X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা

আপডেট : ০২ জুন ২০২১, ১০:১১

প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতে করোনার সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। বলা হচ্ছে উচ্চ সংক্রমণের জন্য ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট খুবই ভয়াবহ। তাই সেখানে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। ঠাকুরগাঁওয়ের চার উপজেলা ভারতীয় সীমান্ত ঘেষা। এসব সীমান্ত এলাকা দিয়ে গরু, মাদক, কসমেটিক, শাড়িসহ বিভিন্ন ধরনের পণ্য চোরালান হয়ে আসে ভারত থেকে। আবার অনেকে অবৈধভাবে ভারতে কাজের সন্ধানে যায় এবং কাজ শেষে ফিরে আসে। করোনাকালেও এ অবস্থা অব্যাহত রয়েছে। আর এর থেকেই জেলায় ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান বলেন, সীমান্ত জেলা হিসেবে ঠাকুরগাঁওয়ের ঝুঁকি তুলনামূলক বেশি। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসন, বিজিবি ও পুলিশের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। এ পর্যন্ত ঠাকুরগাঁওয়ে ছয় ভারতীয়কে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রেখে দু'দফা পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের শরীরে করোনা ধরা পড়েনি। তবে এটাই চূড়ান্ত নয়। সীমান্তে সতর্কতা বাড়ানোর তাগিদ দেন তিনি।

ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে জেলায় এপ্রিল মাসে মোট করোনা রোগী শনাক্ত হন ৯৫ জন। শনাক্তের হার ১৪.৮ শতাংশ। মারা গেছেন চার জন। তবে মে মাসে শনাক্ত কমে দাঁড়িয়েছিলো ৩৯ জনে। মারা গেছেন তিন জন। সেক্ষেত্রে শনাক্তের হার ছিল ১০ শতাংশ।

১০ থেকে ১৬ মে দুই জন রোগী শনাক্ত হন। ১৭ থেকে ২৩ মে পর্যন্ত শনাক্ত হন সাত জন। কিন্তু মের শেষ পাঁচ দিনে শনাক্ত হন ২৫ জন।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যমতে আক্রান্তদের বেশিরভাগই আবার জেলার চারিদিকে সীমান্তবেষ্টিত উপজেলা বালিয়াডাঙ্গীর। এ সীমান্ত দিয়েই মূলতঃ ভারত থেকে গরু আসে। এর থেকেই আতংক, গরু চোরাচালানকারীরা ভারত থেকে এদেশে এসে করোনা ছড়াচ্ছেন কিনা।

সচেতন নাগরিকরা মনে করছে এই সময়ে সীমান্তে কঠোর নজরদারি না করতে পারলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মত অবস্থা হতে পারে।

ঠাকুরগাঁওয়ের নাট্যজন ও রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক খোদা বকশ ডাবলু বলেন, ঠাকুরগাঁও জেলার পাঁচ উপজেলার চারটিই ভারতীয় সীমান্তবর্তী। ফলে ভারতে যেভাবে মারাত্মক আকারে করোনা ছড়াচ্ছে, সে ঢেউ এদেশে লাগবে সেটাই খুব স্বাভাবিক। এজন্য সীমান্তে রেড অ্যালার্ট জারি করার কথা বলেন তিনি।

ঠাকুরগাঁও আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. ইনতাজুল হকের মতে, আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে জেনেছি, চাঁপাইনবাবগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন সীমান্ত জেলাগুলোতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে বাড়ছে। ঠাকুরগাঁও অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে, কারণ সীমান্তসংলগ্ন এলাকার কিছু মানুষ আছেন যারা ভারতে শ্রমিকের কাজ করেন। তারা বর্ডার দিয়ে অবৈধভাবে আসা যাওয়া করেন।

স্থানীয় সাংবাদিক আল মামুন বলেন, সর্বশেষ গত কিছুদিন ধরে বালিয়াডাঙ্গীতে আক্রান্তের সংখ্যা সবচাইতে বেশি। আর এখানে মাস্ক পরা মানুষের সংখ্যাও জেলার মধ্যে সবচাইতে কম। এই আক্রান্তরা ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত কিনা তা ভালোভাবে খতিয়ে দেখা প্রয়োজন। এছাড়া সীমান্তবর্তী হাটবাজার যেমন কালমেঘ, লাহিড়ীতে গরুর হাটে ভারতীয় গরু দেখা যাচ্ছে, যা আমাদের ক্যামেরায় সম্প্রতি ধরা পড়ে। তবে সীমান্ত হাটবাজারগুলোতে এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধির দুর্নীতিবাজ একাংশের মাধ্যমে গরুগুলোর 'বৈধ' কাগজপত্রও দিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের ঠাকুরগাঁও ৫০ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মাকসুদ জানান, বর্তমান পরিস্থিতিতে অনুপ্রবেশ ঠেকাতে আগের চেয়ে জনবল বাড়িয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে সীমান্তে সর্বোচ্চ কঠোর অবস্থানে রয়েছে বিজিবি।

এদিকে প্রশাসনিক নানা পদক্ষেপের পরেও জেলায় সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে অনেকটা উদাসীন। হাট-বাজার মার্কেটসহ বিভিন্ন স্থানে অনেকেই মাস্ক ব্যবহার করছেন না ও সামাজিক দূরত্ব মানছে না। দোকান-বাজার, রাস্তা-ঘাট কোনও স্থানেই লকডাউনের কড়াকড়িও দেখা যাচ্ছে না। এ বিষয়ে প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সাধারণ মানুষ।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

রংপুর মেডিক্যালে অক্সিজেন কিনে বাঁচার চেষ্টা রোগীদের

রংপুর মেডিক্যালে অক্সিজেন কিনে বাঁচার চেষ্টা রোগীদের

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ০০:৫২

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাব বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার থেকে তিন দিন ল্যাবটি বন্ধ থাকবে।

ল্যাবটি জীবাণুমুক্ত হলে করোনা পরীক্ষা শুরু হবে। বুধবার (২৮ জুলাই) বিষয়টি জানিয়েছেন স্বাস্থ্য দফতরের খুলনা বিভাগের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. মুরশিদ। 

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় ল্যাবটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ল্যাবের ফ্রিজে জমে থাকা নমুনাগুলো পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সোমবার নমুনা পরীক্ষার সময় পিসিআর ল্যাবে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় ল্যাবের সব নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ল্যাবে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে সন্দেহে ল্যাবের দেয়াল থেকে নমুনা নিয়ে পরীক্ষা করা হলে পজিটিভ আসে। পরে ল্যাবটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন সাফায়াত বলেন, ল্যাবটি ভাইরাসমুক্ত করার কাজ চলছে। আগামী শনিবার থেকে ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার চেষ্টা করা হবে। ফল সন্তোষজনক হলে ল্যাব চালু রাখা হবে। সন্তোষজনক না হলে ল্যাবটি আরও দুই দিন বন্ধ রাখা হবে।

গত দুই মাস ধরে সাতক্ষীরা, যশোর, মাগুরা ও নড়াইলের করোনা পরীক্ষার একমাত্র ল্যাব হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে সাতক্ষীরা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাব। ল্যাবে প্রতিদিন ৯৪টি নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা থাকলেও প্রতিদিন দ্বিগুণ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

এদিকে, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় ল্যাবের ফ্রিজে জমে থাকা পাঁচ শতাধিক নমুনা পরীক্ষা নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। খুলনা মেডিক্যাল কলেজের (খুমেক) পিসিআর ল্যাব কর্তৃপক্ষ এসব নমুনা পরীক্ষা করতে অস্বীকার করায় ঢাকায় পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। ইতোমধ্যে সাতক্ষীরার ল্যাবে জমে থাকা নড়াইল ও মাগুরার বিপুল পরিমাণ নমুনা পরীক্ষা করে জট কমিয়ে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

/এএম/

সম্পর্কিত

এক কোটি খুঁজতে গিয়ে মিললো ৩ কোটি!

এক কোটি খুঁজতে গিয়ে মিললো ৩ কোটি!

পানিতে থৈ থৈ করছে সাতক্ষীরার নিম্নাঞ্চল

পানিতে থৈ থৈ করছে সাতক্ষীরার নিম্নাঞ্চল

ভোলায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৭৫ শতাংশ

ভোলায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৭৫ শতাংশ

খালাস শেষে অক্সিজেন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পথে শেষ ট্যাংকলরিটি

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ০০:২৫

সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে ভারত থেকে দ্বিতীয় বারের মতো রেলপথে আসা ২০০ টন তরল অক্সিজেন খালাস শেষ হয়েছে। এরপর ভারতে ফিরে গেছে অক্সিজেনবাহী ইন্দো-বাংলা এক্সপ্রেস ট্রেনটি।

বুধবার (২৮ জুলাই) সকাল ১১টা থেকে শুরু হয় ট্রেন থেকে সড়ক পথে পরিবহনের জন্য ট্যাংকলরিতে অক্সিজেন লোড করা। রাত সাড়ে ৮টার দিকে খালাস কার্যক্রম সম্পন্ন করে পৌনে ৯টার দিকে সর্বশেষ ট্যাংকলরিটি ২০ টন অক্সিজেন নিয়ে যাওয়া হয় নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্টের উদ্দেশে।

এছাড়াও আগামী সপ্তাহের শুরুতেই রেলপথে দেশে আসার সম্ভাবনা রয়েছে আরও ২০০ টন তরল অক্সিজেন। যা এই বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনেই এসে পৌঁছাবে ও খালাস হয়ে সড়ক পথে নারায়ণগঞ্জে যাবে।

তরল অক্সিজেন লোড করা হয় ট্যাংকলরিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান লিন্দে বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক ও প্রশাসন বিভাগের ব্যবস্থাপক সুফিয়া আক্তার ওহাব এবং গ্যাস শাখার সরবরাহ ব্যবস্থাপক মো. খাররুম বিন আব্দুল কাইয়ুম মণ্ডল।

সুফিয়া আক্তার ওহাব বলেন, ‘বুধবার সকাল থেকে রাত পৌনে ৯টা নাগাদ ১০টি ট্যাংকলরিতে করে মোট ২০০ টন তরল অক্সিজেন নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্ল্যান্টের উদ্দেশে ছেড়ে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘যেহেতু এবার বাল্ব বক্স স্টেশনের উলটো দিকে করে আনা হয়েছিল তাই একসঙ্গে ছয়টি ট্যাংকলরিতে লোড করা সম্ভব হয়েছে। আগামীতে ভারত থেকে অক্সিজেন নিয়ে আসা ট্রেনগুলোও এখানেই খালাস হবে।’ প্রতি সপ্তাহে ২০০ টন করে অক্সিজেন নিয়ে দুই থেকে তিনটি ট্রেন বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা।

উল্লেখ্য, এর আগে ভারত থেকে আসা ২০০ টন তরল অক্সিজেন সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে গত রবিবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে পৌঁছায়। এরপর বুধবার সকালে আরেকটি অক্সিজেনবাহী ট্রেন আসার পর চলে খালাস কার্যক্রম। এ দিয়ে দুবারে ২০০ টন করে সর্বমোট ৪০০ টন অক্সিজেন রেলপথে দেশে আসলো। ইন্দো-বাংলা ট্রেনটি দুবারই ভারতের ঝাড়খণ্ড প্রদেশের জামশেদপুর টাটানগর থেকে দশটি কন্টেইনারে করে এই তরল অক্সিজেন নিয়ে সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম রেলওয়ে স্টেশনে অক্সিজেন খালাস করে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

রাজশাহীতে বিক্রি হয়নি ৭৩ হাজার কোরবানির পশু

রাজশাহীতে বিক্রি হয়নি ৭৩ হাজার কোরবানির পশু

কার্ভাডভ্যান চাপায় প্রাণ গেলো ব্যাংক কর্মকর্তার

কার্ভাডভ্যান চাপায় প্রাণ গেলো ব্যাংক কর্মকর্তার

জামায়াত-শিবিরের ২০ নেতাকর্মী গ্রেফতার

জামায়াত-শিবিরের ২০ নেতাকর্মী গ্রেফতার

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ০০:২১

রংপুরের বদরগঞ্জের গোপিনাথপুরে এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে তৌহিদুর রহমান নামে এক যুবক।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বদরগঞ্জ আমলী আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় তৌহিদুর। বুধবার (২৮ জুলাই) বিষয়টি নিশ্চিত করেন বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) আরিফ আলী।

পুলিশ জানায়, স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় দুই বছর আগে তালাক দিয়ে নানার বাড়িতে চলে আসেন ওই নারী। কিছুদিন পর শালবাড়ি এলাকার আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে তৌহিদুর রহমানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয় তার। গত ২৪ জুলাই রাতে ফোন করে ওই নারীকে বাড়ির বাইরে ডেকে নেয় তৌহিদুর। সেখানে শারীরিক সম্পর্কের প্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করা হয়। পরে তৌহিদুর ও তার দুই সহযোগী শ্বাসরোধে ওই নারীকে হত্যা করে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে গাছের সঙ্গে লাশ ঝুলিয়ে রেখে চলে যায় তারা। এলাকাবাসী পুলিশকে খবর দিলে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়। 

এ ঘটনায় ওই নারীর ছোট ভাই তিন জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যা মামলা করেন। ঘটনার তদন্ত করে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় তৌহিদুরকে সোমবার রাতে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ওসি আরিফ আলী বলেন, তৌহিদুরকে গ্রেফতারের পর জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে দুই সহযোগীসহ তিন জন ওই নারীকে ধর্ষণ করেছে। মঙ্গলবার তাকে বদরগঞ্জ আমলী আদালতে হাজির করা হলে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাকে কারাগারে পাঠান বিচারক। তার দুই সহযোগীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

/এএম/

সম্পর্কিত

বাড়ির উঠানে স্ত্রীর লাশ পুঁতে রাখলো স্বামী

বাড়ির উঠানে স্ত্রীর লাশ পুঁতে রাখলো স্বামী

‘গরু বিক্রির ১২ লাখ টাকার জন্য মালিক-কর্মচারীকে হত্যা’

‘গরু বিক্রির ১২ লাখ টাকার জন্য মালিক-কর্মচারীকে হত্যা’

এক কোটি খুঁজতে গিয়ে মিললো ৩ কোটি!

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২৩:১৯

বেনাপোল বন্দরে ৩৯টি ট্রাকের এক কোটি ১০ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকির ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে ধরা পড়লো আরও তিন কোটি ৩২ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকির তথ্য। এই রাজস্ব ফাঁকির সঙ্গে জড়িত সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট রয়েল এন্টারপ্রাইজ। বুধবার (২৮ জুলাই) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বেনাপোল কাস্টমসের অতিরিক্ত কমিশনার ড. নেয়ামুল ইসলাম।

বেনাপোল কাস্টম সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে রয়েল এন্টারপ্রাইজ আংগুর, টমেটো ও আনার আমদানি করে মোটা অংকের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে আসছে। ২৮০টি বিল অব এন্ট্রির বিপরীতে এ রাজস্ব ফাঁকি দেওয়া হয়েছে। পচনশীল এসব পণ্যের চালান সাধারণত সন্ধ্যার পর বন্দরে প্রবেশ করে থাকে। রাতেই কাস্টমস কর্মকর্তারা ওয়েইং স্কেলে এসব পণ্য ওজন করে শতভাগ কায়িক পরীক্ষা সম্পন্ন করে থাকেন। কায়িক পরীক্ষার সময় প্রতিটি চালানে এক থেকে দুই টন করে অতিরিক্ত পণ্য পাওয়া যায়। এই অতিরিক্ত পণ্যের ডিউটি পরের দিন সকালে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরা সরকারি ট্রেজারি ব্যাংকে জমা দিয়ে থাকেন। কিন্তু রয়েল এন্টারপ্রাইজ এসব পণ্যের ২৮০টি বিল অব এন্ট্রির রাজস্ব জমা না দিয়ে প্রতারণা করে আসছে। কাস্টমস কর্তৃপক্ষ এ ব্যাপারে একাধিকবার রয়েল এন্টারপ্রাইজকে টাকা জমা দেওয়ার জন্য নোটিশ দিয়েছে। কিন্তু রয়েল এন্টারপ্রাইজের মালিক রফিকুল ইসলাম রয়েল সেসব নোটিশের তোয়াক্কা না করে আঙুর, টমেটো ও আনার জাতীয় ফল কোনও বাধা ছাড়াই খালাস করে আসছেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে ছয় জন আমদানিকারকের বিন নম্বর লক করে দিয়েছে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ। সেই সঙ্গে রয়েল এন্টারপ্রাইজের নামে ফৌজদারি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা। এভাবে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে মাত্র এক বছরে তিনি শার্শা, ঢাকা ও যশোরে বাড়ি ও মার্কেটসহ কোটি কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। 

মঙ্গলবার সকালে জালিয়াতি করে রাজস্ব ফাঁকির অভিযোগে রয়েল এন্টারপ্রাইজের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট লাইসেন্স বাতিল করেছেন কাস্টমস কর্তৃপক্ষ।

কাস্টমস সূত্র জানায়, গত শনিবার বন্ধের দিন ভারত থেকে ৩৯ ট্রাক আঙুর, টমেটো ও আনার আমদানি করা হয় বেনাপোল বন্দর দিয়ে। পণ্য চালানগুলো খালাশের দায়িত্বে ছিল সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট রয়েল এন্টারপ্রাইজ। কাস্টমস কর্মকর্তাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি বন্দরের ৩১ নম্বর ট্রান্সশিপমেন্ট ইয়ার্ড থেকে ৩৯ ট্রাক আংগুর, টমেটো ও আনার বের করে নিয়ে যায়। যদিও কাস্টমসের চাপে পরদিন ৩৯ ট্রাকের রাজস্ব সরকারি ব্যাংকে জমা দেয় তারা। 

রয়েল এন্টারপ্রাইজের মালিক রফিকুল ইসলাম রয়েল বলেন, ‘নতুন করে তিন কোটি ৩২ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকির ঘটনায় আমার প্রতিষ্ঠান জড়িত নয়। আমদানিকারকের কাছে এই টাকা বকেয়া রয়েছে। আমি বকেয়া এসব রাজস্ব আদায় করে দেওয়ার চেষ্টা করছি।’

ড. নেয়ামুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘রাজস্ব ফাঁকির ঘটনা তদন্ত করতে গিয়ে আরও তিন কোটি ৩২ লাখ টাকার রাজস্ব ফাঁকির ঘটনা ধরা পড়েছে। এই টাকা রয়েল এন্টারপ্রাইজের কাছে বকেয়া পড়ে আছে। আজ সকালে বেশ কয়েকটি আমদানিকারকের বিন লক করা হয়েছে। পরবর্তী সময়ে সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।’ 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

৪ কোটি টাকার অবৈধ সম্পদ: ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

পানিতে থৈ থৈ করছে সাতক্ষীরার নিম্নাঞ্চল

পানিতে থৈ থৈ করছে সাতক্ষীরার নিম্নাঞ্চল

শ্রীপুরে এক সপ্তাহে ৪ হত্যাকাণ্ড: স্থানীয়দের মাঝে উদ্বেগ

শ্রীপুরে এক সপ্তাহে ৪ হত্যাকাণ্ড: স্থানীয়দের মাঝে উদ্বেগ

টানা বৃষ্টিতে ভেঙে পড়েছে বিদ্যুতের খুঁটি-গাছ

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২৩:০০

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় পুনরায় একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। লঘুচাপের প্রভাবে টানা বৃষ্টিতে পটুয়াখালী জেলার ১৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এ জেলায় বাতাসের চাপ আগের চেয়ে কিছুটা বেড়েছে। সাগর ও নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে।

টানা তিন দিনের বৃষ্টি ও ভাঙা বেড়িবাঁধ দিয়ে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করে কুয়াকাটার আলীপুর, ম‌হিপুর, নিজামপুর, কলাপাড়ার ধানখালী, লালুয়া; রাঙ্গাবালী উপ‌জেলার চর‌মোন্তাজ, চরআন্ডা, বা‌হেরচর, চা‌লিতাবু‌নিয়া; দশ‌মিনা উপ‌জেলার ঢনঢ‌নিয়া গ্রামসহ বি‌ভিন্ন এলাকা প্লা‌বিত হয়ে‌ছে। তলিয়ে গেছে অধিকাংশ ঘরবাড়ি, মাছের ঘের ও পুকুর।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাত থে‌কেই ঝ‌োড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি হচ্ছে। কয়েক স্থা‌নে বিদ্যুতের খুঁটি ভেঙে পড়েছে। গাছ উপড়ে পড়েছে ঘরের ওপর। এতে পটুয়াখালী ও বরগুনা জেলায় ১২ ঘণ্টা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন ছিলো। দুম‌কি উপ‌জেলার পাগলার মোড়, মৌকরণ, বসাকবাজার, শাখা‌রিয়া, পা‌খিমারা এলাকার রাস্তায় গাছপালা প‌ড়ে থাক‌তে দেখা গে‌ছে।

দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে পায়রা বন্দরকে স্থানীয় তিন নম্বর সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। মাছ ধরার ট্রলারসমূহকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে চলাচল করতে বলা হয়েছে। এদিকে গত এক সপ্তাহ ধরে উপকূলীয় এলাকায় থেমে থেমে হালকা থেকে মাঝারি ও ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে। এসব এলাকায় ৩৩ ঘণ্টায় ২৮৪.৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এ বৃষ্টিপাত ২০০৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ বলে জানিয়েছে জেলা আবহাওয়া অফিস।

টানা বৃষ্টিতে পটুয়াখালীর ১৫ গ্রাম প্লাবিত

রাঙ্গাবালী উপজেলার নয়ারচর গ্রামের কৃষক আবদুর রহিম বলেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে এসব এলাকার বেড়িবাঁধ ভেঙে যায়। এছাড়া চালিতাবুনিয়া ইউনিয়নের তিনটি গ্রামের বাঁধ অনেক আগে থেকেই ভেঙে আছে। এ বাঁধগুলো সংস্কার না করায় জোয়ারের পানি লোকালয়ে প্রবেশ করে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড বেড়িবাঁধ সংস্কার করেনি। চরমোন্তাজ এলাকার মানুষেরা ৬০ হাজার টাকা চাঁদা তুলে স্থানীয় কৃষকরা মিলে চাষাবাদের জন্য দুই কিলোমিটার বাঁধ সংস্কার করে। গত রবি ও সোমবার (২৫ ও ২৬ জুলাই) দুপুরে সংস্কার করা বাঁধ ভেঙে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে লোকালয়। এতে আমাদের বাড়িঘর সব ডুবে গেছে।

লালুয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শওকত হেসেন বলেন, আমার ইউনিয়নে সিডরের পর থেকেই বেড়িবাঁধ নেই। আজ আমার ইউনিয়নের কয়েকটা গ্রাম ছাড়া সব তলিয়ে গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) জানায়, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডবে উপজেলার চালিতাবুনিয়া, চরলতা, গাইয়াপাড়া, কোড়ালিয়া, চরমোন্তাজ, চরবেষ্টিনসহ কয়েকটি এলাকার বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। অরক্ষিত ওই ছয় গ্রামের মধ্যে পাঁচ গ্রামের নিম্নাঞ্চলের অভ্যন্তরে জোয়ারের পানি প্রবেশ ঠেকাতে আপদকালীন পদক্ষেপ নিয়েছে পাউবো। যেখানে বাঁধের ক্ষতি হয়েছে সেখানে সংস্কার এবং যেখানে বিলীন হয়েছে সেখানে পুনর্নির্মাণের কাজ করা হয়। তবে  উপজেলার ১৪ কিলোমিটার ভাঙা বাঁধের তিন কিলোমিটার জরুরি ভিত্তিতে সংস্কার করা হয়েছে। এখনও ১১ কিলোমিটার বাঁধ সংস্কার বাকি আছে।

পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হালিম সাহেলী বলেন, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসে যেসব এলাকার বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ওই জায়গায় কাজ চলমান আছে। কিছু জায়গার সংস্কার করা হয়েছে। আর কিছু জায়গায় এখনও সম্ভব হয়নি। কিন্তু দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া দূর হলে আমারা দ্রুত সংস্কার করতে পারবো। এরপরও নতুন করে কোনও বেড়িবাঁধ ভেঙে পানি প্রবেশ করলে আমরা দ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা করবো।

/এফআর/

সম্পর্কিত

ভোলায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৭৫ শতাংশ

ভোলায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৭৫ শতাংশ

চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের শঙ্কা, আশ্রয়কেন্দ্রে ৩ শতাধিক মানুষ

চট্টগ্রামে পাহাড় ধসের শঙ্কা, আশ্রয়কেন্দ্রে ৩ শতাধিক মানুষ

লকডাউনে বিয়ের আয়োজন, বর-কনের বাবার জরিমানা

লকডাউনে বিয়ের আয়োজন, বর-কনের বাবার জরিমানা

বরগুনায় টানা বর্ষণে ডুবে গেছে ফসল ও মাছের ঘের

বরগুনায় টানা বর্ষণে ডুবে গেছে ফসল ও মাছের ঘের

সর্বশেষ

পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯ ওভারের ম্যাচটিও শেষ হলো না

পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯ ওভারের ম্যাচটিও শেষ হলো না

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় পরিবেশমন্ত্রীর

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় পরিবেশমন্ত্রীর

সেই লাকী আক্তারের কণ্ঠে কন্যা ও কান্নার গল্প (ভিডিও)

সেই লাকী আক্তারের কণ্ঠে কন্যা ও কান্নার গল্প (ভিডিও)

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেখভালে জাতিসংঘ-সরকার একমত

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেখভালে জাতিসংঘ-সরকার একমত

খালাস শেষে অক্সিজেন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পথে শেষ ট্যাংকলরিটি

খালাস শেষে অক্সিজেন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পথে শেষ ট্যাংকলরিটি

ভারতকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার সমতা

ভারতকে হারিয়ে শ্রীলঙ্কার সমতা

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

তালেবানের বিরুদ্ধে জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতাকে হত্যার অভিযোগ

তালেবানের বিরুদ্ধে জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতাকে হত্যার অভিযোগ

রাজনীতি ছাড়ছেন ট্রাম্পের জামাই

রাজনীতি ছাড়ছেন ট্রাম্পের জামাই

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

এক কোটি খুঁজতে গিয়ে মিললো ৩ কোটি!

এক কোটি খুঁজতে গিয়ে মিললো ৩ কোটি!

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

সংঘবদ্ধ ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যার কথা স্বীকার

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

রংপুর মেডিক্যালে অক্সিজেন কিনে বাঁচার চেষ্টা রোগীদের

রংপুর মেডিক্যালে অক্সিজেন কিনে বাঁচার চেষ্টা রোগীদের

করোনায় প্রাণ গেলো অন্তঃসত্ত্বা বিচারকের

করোনায় প্রাণ গেলো অন্তঃসত্ত্বা বিচারকের

নিবন্ধন করেও টিকা নেননি, অ্যাপে দেখাচ্ছে দুই ডোজই সম্পন্ন

নিবন্ধন করেও টিকা নেননি, অ্যাপে দেখাচ্ছে দুই ডোজই সম্পন্ন

রংপুরে একদিনে ১৬ মৃত্যু

রংপুরে একদিনে ১৬ মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune