপাতালে যেতে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়ার পেছনে অতিরিক্ত টাকা যাচ্ছে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পরিচালনায় এই হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হয় মাত্র তিন দিন আগে। ছয়তলা ভবনটি প্রায় ২২ বিঘা জায়গার ওপর তৈরি করা হয়েছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, পুরো হাসপাতালটিতে শুধু করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের জন্য থাকবে এক হাজার বেড। যদিও প্রাথমিকভাবে সেবা দিতে হাসপাতালটির কার্যক্রম শুরু হয় ৫০ বেডের আইসিইউ আর ৫০ বেডের ইমারজেন্সি নিয়ে। ইমারজেন্সির বেডগুলোও অনেকটা আইসিইউর মতোই। এছাড়া আছে হাইফ্লো নাজাল ক্যানোলা, সেন্ট্রাল অক্সিজেনসহ সব ব্যবস্থা। ১৫০টি (সিঙ্গেল) রুমের আইসোলেশন ব্যবস্থা রয়েছে এখানে। এই হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা দিতে ৫০০ চিকিৎসক, ৭০০ নার্স, ৭০০ স্টাফ এবং ওষুধ ও সরঞ্জামের ব্যবস্থা করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী এই হাসপাতালে থাকবে আইসিইউ সুবিধাসহ ২১২টি বেড, এরমধ্যে ১১২টি আইসিইউ এবং ১০০টি এইচডিইউ (হাই ডিপেন্ডেন্সি ইউনিট)। এছাড়া বিশেষ সুবিধাসহ আরও থাকবে ২৫০টি বেড। কেন্দ্রীয়ভাবে অক্সিজেন দেওয়ার এবং হাইফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার সুবিধা থাকবে। এছাড়া ডেডিকেটেড ৪৮৮টি বেডে সিলিন্ডার এবং অক্সিজেনের ব্যবস্থা থাকবে এবং জরুরি বিভাগে ৫০টি বেড ও ডায়ালাইসিস সুবিধাসহ ৪টি বেড থাকার কথা রয়েছে। হাসপাতালটিতে চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফসহ প্রায় দুই হাজার কর্মী নিয়োগ দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

ডিএনসিসির এই ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল একেএম নাসিরুদ্দিন বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সবকিছু অল্প অল্প চালু করেছি আমরা। শুক্রবার বা শনিবার নাগাদ আরও হবে। আমাদের সব ইকুইপমেন্ট এখনও তৈরি না। যেমন- আমাদের সিটি স্ক্যান মেশিন বসাতে পারিনি। এক্সরের জন্য আপাতত পোর্টেবল মেশিন দিয়ে কাজ চালাচ্ছি। ল্যাবরেটরি যেগুলো জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজন সেগুলো চালু করেছি। আমরা সবকিছু সেট করছি, এগুলো তো আগে ছিল না।’

তিনি বলেন, ‘কিছু কিছু টেস্ট হয়তো বাইরে গিয়ে করার প্রয়োজন হতে পারে। তবে সেটাও আমরা এখানে চালু করতে চেষ্টা করবো।’

আইসিইউ’র রোগীদের টেস্ট করানো হচ্ছে কীভাবে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আইসিইউর রোগীদের টেস্ট এখানেই হচ্ছে। যেগুলো মেজর দরকার সেগুলো আমরা এখানেই চালু করেছি। মাত্র তিন দিন হলো তো হাসপাতালের কার্যক্রম। আমাদের কিছু কিছু টেস্ট করার প্রয়োজন পড়ে প্রগ্রেস বোঝার জন্য। সেগুলো আমরা এখানেই শুরু করছি।’  

 

/এসও/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

৫৬ জেলা মৃত্যুহীন

৫৬ জেলা মৃত্যুহীন

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪০

করোনার টিকা গ্রহণকারী বাংলাদেশিরা ১ নভেম্বর থেকে থাইল্যান্ডের বিশেষ কয়েকটি পর্যটন অঞ্চলে কোয়ারেন্টিন ছাড়াই ভ্রমণ করতে পারবেন। অঞ্চলগুলোতে এক সপ্তাহ থাকার পর তারা চাইলে দেশটির যেকোনও জায়গায় যেতে পারবেন।

সোমবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে থাইল্যান্ডের নতুন রাষ্ট্রদূত মাকাওয়াদি সোমিতমোর এ কথা জানান।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সাক্ষাতে প্রতিমন্ত্রী কৃষি-প্রক্রিয়াজাত শিল্প, স্বাস্থ্যসহ অন্যান্য খাতে সহযোগিতার ওপর জোর দেন।

দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য বৃদ্ধির জন্য দুই দেশের মধ্যে মুক্ত বাণিজ্য অঞ্চল গঠনের বিষয়েও প্রতিমন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত একমত হন।

 

 

/এসএসজেড/এফএ/

সম্পর্কিত

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

জয়শঙ্করকে চিঠি দিলেন মোমেন

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫০

কেরালা রাজ্যে বন্যা ও ভূমিধসে হতাহতের ঘটনায় সমবেদনা জানিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্করকে চিঠি পাঠিয়েছেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক টুইট বার্তায় জানানো হয়, যারা নিহত হয়েছেন তাদের আত্মার শান্তি ও আহতদের আশু সুস্থতা কামনা করেছেন মন্ত্রী।

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার থেকে বন্যায় বিপর্যস্ত ভারতের কেরালা রাজ্য। ভারী বৃষ্টিপাতে বিভিন্ন জায়গায় ভূমিধস দেখা দিয়েছে। বানের তোড়ে নদীতে ভেসে গেছে বহু বাড়িঘর। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী কয়েক হাজার ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা অর্ধশতাধিক ছাড়িয়ে গেছে।

/এসএসজেড/এমআর/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে নাম্বার ওয়ান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে নাম্বার ওয়ান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশের কপ-২৬ এজেন্ডাকে সমর্থনে ইইউ’র প্রতি ঢাকার আহ্বান

বাংলাদেশের কপ-২৬ এজেন্ডাকে সমর্থনে ইইউ’র প্রতি ঢাকার আহ্বান

সার্বিয়ার সঙ্গে রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়াতে চায় বাংলাদেশ

সার্বিয়ার সঙ্গে রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়াতে চায় বাংলাদেশ

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩০

সৌদি আরবে মাদকদ্রব্য আইনে ২০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বাংলাদেশি কর্মী আবুল বাশারের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেছে জেদ্দার বাংলাদেশ কনস্যুলেট। সৌদিতে আইনজীবী নিয়োগের মাধ্যমে আদালতে এই আপিল দায়ের করা হয়েছে বলে সোমবার কনস্যুলেট সূত্রে জানা গেছে। আইনজীবী নিয়োগে ৬ লাখ ৮৫ হাজার টাকা দিয়েছে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অধীন ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড। গত ২৬ সেপ্টেম্বর বাশারকে কারাদণ্ড দেয় সৌদি আরবের আদালত। 

সৌদি আরবে প্রবেশের সময় আবুল বাশারের ব্যাগে ইয়াবা পাওয়া যাওয়ায় এই সাজা পান তিনি। তবে সেই ইয়াবা তার ব্যাগে ‘আচারের প্যাকট’ বলে  ঢুকিয়ে দেন ঢাকার বিমানবন্দরে পরিচ্ছন্নতার কাজে নিয়োজিত এসআর সুপারভাইজার নুর মোহাম্মদ। তাই ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার কথা জানিয়েছিল জেদ্দার বাংলাদেশ কনস্যুলেট।

কনস্যুলেট জানায়, প্রাপ্ত দণ্ডের বিরুদ্ধে আপিল দায়েরের জন্য ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের অর্থায়নে সৌদি আইনজীবী নিয়োগ করা হয়েছে এবং আদালতে আপিল দায়ের করা হয়েছে। কনস্যুলেট নিয়মিত ফলোআপ করছে।

এর আগে আইনজীবী নিয়োগের বিষয়ে ঢাকায় চিঠি পাঠানো হয়। চিঠিতে বলা হয়, আবুল বাশারের পক্ষে যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত আপিল আদালতে যথাযথভাবে উপস্থাপনের জন্য একজন সৌদি আইনজীবী নিয়োগ দেওয়া প্রয়োজন। একজন নির্দোষ বহনকারী যেন অযথা ভুক্তভোগী না হন এবং ভুল বিচার প্রাপ্তির আশঙ্কা যথাসম্ভব প্রতিরোধে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা হিসেবে আইনজীবী নিয়োগে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের কথা ঢাকায় চিঠি দিয়ে অনুরোধ জানায় জেদ্দার বাংলাদেশ কনস্যুলেট। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২১ অক্টোবর ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড অর্থ ছাড় দিয়ে চিঠি পাঠায় বাংলাদেশ কনস্যুলেটের শ্রম উইং বরাবর।

 

 

/এসও/এফএ/

সম্পর্কিত

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৫

সম্প্রতি সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলার ঘটনায় দেশের পাশাপাশি বিদেশের মাটিতেও প্রতিবাদ হচ্ছে। ইতোমধ্যে নেদারল্যান্ডস ও ফ্রান্সের বাংলাদেশ দূতাবাসের সামনে প্রতিবাদ হয়েছে এবং ব্রাসেলসে আগামী সপ্তাহে প্রতিবাদের কথা রয়েছে বলে জানিয়েছে একাধিক সূত্র।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, আমরা খবর পেয়েছি, প্যারিস দূতাবাসে প্রতিবাদকারীরা স্মারকলিপি দিয়েছে। হেগে আমাদের দূতাবাসের সামনেও প্রতিবাদ হয়েছে। এ ছাড়া ব্রাসেলসেও আগামী রবিবার প্রতিবাদ হবে বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নেদারল্যান্ডসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রিয়াজ হামিদুল্লাহ বলেন, গত শুক্রবার ৩০-৩৫ জন দূতাবাসের বাইরে জড়ো হয়েছিল। পরে একটি লিফলেট দিয়ে তারা চলে যায়।

/এসএসজেড/এফএ/

সম্পর্কিত

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

শিশুশ্রম নিরসনে ১১২ এনজিও’র সঙ্গে চুক্তি কাল

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫০

ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে। আগামীকাল মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৪টায় রাজধানীর বিজয়নগরে শ্রম ভবনের সম্মেলন কক্ষে ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসনের জন্য নির্বাচিত ১১২টি এনজিও’র সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হবে।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান  চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, ২৮৪ কোটি টাকা ব্যয়ে ঝুঁকিপূর্ণ শিশু শ্রম নিরসন প্রকল্পের শুরু হতে যাওয়া চতুর্থ পর্যায়ে এক লাখ শিশুকে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ থেকে সরিয়ে আনা হবে। এক বছর মেয়াদী প্রকল্পে শিশুশ্রমে নিয়োজিত এক লাখ শিশুকে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা এবং কর্মমুখী প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত এসকল শিশুর বাবা-মাকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে এবং প্রশিক্ষণ শেষে স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হবে।

/এসআই/এমআর/

সম্পর্কিত

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

টিকা নিলে কোয়ারেন্টিন লাগবে না থাইল্যান্ডে

জয়শঙ্করকে চিঠি দিলেন মোমেন

জয়শঙ্করকে চিঠি দিলেন মোমেন

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

আইনজীবী পেলেন সৌদি আরবে সাজাপ্রাপ্ত বাশার, রায়ের বিরুদ্ধে আপিল 

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

প্যারিস, হেগে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

৫৬ জেলা মৃত্যুহীন

৫৬ জেলা মৃত্যুহীন

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

মৃত্যু ও শনাক্ত বেড়েছে

৩১ জেলায় শনাক্ত হয়নি কেউ

৩১ জেলায় শনাক্ত হয়নি কেউ

৫৮ জেলায় করোনায় মৃত্যু নেই

৫৮ জেলায় করোনায় মৃত্যু নেই

উন্নত বিশ্বে স্বাস্থ্য খাতে ব্যয় জিডিপির ৫ ভাগ, বাংলাদেশে ০.৯

উন্নত বিশ্বে স্বাস্থ্য খাতে ব্যয় জিডিপির ৫ ভাগ, বাংলাদেশে ০.৯

একমাস ধরে করোনা পরিস্থিতি স্বস্তিদায়ক

একমাস ধরে করোনা পরিস্থিতি স্বস্তিদায়ক

দ্বিতীয় দিনের মতো আজও শনাক্তের হার ২-এর নিচে

দ্বিতীয় দিনের মতো আজও শনাক্তের হার ২-এর নিচে

সর্বশেষ

উন্নীত স্কেলে বেতন নিশ্চিত করতে তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

উন্নীত স্কেলে বেতন নিশ্চিত করতে তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতদের শাস্তি ও ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িঘর সংস্কারসহ ৭ দফা দাবি

সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতদের শাস্তি ও ক্ষতিগ্রস্তদের বাড়িঘর সংস্কারসহ ৭ দফা দাবি

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

সুদানে অভ্যুত্থানে বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

স্ত্রী হত্যায় স্বামীর যাবজ্জীবন

প্রোগ্রামারের বিরুদ্ধে ফেসবুকের মামলা

প্রোগ্রামারের বিরুদ্ধে ফেসবুকের মামলা

© 2021 Bangla Tribune