X
বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

মামুনুল হকের ১৫ দিনের রিমান্ড 

আপডেট : ১২ মে ২০২১, ১৫:২৭

হেফাজতে ইসলামের সাবেক যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে পাঁচ মামলায় তিন দিন করে ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার (১২ মে) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আহমেদ হুমায়ুন কবিরের আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জের কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. আসাদুজ্জামান। তিনি জানান, নারী ধর্ষণ, সহিংসতার পাঁচ মামলায় আদালত এই রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. জায়েদুল আলম জানান, চলতি বছরের ৩ এপ্রিল এক নারীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টে মামুনুল হক অবস্থান করার সময় স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে। এ ঘটনায় হেফাজতে ইসলামের সমর্থকরা রয়্যাল রিসোর্টে হামলা-ভাঙচুর করে তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়। পরে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা স্থানীয় সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের অফিস, যুবলীগ, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বাড়িঘরে হামলা-ভাঙচুর চালায়। ধর্ষণ ও সহিংসতার ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় তিনটি মামলায় মামুনুল হকে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া চলতি বছরের ২৮ মার্চ হেফাজতে ইসলামের ডাকা সকাল-সন্ধ্যা হরতালে যানবাহনে অগ্নিসংযোগ ও সহিংসতার ঘটনায় তাকে আসামি করে আরও দুটি মামলা দায়ের করা হয়। এই পাঁচটি মামলায় পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোনারগাঁয়ের ধর্ষণ মামলায় ১০ দিন এবং সহিংসতা ও অগ্নিসংযোগের বাকি চার মামলায় সাত দিন করে মোট ৩৮ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে।  শুনানি শেষে আদালত পাঁচ মামলায় তিন দিন করে মোট ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মো. জায়েদুল আলম জানান, মাওলানা মামুনুল হককে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদে করে সহিংসতার বিষয়ে আরও কারা কারা জড়িত রয়েছে তা খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হবে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

প্রেমিকাকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে মনির: র‌্যাব

প্রেমিকাকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে মনির: র‌্যাব

মাকে হত্যায় ছেলের মৃত্যুদণ্ড

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৭

গাইবান্ধা সদর উপজেলায় ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে বৃদ্ধা মাকে পিটিয়ে হত্যার দায়ে জিয়াউল হককে (৪৪) মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক দিলীপ কুমার ভৌমিক এই রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণাকালে আসামি জিয়াউল হক আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তিনি সদর উপজেলার শিবপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. ফারুক আহম্মেদ প্রিন্স জানান, ২০১৮ সালের ১৩ জুন জিয়াউল হক তার ছোট ভাইয়ের জুবায়ের খন্দকারের কাছে কিছু টাকা চান। কিন্তু জুবায়ের তাকে টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে হাতে থাকা ক্রিকেট ব্যাট দিয়ে তাকে মারধর করে জিয়া। এ সময় মা জহুরা বেগম বাঁধা দিলে তার মাথায় ব্যাট দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করেন। জহুরা বেগমকে গুরুতর আহোবস্থায় সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

ঘটনার পরদিন নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে ছেলে জিয়াউল হককে একমাত্র আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এরপর জিয়াউল হককে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠায় পুলিশ।

তিনি আরও জানান, আদালতে মামলা চলাকালে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বিচারক রায়ের দিন ধার্য করেন। এরপর ধার্য তারিখে শুনানি শেষে আজ বিচারক জিয়াউল হককে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন। 

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

বেগমগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বেগমগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার পর যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যার পর যুবকের আত্মহত্যার চেষ্টা

সন্ধ্যা হলেই শীত নামছে উত্তরে, বসছে পিঠার দোকান

সন্ধ্যা হলেই শীত নামছে উত্তরে, বসছে পিঠার দোকান

কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:২৩

কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার ঘটনা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ায় উত্তম মজুমদার (৩১) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬। বুধবার (২৭ অক্টোবর) রাতে খুলনার লবণচরার বোখারীয়া জামে মসজিদের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-৬ এর পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল মোস্তাক আহমেদ বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উত্তপ্ত করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের উদ্দেশ্যে ফেসবুকে নিজ আইডিতে বিভ্রান্তিকর পোস্ট দেয় ওই যুবক।

র‌্যাব সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাত সোয়া ৯টায় খুলনার একটি আভিযানিক দল গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে লবণচরার খুলনা-সাতক্ষীরা হাইওয়ে সড়ক এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় পাশের বোখারীয়া জামে মসজিদের সামনে থেকে উত্তমকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাইবার অপরাধের সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করেছেন উত্তম। তিনি বরিশাল বিএম কলেজ থেকে এমএ সম্পন্ন করে খুলনায় একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। 

গত ১৩ অক্টোবর থেকে উত্তম মজুমদার তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে বিভিন্ন উসকানিমূলক বক্তব্য পোস্ট করে আসছিলেন বলে জানায় র‌্যাব।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

খুলনায় হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

খুলনায় হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার

টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার

অপশক্তি যে দলেরই হোক প্রতিহত করা হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

অপশক্তি যে দলেরই হোক প্রতিহত করা হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

বছরে খরচ ৬০ কোটি, তবু হুমকির মুখে মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌপথ

বছরে খরচ ৬০ কোটি, তবু হুমকির মুখে মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌপথ

খুলনায় হত্যা মামলায় যুবকের যাবজ্জীবন

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৫৯

খুলনার রূপসা উপ‌জেলায় হত্যা মামলায় মো. জম‌শেদ ওর‌ফে জা‌বেদ মল্লিক জম‌শেদ (৩৩) নামে একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দি‌য়ে‌ছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (২৮ অ‌ক্টোবর) খুলনা জেলা ও দায়রা জজ মো. ম‌শিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা ক‌রে‌ন।

জম‌শেদ রূপসার র‌হিমনগর এলাকার মো. মান্নান ওর‌ফে মুরাদ ম‌ল্লি‌কের ছেলে। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের পাশাপাশি তাকে ২৫ হাজার টাকা জ‌রিমানা, অনাদা‌য়ে তিন মাস বিনাশ্রম এবং ২০১ ধারায় ৭ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দি‌য়ে‌ছেন।

অপর আসা‌মি একই এলাকার মৃত বাবু খার ছে‌লে মো. মিজান খা’র (৪৫) বিরু‌দ্ধে অপরাধ প্রমা‌ণিত না হওয়ায় খালাস প্রদান করা হ‌য়ে‌ছে। মামলায় রাষ্ট্রপ‌ক্ষে ছি‌লেন জেলা পিপি অ্যাডভোকেট শেখ এনামুল হক, এ‌পি‌পি এম ই‌লিয়াছ খান ও এ‌পি‌পি শাম্মী আক্তার।  

মামলার বিররণে জানা গে‌ছে, ২০১৭ সা‌লের ১ জুন রূপসা উপ‌জেলার নৈহাটি ইউনিয়নের রামনগর গ্রামের আমির আলীর পুত্র রাজ খানকে (১৯) হত্যা করা হয়। হত্যার পর তার মস্তকবি‌হীন লাশ বস্তায় ভ‌রে নদী‌তে ফে‌লে দেয় হত্যাকারীরা।পু‌লিশ আঠা‌রো‌বে‌কি নদীর চর থে‌কে ১ জুন সকা‌লে বস্তাব‌ন্দি লাশ উদ্ধার ক‌রে। 

এ ঘটনায় সে‌দিনই পু‌লিশ বা‌দী হ‌য়ে রূপসা থানায় হত্যা মামলা ক‌রেন। লাশ উদ্ধারের পর বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া আসামি জম‌শেদ আদালতে এ ঘটনায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। 

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই মো. হারুন অর র‌শিদ ২০১৯ সা‌লের ২৯ অ‌ক্টোবর আদালতে অভিযোগপত্র দা‌খিল ক‌রেন। শুনানি চলাকালে এই মামলায় ২৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ক‌রে‌ন আদালত।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

বছরে খরচ ৬০ কোটি, তবু হুমকির মুখে মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌপথ

বছরে খরচ ৬০ কোটি, তবু হুমকির মুখে মোংলা-ঘষিয়াখালী নৌপথ

শপথ নিলেন বাগেরহাটের নবনির্বাচিত ৬৬ ইউপি চেয়ারম্যান

শপথ নিলেন বাগেরহাটের নবনির্বাচিত ৬৬ ইউপি চেয়ারম্যান

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:১৮

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ায় শাহ আমানত ফেরিডুবির ঘটনায় দ্বিতীয় দিনের উদ্ধার অভিযান চলছে। বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৮টায় শুরু হওয়া অভিযানে এখন পর্যন্ত দুটি কাভার্ডভ্যান উদ্ধার করেছে উদ্ধারকারী জাহাজ ‘হামজা’। 

‌‘হামজা’র কমান্ডার এস এম ছানোয়ার হোসেন জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে একটি কাভার্ডভ্যান উদ্ধার করা হয়। এরপর দুপুর দেড়টার দিকে আরেকটি কাভার্ডভ্যান উদ্ধার করা হয়েছে। 

চাঁদপুর থেকে রওনা দেওয়া আরেকটি উদ্ধারকারী জাহাজ ‘প্রত্যয়’ এখনও পাটুরিয়া ঘাটে এসে পৌঁছায়নি বলে জানান তিনি। এখনও ফেরির নিচে ও এর আশপাশে আরও কয়েকটি ট্রাক ডুবে আছে।

দুপুর দেড়টায় আরেকটি কাভার্ডভ্যান উদ্ধার করে ‌‘হামজা’

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল সোয়া ১০টার দিকে ১৭টি পণ্যবাহী ট্রাক ও ১৬টি মোটরসাইকেল নিয়ে ডুবে যায় ফেরিটি। এরপর উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। সাড়ে ১০ ঘণ্টা উদ্ধার অভিযান চালিয়ে দুর্ঘটনাকবলিত ফেরি থেকে চারটি পণ্যবাহী ট্রাক উদ্ধার করে ‘হামজা’। পরে রাত সাড়ে ৮টার দিকে প্রথম দিনের মতো উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) নৌ-সংরক্ষণ ও পরিচালন বিভাগের পরিচালক মো. শাজাহান বলেন, চাঁদপুর থেকে উদ্ধারকারী জাহাজ ‘প্রত্যয়’ পাটুরিয়া ফেরিঘাটের পথে। এটি ১৪১ মিটার নদীপথ পেরিয়ে চাঁদপুর থেকে গতকাল রওনা দিলেও, কখন পাটুরিয়া পৌঁছাবে তা বলা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত ফেরি শাহ আমানতের যে ওজন তাতে দুটি জাহাজ চেষ্টা করেও সফল হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে। ‘প্রত্যয়’ পাটুরিয়ায় আসার পর পরই দুর্ঘটনাকবলিত ফেরিটি উদ্ধারে কাজ শুরু করা যাবে। ‘হামজা’ শুধু ফেরির ভেতরে আটকে থাকা ট্রাকগুলো উদ্ধারে কাজ করছে।

/এসএইচ/
টাইমলাইন: পাটুরিয়ায় ফেরিডুুবি
২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৪২
পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

সম্পর্কিত

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

অপশক্তি যে দলেরই হোক প্রতিহত করা হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

অপশক্তি যে দলেরই হোক প্রতিহত করা হবে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

বহদ্দারহাট ফ্লাইওভারের গার্ডার ধসে ১৩ মৃত্যু: ৮ বছরেও শেষ হয়নি বিচার

বহদ্দারহাট ফ্লাইওভারের গার্ডার ধসে ১৩ মৃত্যু: ৮ বছরেও শেষ হয়নি বিচার

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেফতার

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:২২

কক্সবাজারের টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ফয়জুল ইসলাম (২১) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটলিয়ন (এপিবিএন)। পুলিশ বলছে, তিনি ‘সালমান শাহ’ সন্ত্রাসী গ্রুপের সেকেন্ড ইন কমান্ড।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত ক্যাম্প থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

কক্সবাজার ১৬ এপিবিএন অধিনায়ক (এসপি) তারিকুল ইসলাম তারিক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নয়াপাড়া এপিবিএন ক্যাম্পের অফিসার ও ফোর্স বিশেষ অভিযানের মাধ্যমে বুধবার দুপুরে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে ফয়জুলকে গ্রেফতার করে।

তার সম্পর্কে যাচাই-বাছাই করে জানা যায়, শুরু থেকে রোহিঙ্গা ডাকাত ‘সালমান শাহ’ গ্রুপের একজন সক্রিয় সদস্য এবং অপহরণ, চাঁদাবাজি, ছিনতাই ও মারামারিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত তিনি। এ ছাড়া তিনি ২০১৯ সালের টেকনাফ থানার একটি হত্যা মামলার এজাহারনামীয় আসামি।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

কুমিল্লার ঘটনায় ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট, যুবক গ্রেফতার

‘সিনহা হত্যা মামলার আসামিরা স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দিয়েছিল’

‘সিনহা হত্যা মামলার আসামিরা স্বেচ্ছায় জবানবন্দি দিয়েছিল’

অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে নিহত ৬ রোহিঙ্গার পরিবারকে

অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে নিহত ৬ রোহিঙ্গার পরিবারকে

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

পাটুরিয়ায় ফেরিডুবি: আরও দুই কাভার্ডভ্যান উদ্ধার

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা: আহত কিশোরের মৃত্যু

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

ফেরি উদ্ধারে দ্বিতীয় দিনের অভিযান শুরু, এখনও পৌঁছায়নি ‘প্রত্যয়’

প্রেমিকাকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে মনির: র‌্যাব

প্রেমিকাকে হত্যার পর আত্মহত্যার চেষ্টা করে মনির: র‌্যাব

‘চোখ খুইল্লা লা’ স্লোগান দিয়ে নৌকার গণসংযোগে হামলার অভিযোগ

‘চোখ খুইল্লা লা’ স্লোগান দিয়ে নৌকার গণসংযোগে হামলার অভিযোগ

ডুবে যাওয়া ফেরিটি ৪২ বছরের পুরনো, উদ্ধার হয়নি এখনও

ডুবে যাওয়া ফেরিটি ৪২ বছরের পুরনো, উদ্ধার হয়নি এখনও

বেতনভাতার দাবিতে পোশাকশ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

বেতনভাতার দাবিতে পোশাকশ্রমিকদের মহাসড়ক অবরোধ

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা, সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ পুলিশের

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা, সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ পুলিশের

প্রকাশ্যে হকার হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

প্রকাশ্যে হকার হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

সর্বশেষ

মাকে হত্যায় ছেলের মৃত্যুদণ্ড

মাকে হত্যায় ছেলের মৃত্যুদণ্ড

‘প্রতিবাদ’ শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে: রিজভী

‘প্রতিবাদ’ শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে: রিজভী

‘বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও ৭ বছরে শ্রমিকের বেতন বাড়ে না’

‘বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও ৭ বছরে শ্রমিকের বেতন বাড়ে না’

ফিলিস্তিনে এক হাজার হাফেজকে সম্মাননা

ফিলিস্তিনে এক হাজার হাফেজকে সম্মাননা

আবারও মাঠে নামছেন সজল-মাহি!

আবারও মাঠে নামছেন সজল-মাহি!

© 2021 Bangla Tribune