X
মঙ্গলবার, ১৫ জুন ২০২১, ১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ২৩:১৬

(বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে বঙ্গবন্ধুর সরকারি কর্মকাণ্ড ও তার শাসনামল নিয়ে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বাংলা ট্রিবিউন। আজ পড়ুন ১৯৭৩ সালের ১১ মের  ঘটনা।)

১৯৭৩ সালের এই সময়টা ছিল দেশের জন্য ভয়াবহ দুর্যোগের। একের পর এক দুর্যোগে বিপর্যস্ত মানুষ। পরের দিন (১২ মে) সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বন্যাকবলিত কুমিল্লা, নোয়াখালী ও সিলেট জেলা সফরে যাবেন বলে এ দিন (১১ মে) খবর প্রকাশ করা হয়। তাঁর সঙ্গে যাবেন ত্রাণ ও পুনর্বাসনমন্ত্রী মিজানুর রহমান চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব তোফায়েল আহমেদ এবং  সংসদ সদস্য এবিএম মূসা। বাসসের খবরে বলা হয়, বঙ্গবন্ধুর সেদিনই সন্ধ্যায় রাজধানীতে ফিরে আসার কথা।

বন্যাকবলিত এলাকায় রেডক্রস চেয়ারম্যান

দেশের বন্যাকবলিত মানুষদের এদিন সব রকম সাহায্যের  আশ্বাস দেন বাংলাদেশ রেডক্রস সমিতির চেয়ারম্যান গাজী গোলাম মোস্তফা। কুমিল্লার বন্যা প্লাবিত এলাকা থেকে ফিরে এসে তিনি বাসসকে জানান, বন্যাদুর্গত এলাকায় যেসব দল কাজ করছে, তিনি তাদের নির্দেশ দিয়েছেন। বন্যাদুর্গতদের দুর্দশা লাঘবে সব ধরনের সাহায্য করার জন্য  সম্ভাব্য সব সম্পদ ও জনশক্তি মোতায়ন করতেও তিনি নির্দেশ দেন। কুমিল্লা ও সিলেট এলাকায় কাজ করছেন যেসব চিকিৎসক, তাদেরকে কর্মতৎপরতা জোরদার করতে বলা হয়। রেডক্রস এরচেয়ারম্যান সফর থেকে ফিরেই বিপুল পরিমাণ সাহায্য দ্রব্য পাঠিয়েছেন কুমিল্লার বন্যাকবলিত এলাকায়। এসব ত্রাণের  মধ্যে আছে কাপড় ও  ওষুধ। সেখানে ঢাকা থেকে একটি চিকিৎসক দলও পাঠানো হয়েছে।

১৯৭৩ সালের ১২মে প্রকাশিত পত্রিকার শিরোনাম যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের পক্ষে সারা বিশ্বের সমর্থন

পাকিস্তানি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ, বিশ্বের সর্বত্র শুভবুদ্ধিসম্পন্ন জনগণ তা সমর্থন করেছে। আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের চিফ হুইপ শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন ঢাকায় ফিরে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের কাছে একথা বলেন। ১১ মে এনা পরিবেশিত এই খবরে বলা হয়, শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন গত ২৪ এপ্রিল আবিদজানে অনুষ্ঠিত আন্তঃপার্লামেন্টারি সম্মেলনের ২৮তম কাউন্সিল অধিবেশনে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব করেন। প্রতিনিধি দলটি গতকাল (১১ মে) দেশে ফিরে আসে।

১৯৭৩ সালের ১২ মে দি বাংলাদেশ অবজারভার জাতীয় অর্থনীতি প্রায় ভেঙে পড়ার পর্যায়

দ্রুত অবনতিশীল জাতীয় অর্থনীতি ও তার কৃষ্ণপ্রাণ শক্তিকে পুনরুজ্জীবিত করে তোলার জন্য অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ অবিলম্বে জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের ওপর বিশেষ গুরুত্ব আরোপ করেছেন। এনার বিশেষ প্রতিনিধির সঙ্গে এদিন তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এই অবস্থা প্রতিরোধের জন্য অন্যান্য বিষয়ের মধ্যে নিয়ন্ত্রিত বণ্টন ব্যবস্থা, সর্বাধিক উৎপাদন এবং সুশৃঙ্খল ও সমন্বিত অর্থনৈতিক তৎপরতার ব্যবস্থা করতে হবে। এসব ব্যবস্থা অবিলম্বে গ্রহণ করা না হলে আমাদের অর্থনীতি— যা প্রায় ভেঙে পড়ার পর্যায়ে উপনীত হয়েছে, তাতে প্রাণশক্তি সঞ্চার করা কখনও সম্ভব হবে না।’ তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের সবচেয়ে বড় প্রয়োজন হচ্ছে— সর্বোচ্চ পর্যায়ে উৎপাদন বৃদ্ধি করা।’ তিনি উদ্বেগের সঙ্গে বলেন, ‘আমাদের মিল-ফ্যাক্টরিগুলোতে উৎপাদনের হার দারুণভাবে কমেছে। স্বাধীনতার পর এ পর্যন্ত ব্যাংকগুলো ২০ কোটি টাকা ব্যয় করেছে, অথচ সেই অনুপাতে উৎপাদন দেখাতে পারেনি। সে কারণে আসন্ন পাট মৌসুমের জন্য ব্যাংকগুলো প্রয়োজনীয় ৯০ কোটি টাকা প্রদানে সংকটের সম্মুখীন হবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের উৎপাদন বৃদ্ধি না পেলে মুদ্রাস্ফীতি কমবে না।’

/এপিএইচ/ 

সম্পর্কিত

বিরোধ দূর করতে মাঠে আওয়ামী লীগ

বিরোধ দূর করতে মাঠে আওয়ামী লীগ

নিরপরাধ আরমানের কারাভোগ: ৭ পুলিশের দায়িত্বে অবহেলা পেয়েছে পিবিআই

নিরপরাধ আরমানের কারাভোগ: ৭ পুলিশের দায়িত্বে অবহেলা পেয়েছে পিবিআই

অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালাসহ মন্ত্রিসভায় তিন এজেন্ডা অনুমোদন

অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালাসহ মন্ত্রিসভায় তিন এজেন্ডা অনুমোদন

বোট ক্লাব থেকে নাসিরকে বহিষ্কার, তদন্তে কমিটি

বোট ক্লাব থেকে নাসিরকে বহিষ্কার, তদন্তে কমিটি

নারীপাচার চক্রের সদস্য আমিরুলের স্বীকারোক্তি

নারীপাচার চক্রের সদস্য আমিরুলের স্বীকারোক্তি

এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত হতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

এলডিসি গ্র্যাজুয়েশনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় প্রস্তুত হতে হবে: বাণিজ্যমন্ত্রী

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

আইএলও’র নির্বাচনে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ভোট লাভ

আইএলও’র নির্বাচনে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ভোট লাভ

দোষী সাব্যস্ত হলে নাসির উদ্দিনের বিষয়ে ব্যবস্থা: জিএম কাদের

দোষী সাব্যস্ত হলে নাসির উদ্দিনের বিষয়ে ব্যবস্থা: জিএম কাদের

সম্পদের হিসাব চেয়ে পরিবহন নেতা এনায়েত উল্লাহকে দুদকের নোটিশ

সম্পদের হিসাব চেয়ে পরিবহন নেতা এনায়েত উল্লাহকে দুদকের নোটিশ

আবারও ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ছাড়ালো ৩ হাজার 

আবারও ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ছাড়ালো ৩ হাজার 

ষড়যন্ত্রকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি সিপিবি নারী সেলের

‘গার্ড অব অনারে’ নারীর বিকল্পষড়যন্ত্রকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি সিপিবি নারী সেলের

সর্বশেষ

উত্তর প্রদেশে হামলার শিকার বয়স্ক মুসলিম, কাটা হলো দাড়ি

উত্তর প্রদেশে হামলার শিকার বয়স্ক মুসলিম, কাটা হলো দাড়ি

আবার এসেছে আশার ‘আষাঢ়’

আবার এসেছে আশার ‘আষাঢ়’

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ১২ সদস্যের মৃত্যুদণ্ড বহাল

মেসি গোল পেলেও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

মেসি গোল পেলেও জিততে পারেনি আর্জেন্টিনা

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

সন্ত্রাসবাদে অভিযুক্ত কানাডার সেই হামলাকারী

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

গোল মিসের মহড়ায় পয়েন্ট হারালো স্পেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি,  যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের ঝুঁকি, যুক্তরাজ্যে লকডাউন প্রত্যাহার হবে দেরিতে

অবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

পরীমণিকে ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টাঅবশেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ‘তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন’

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

ইয়াবা-স্বর্ণ ও টাকাসহ তিন রোহিঙ্গা গ্রেফতার

বায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

অপার সম্ভাবনায় গুরুত্ব কমবায়ু শক্তিকে উদযাপনের দিন আজ

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

স্পর্শকাতর সিদ্ধান্তের মুখে ইসরায়েলের নতুন সরকার

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

৩২ লাখ টাকা সহায়তা পেলেন মোংলা বন্দরের শ্রমিক-কর্মচারীরা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালাসহ মন্ত্রিসভায় তিন এজেন্ডা অনুমোদন

অটোমোবাইল শিল্প উন্নয়ন নীতিমালাসহ মন্ত্রিসভায় তিন এজেন্ডা অনুমোদন

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

কোভিশিল্ডের টিকা মজুত আছে ১ লাখ ২৬ হাজার ডোজ

আইএলও’র নির্বাচনে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ভোট লাভ

আইএলও’র নির্বাচনে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ভোট লাভ

আবারও ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ছাড়ালো ৩ হাজার 

আবারও ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ছাড়ালো ৩ হাজার 

বাজেট আলোচনায় যা বললেন মেনন

বাজেট আলোচনায় যা বললেন মেনন

উচ্চশিক্ষা-গবেষণার মানে ছাড় দেওয়ার সুযোগ নেই: ইউজিসি

উচ্চশিক্ষা-গবেষণার মানে ছাড় দেওয়ার সুযোগ নেই: ইউজিসি

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর ১৫ শতাংশ করের বিরোধিতা সংসদে

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর ১৫ শতাংশ করের বিরোধিতা সংসদে

আগামী সপ্তাহ থেকে দেওয়া হবে ফাইজার-সিনোফার্মের টিকা

আগামী সপ্তাহ থেকে দেওয়া হবে ফাইজার-সিনোফার্মের টিকা

প্রাণি খাদ্য তৈরিতেও আয়োডিনযুক্ত লবণ থাকতে হবে, সংসদে বিল পাস

প্রাণি খাদ্য তৈরিতেও আয়োডিনযুক্ত লবণ থাকতে হবে, সংসদে বিল পাস

সাক্ষ্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে ডিজিটাল লেনদেনের রেকর্ড

সাক্ষ্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে ডিজিটাল লেনদেনের রেকর্ড

© 2021 Bangla Tribune